সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৯:৫১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, January 29, 2017 6:17 pm
A- A A+ Print

যমুনা টিভির মধ্যস্থতায় আত্মসমর্পণ : দস্যু জাহাঙ্গীর বাহিনীর বিরুদ্ধে আইনি প্রক্রিয়া শুরু

৩৪

বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল যমুনা টিভির মধ্যস্থতায় সুন্দরবনের অন্যতম বৃহৎ দস্যু বাহিনী হিসেবে পরিচিত জাহাঙ্গীর বাহিনীর আত্মসমর্পণ করা ২০ সদস্যের নামে দস্যুতা ও অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। রোববার বিকালে বাগেরহাটের শরনখোলা থানায় র‌্যাব -৮ এর ডিএডি মো. দোলোয়ার হোসেন বাদী হয়ে দস্যুতা ও অস্ত্র আইনে এই মামালা দায়ের করেন। দস্যুতা ও অস্ত্র আইনে দায়ের করা মামলায় আসামিদের মধ্যে রয়েছেন- বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার শ্রীফলতলা এলাকার বনদস্যু জাহাঙ্গীর বাহিনীর প্রধান মো. জাহাঙ্গীর শিকারী (৩৮), একই থানার বড়কাটালী গ্রামের মো. শেখ ফরিদ (৩৮), শ্রীফলতলা গ্রামের মো. মারুফ শেখ (৪১), সাপমারী কাটাখালী এলাকার মো. আকরাম শেখ (৩৫), পেড়িখালী গ্রামের মো. মোস্তাহার শেখ (৫০), কাটাখালীর মো. মাফিকুল গাজী (৩৮), বড় কাটাখালী গ্রামের মো. কবির গাজী (৩২), শ্রীফলতলা গ্রামের মো. পলাশ হোসেন (৩৫), পার্শ্ববর্তী মংলা উপজেলার সিগন্যাল টাওয়ার এলাকার মো. এরশাদ খান (৩৫), গোড়াবুড়বুড়িয়ার মো. হারুন শেখ (৫৫), উলুবুনিয়া গ্রামের মো. আইয়ুব আলী শেখ(৫২), রামপালের আড়ুয়াডাগা গ্রামের মো. গাজী তরিকুল ইসলাম (৩৫), বড়দূর্গাপুর গ্রামের মো. কামারুল শেখ (২২), কাপাসডাগা গ্রামের মো. কামরুল হাসান (৩৮), বড়দূর্গাপুর গ্রামের মো. হায়দার শেখ (২৯), খুলনার রুপসা উপজেলার আলাইপুর গ্রামের মো. বাছের শিকদার(২৬) ও মো. ইজাজ মোল্লা (৪১), একই জেলার কয়রা উপজেলার মহেশ্বরীপুর গ্রামের মো. আবদুল হান্নান সরদার (২৩), যশোর জেলার শার্শা  উপজেলার রগুনাথপুর গ্রামের মো. মহাসিন মোড়ল (৩৯) এবং  সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলার টেংরাখালী গ্রামের মো. ইয়াকুব সরদার(২৯)। এর আগে দুপুরে বনদস্যু জাহাঙ্গীর বাহিনীর ২০ সদস্যকে ৩১টি আগ্নেয়াস্ত্র ও এক হাজার ৫০৭ রাউন্ড গুলিসহ শরনখোলা থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে র‌্যাব। দুপুর সাড়ে ১২টায় দুপুরে বরিশালে র‌্যাব-৮ এর কার্যালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের কাছে বাহিনী প্রধান জাহাঙ্গীরসহ ২০ সদস্য ৩১টি আগ্নেয়াস্ত্র এক হাজার ৫০৭ রাউন্ড গোলাবারুদ জমা দিয়ে আত্মসমর্পণ করেন। এ সময় র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদসহ আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। জাহাঙ্গীর বাহিনী সুন্দরবনের সবচেয়ে বড় দস্যু বাহিনী হিসেবে পরিচিত। এ বাহিনীর দৌরাত্ম্যে সুন্দরবনের ওপর নির্ভরশীল কৃষক, জেলে ও ব্যবসায়ীরা দীর্ঘদিন ধরে নির্যাতনের শিকার হয়ে আসছিলেন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত যমুনা টিভির মধ্যস্থতায় সুন্দরবন এলাকায় সক্রিয় দস্যু বাহিনীগুলোর মধ্যে নয়টি বাহিনী আত্মসমর্পণ করল। জাহাঙ্গীর বাহিনীর আগে মাস্টার বাহিনী, নোয়া বাহিনী, খোকাবাবু বাহিনী, শান্ত বাহিনী, আলম বাহিনী, সাগর বাহিনী, মস্তু বাহিনী ও ইলিয়াস বাহিনী আত্মসমর্পণ করে। আত্মসমর্পণের পর ৯০ জনের অধিক দস্যু ফিরে এসেছেন স্বাভাবিক জীবনে।

Comments

Comments!

 যমুনা টিভির মধ্যস্থতায় আত্মসমর্পণ : দস্যু জাহাঙ্গীর বাহিনীর বিরুদ্ধে আইনি প্রক্রিয়া শুরুAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

যমুনা টিভির মধ্যস্থতায় আত্মসমর্পণ : দস্যু জাহাঙ্গীর বাহিনীর বিরুদ্ধে আইনি প্রক্রিয়া শুরু

Sunday, January 29, 2017 6:17 pm
৩৪

বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল যমুনা টিভির মধ্যস্থতায় সুন্দরবনের অন্যতম বৃহৎ দস্যু বাহিনী হিসেবে পরিচিত জাহাঙ্গীর বাহিনীর আত্মসমর্পণ করা ২০ সদস্যের নামে দস্যুতা ও অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

রোববার বিকালে বাগেরহাটের শরনখোলা থানায় র‌্যাব -৮ এর ডিএডি মো. দোলোয়ার হোসেন বাদী হয়ে দস্যুতা ও অস্ত্র আইনে এই মামালা দায়ের করেন।

দস্যুতা ও অস্ত্র আইনে দায়ের করা মামলায় আসামিদের মধ্যে রয়েছেন- বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার শ্রীফলতলা এলাকার বনদস্যু জাহাঙ্গীর বাহিনীর প্রধান মো. জাহাঙ্গীর শিকারী (৩৮), একই থানার বড়কাটালী গ্রামের মো. শেখ ফরিদ (৩৮), শ্রীফলতলা গ্রামের মো. মারুফ শেখ (৪১), সাপমারী কাটাখালী এলাকার মো. আকরাম শেখ (৩৫), পেড়িখালী গ্রামের মো. মোস্তাহার শেখ (৫০), কাটাখালীর মো. মাফিকুল গাজী (৩৮), বড় কাটাখালী গ্রামের মো. কবির গাজী (৩২), শ্রীফলতলা গ্রামের মো. পলাশ হোসেন (৩৫), পার্শ্ববর্তী মংলা উপজেলার সিগন্যাল টাওয়ার এলাকার মো. এরশাদ খান (৩৫), গোড়াবুড়বুড়িয়ার মো. হারুন শেখ (৫৫), উলুবুনিয়া গ্রামের মো. আইয়ুব আলী শেখ(৫২), রামপালের আড়ুয়াডাগা গ্রামের মো. গাজী তরিকুল ইসলাম (৩৫), বড়দূর্গাপুর গ্রামের মো. কামারুল শেখ (২২), কাপাসডাগা গ্রামের মো. কামরুল হাসান (৩৮), বড়দূর্গাপুর গ্রামের মো. হায়দার শেখ (২৯), খুলনার রুপসা উপজেলার আলাইপুর গ্রামের মো. বাছের শিকদার(২৬) ও মো. ইজাজ মোল্লা (৪১), একই জেলার কয়রা উপজেলার মহেশ্বরীপুর গ্রামের মো. আবদুল হান্নান সরদার (২৩), যশোর জেলার শার্শা  উপজেলার রগুনাথপুর গ্রামের মো. মহাসিন মোড়ল (৩৯) এবং  সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলার টেংরাখালী গ্রামের মো. ইয়াকুব সরদার(২৯)।

এর আগে দুপুরে বনদস্যু জাহাঙ্গীর বাহিনীর ২০ সদস্যকে ৩১টি আগ্নেয়াস্ত্র ও এক হাজার ৫০৭ রাউন্ড গুলিসহ শরনখোলা থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে র‌্যাব।

দুপুর সাড়ে ১২টায় দুপুরে বরিশালে র‌্যাব-৮ এর কার্যালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের কাছে বাহিনী প্রধান জাহাঙ্গীরসহ ২০ সদস্য ৩১টি আগ্নেয়াস্ত্র এক হাজার ৫০৭ রাউন্ড গোলাবারুদ জমা দিয়ে আত্মসমর্পণ করেন।

এ সময় র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদসহ আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

জাহাঙ্গীর বাহিনী সুন্দরবনের সবচেয়ে বড় দস্যু বাহিনী হিসেবে পরিচিত। এ বাহিনীর দৌরাত্ম্যে সুন্দরবনের ওপর নির্ভরশীল কৃষক, জেলে ও ব্যবসায়ীরা দীর্ঘদিন ধরে নির্যাতনের শিকার হয়ে আসছিলেন।

এ নিয়ে এখন পর্যন্ত যমুনা টিভির মধ্যস্থতায় সুন্দরবন এলাকায় সক্রিয় দস্যু বাহিনীগুলোর মধ্যে নয়টি বাহিনী আত্মসমর্পণ করল। জাহাঙ্গীর বাহিনীর আগে মাস্টার বাহিনী, নোয়া বাহিনী, খোকাবাবু বাহিনী, শান্ত বাহিনী, আলম বাহিনী, সাগর বাহিনী, মস্তু বাহিনী ও ইলিয়াস বাহিনী আত্মসমর্পণ করে। আত্মসমর্পণের পর ৯০ জনের অধিক দস্যু ফিরে এসেছেন স্বাভাবিক জীবনে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X