মঙ্গলবার, ২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৮ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৩:৩৪
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, January 14, 2017 6:26 pm
A- A A+ Print

মেয়রের আদেশ মানবে না হকাররা

৩২

হকাররা শুধু সন্ধ্যার পর ফুটপাতে পণ্য নিয়ে বসবে- ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকনের এই সিদ্ধান্ত মানবে না বলে ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ হকার্স ইউনিয়ন। তাদের দাবি, আজ শনিবার বিকেল ৫টার মধ্যে এ আদেশ প্রত্যাহার করে নিতে হবে। অন্যথায় নগর ভবন ঘেরাও করা হবে। শনিবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশে এ ঘোষণা দেওয়া হয়। গত ১১ জানুয়ারি হকারদের একটি সংগঠন হকার্স ফেডারেশনের সঙ্গে ঢাকা দক্ষিণের মেয়র সাঈদ খোকনের মতবিনিময় সভায় সিদ্ধান্ত হয়, কর্মদিবসে হকাররা ফুটপাতে বসবে না। মেয়র খোকন জানান, দিনের বেলায় মানুষের চলাচল যেন নির্বিঘ্ন থাকে, সে ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে অফিস ছুটির দেড় ঘণ্টা পর থেকে হকাররা পণ্য নিয়ে বসতে পারবে। মেয়র হকার সংগঠনের সঙ্গে মতবিনিময়ে সুনির্দিষ্ট সময়ে হকার বসা ছাড়াও ২ হাজার ৫০৪ জন হকারকে পুনর্বাসনের পরিকল্পনা জানিয়েছিলেন। তবে মেয়রের এই ঘোষণার তিন দিনের মাথায় বিক্ষোভে হকার্স ইউনিয়নের নেতারা দাবি করলেন, এই ২ হাজার ৫০৪ জনের তালিকা একটি আইওয়াশ। তাদের দাবি, রাজধানীতে হকারের সংখ্যা ১০ লাখ। পুনর্বাসন করলে করতে হবে সবাইকেই। সমাবেশে বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, অন্য সবাই আইডি কার্ড পেলে হকাররা কেন পাবে না। হকাররা আইডি কার্ড পেলে ভুয়া হকাররা আর ভাঁওতাবাজি করতে পারবে না। তিনি বলেন, ‘হকারদের রুটি-রুজির ব্যবস্থা করে দেবেন না আপনারা, তারা করে খাবে, সেটাও হতে দেবেন না- সেটা হবে না। গরিবের ওপর জুলুম কোনোভাবেই বরদাশত করা হবে না।’ সিপিবির এই নেতা বলেন, হকারদের পুনর্বাসনের জন্য হকার্স মার্কেট করে দিতে হবে। পাশাপাশি যেখানে কাস্টমার আছে, সেখানেই এই মার্কেট করতে হবে। তিনি আরো বলেন, সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার পরে বসলে তাদের তো আধা বেলার রুজিও হবে না। তাহলে তাদের কী মেয়র খাওয়াবে নাকি তারা গণভবনে গিয়ে খেয়ে আসবে। এর আগে দাবি আদায়ে প্রেসক্লাবের সামনে রাস্তা বন্ধ করে সমাবেশ করে হকার্স ইউনিয়ন। সমাবেশ শেষে বিক্ষোভ মিছিল রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক ঘোরে। আয়োজক সংগঠনের সভাপতি হাশেম কবিরের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে হাজার খানেক হকার অংশ নেন।

Comments

Comments!

 মেয়রের আদেশ মানবে না হকাররাAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

মেয়রের আদেশ মানবে না হকাররা

Saturday, January 14, 2017 6:26 pm
৩২

হকাররা শুধু সন্ধ্যার পর ফুটপাতে পণ্য নিয়ে বসবে- ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকনের এই সিদ্ধান্ত মানবে না বলে ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ হকার্স ইউনিয়ন।

তাদের দাবি, আজ শনিবার বিকেল ৫টার মধ্যে এ আদেশ প্রত্যাহার করে নিতে হবে। অন্যথায় নগর ভবন ঘেরাও করা হবে।

শনিবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশে এ ঘোষণা দেওয়া হয়।

গত ১১ জানুয়ারি হকারদের একটি সংগঠন হকার্স ফেডারেশনের সঙ্গে ঢাকা দক্ষিণের মেয়র সাঈদ খোকনের মতবিনিময় সভায় সিদ্ধান্ত হয়, কর্মদিবসে হকাররা ফুটপাতে বসবে না। মেয়র খোকন জানান, দিনের বেলায় মানুষের চলাচল যেন নির্বিঘ্ন থাকে, সে ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে অফিস ছুটির দেড় ঘণ্টা পর থেকে হকাররা পণ্য নিয়ে বসতে পারবে।

মেয়র হকার সংগঠনের সঙ্গে মতবিনিময়ে সুনির্দিষ্ট সময়ে হকার বসা ছাড়াও ২ হাজার ৫০৪ জন হকারকে পুনর্বাসনের পরিকল্পনা জানিয়েছিলেন।

তবে মেয়রের এই ঘোষণার তিন দিনের মাথায় বিক্ষোভে হকার্স ইউনিয়নের নেতারা দাবি করলেন, এই ২ হাজার ৫০৪ জনের তালিকা একটি আইওয়াশ। তাদের দাবি, রাজধানীতে হকারের সংখ্যা ১০ লাখ। পুনর্বাসন করলে করতে হবে সবাইকেই।

সমাবেশে বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, অন্য সবাই আইডি কার্ড পেলে হকাররা কেন পাবে না। হকাররা আইডি কার্ড পেলে ভুয়া হকাররা আর ভাঁওতাবাজি করতে পারবে না।

তিনি বলেন, ‘হকারদের রুটি-রুজির ব্যবস্থা করে দেবেন না আপনারা, তারা করে খাবে, সেটাও হতে দেবেন না- সেটা হবে না। গরিবের ওপর জুলুম কোনোভাবেই বরদাশত করা হবে না।’

সিপিবির এই নেতা বলেন, হকারদের পুনর্বাসনের জন্য হকার্স মার্কেট করে দিতে হবে। পাশাপাশি যেখানে কাস্টমার আছে, সেখানেই এই মার্কেট করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার পরে বসলে তাদের তো আধা বেলার রুজিও হবে না। তাহলে তাদের কী মেয়র খাওয়াবে নাকি তারা গণভবনে গিয়ে খেয়ে আসবে।

এর আগে দাবি আদায়ে প্রেসক্লাবের সামনে রাস্তা বন্ধ করে সমাবেশ করে হকার্স ইউনিয়ন। সমাবেশ শেষে বিক্ষোভ মিছিল রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক ঘোরে।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি হাশেম কবিরের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে হাজার খানেক হকার অংশ নেন।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X