মঙ্গলবার, ২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৮ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১:০৭
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, November 25, 2016 9:49 am
A- A A+ Print

যুক্তরাষ্ট্রে ভোট কারচুপির নিশ্চিত প্রমাণ পাওয়া গেছে?

173315_154

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে কি কারচুপি হয়েছে? উইস্কনসিন, মিশিগান ও পেনসিলভেনিয়া- এই তিন রাজ্যে সাইবার হামলার ফলে ভোটগণনায় গোলমাল হয়ে থাকতে পারে বলে বিশেষজ্ঞরাই আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন৷ এই বিশেষজ্ঞদের মাঝে নির্বাচন-সংক্রান্ত আইনজীবী ও ডাটা বিশেষজ্ঞও আছেন৷ তাদের নেতৃত্ব দিচ্ছেন ভোটাধিকার বিষয়ক অ্যাটর্নি জন বোনিফাজ ও কমপিউটার বিজ্ঞানী জে. অ্যালেক্স হ্যালডারম্যান৷ তারা হিলারি ক্লিন্টনের ক্যামপেইন টিমকে সংশ্লিষ্ট তিনটি রাজ্যে মোট ভোটের পুনর্গণনা দাবি করার পরামর্শ দিয়েছেন৷ নিউ ইয়র্ক ম্যাগাজিন প্রথমে বিশেষজ্ঞদের এই আহ্বানের খবর দেয়, যার মূল বক্তব্য ছিল, যেসব কাউন্টিতে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন ব্যবহার করা হয়েছে, সেখানে ক্লিন্টন প্রত্যাশার চেয়ে কম ভোট পেয়েছেন৷ কিন্তু কেন? প্রেসিডেন্ট-ইলেক্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প উইস্কনসিন আর পেনসিলভেনিয়ায় জিতেছেন সামান্য কিছু ভোটে, মিশিগানে স্বল্প ব্যবধানে৷ জে. অ্যালেক্স হ্যালডারম্যান মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর কমপিউটার সিকিউরিটি অ্যান্ড সোসাইটি কেন্দ্রটির পরিচালক৷ বুধবার ‘মিডিয়াম-'এ পোস্ট করা একটি লেখায় তিনি বিশেষ করে উল্লেখ করেছেন যে, বিশেষজ্ঞ গোষ্ঠীর কাছে সাইবার অ্যাটাক বা ভোটে অনিয়মের কোনো প্রমাণ নেই৷ কিন্তু তা যদি সত্যিই ঘটে থাকে, তাহলে তার লক্ষ্য হতো সম্ভবত এই ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনগুলি, কেননা ইন্টারনেট থাক আর না-ই থাক, মেশিনগুলিকে ম্যালওয়্যার দিয়ে সংক্রমিত করা সম্ভব, যার ফলে তারা ভোটের টোটাল বদলে দেবে৷ অপরদিকে অনেক ভোটিং মেশিন কাগজেও ভোট লিপিবদ্ধ করে, যা পরীক্ষা করে দেখা যেতে পারে, ইলেকট্রনিক টোটালগুলো ঠিক কিনা৷ বিশেষ করে পেনসিলভেনিয়াতে হ্যাকিং করা সবচেয়ে সহজ হবে, কেননা সেখানকার ৯৬ শতাংশ মেশিনে কোনো পেপার অডিট ট্রেইল বা কাগজের রেকর্ড নেই৷ সেক্ষেত্রে উইস্কনসিনের অধিকাংশ কাউন্টির ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনগুলিতে পেপার ট্রেইল আছে৷ আর মিশিগানে তো কাগজের ভোটপত্র ব্যবহার করা হয়৷ প্রাক-নির্বাচনি সমীক্ষায় ক্লিন্টন তিনটি রাজ্যেই এগিয়ে ছিলেন৷ অপরদিকে তথাকথিত ‘রাস্ট বেল্ট' বা বন্ধ হয়ে যাওয়া কলকারখানা অঞ্চলে ট্রাম্পের অর্থনৈতিক আশাবাদিতা যে সাড়া জাগাবে, সেটা তার ক্যাম্পেইনের লোকেরা ভালোভাবেই জানতেন৷ ট্রাম্প নিজে একাধিকবার পেনসিলভেনিয়ায় ক্যাম্পেইন করেছেন এবং শেষের দিকে উইস্কনসিন ও মিশিগানের উপর জোর দিয়েছেন৷ ওদিকে ভোট পুনর্গণনার আবেদন করার শেষ তারিখ এগিয়ে আসছে তিনটি রাজ্যেই - বলতে কি, আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই, যেমন উইস্কনসিনে রিকাউন্টের পিটিশন জমা দেবার শেষ দিন হলো এই শুক্রবার, ২৫ নভেম্বর, ২০১৬৷ সূত্র : ডয়েচে ভেলে

Comments

Comments!

 যুক্তরাষ্ট্রে ভোট কারচুপির নিশ্চিত প্রমাণ পাওয়া গেছে?AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

যুক্তরাষ্ট্রে ভোট কারচুপির নিশ্চিত প্রমাণ পাওয়া গেছে?

Friday, November 25, 2016 9:49 am
173315_154

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে কি কারচুপি হয়েছে? উইস্কনসিন, মিশিগান ও পেনসিলভেনিয়া- এই তিন রাজ্যে সাইবার হামলার ফলে ভোটগণনায় গোলমাল হয়ে থাকতে পারে বলে বিশেষজ্ঞরাই আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন৷
এই বিশেষজ্ঞদের মাঝে নির্বাচন-সংক্রান্ত আইনজীবী ও ডাটা বিশেষজ্ঞও আছেন৷ তাদের নেতৃত্ব দিচ্ছেন ভোটাধিকার বিষয়ক অ্যাটর্নি জন বোনিফাজ ও কমপিউটার বিজ্ঞানী জে. অ্যালেক্স হ্যালডারম্যান৷ তারা হিলারি ক্লিন্টনের ক্যামপেইন টিমকে সংশ্লিষ্ট তিনটি রাজ্যে মোট ভোটের পুনর্গণনা দাবি করার পরামর্শ দিয়েছেন৷
নিউ ইয়র্ক ম্যাগাজিন প্রথমে বিশেষজ্ঞদের এই আহ্বানের খবর দেয়, যার মূল বক্তব্য ছিল, যেসব কাউন্টিতে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন ব্যবহার করা হয়েছে, সেখানে ক্লিন্টন প্রত্যাশার চেয়ে কম ভোট পেয়েছেন৷ কিন্তু কেন? প্রেসিডেন্ট-ইলেক্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প উইস্কনসিন আর পেনসিলভেনিয়ায় জিতেছেন সামান্য কিছু ভোটে, মিশিগানে স্বল্প ব্যবধানে৷

জে. অ্যালেক্স হ্যালডারম্যান মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর কমপিউটার সিকিউরিটি অ্যান্ড সোসাইটি কেন্দ্রটির পরিচালক৷ বুধবার ‘মিডিয়াম-‘এ পোস্ট করা একটি লেখায় তিনি বিশেষ করে উল্লেখ করেছেন যে, বিশেষজ্ঞ গোষ্ঠীর কাছে সাইবার অ্যাটাক বা ভোটে অনিয়মের কোনো প্রমাণ নেই৷ কিন্তু তা যদি সত্যিই ঘটে থাকে, তাহলে তার লক্ষ্য হতো সম্ভবত এই ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনগুলি, কেননা ইন্টারনেট থাক আর না-ই থাক, মেশিনগুলিকে ম্যালওয়্যার দিয়ে সংক্রমিত করা সম্ভব, যার ফলে তারা ভোটের টোটাল বদলে দেবে৷ অপরদিকে অনেক ভোটিং মেশিন কাগজেও ভোট লিপিবদ্ধ করে, যা পরীক্ষা করে দেখা যেতে পারে, ইলেকট্রনিক টোটালগুলো ঠিক কিনা৷

বিশেষ করে পেনসিলভেনিয়াতে হ্যাকিং করা সবচেয়ে সহজ হবে, কেননা সেখানকার ৯৬ শতাংশ মেশিনে কোনো পেপার অডিট ট্রেইল বা কাগজের রেকর্ড নেই৷ সেক্ষেত্রে উইস্কনসিনের অধিকাংশ কাউন্টির ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনগুলিতে পেপার ট্রেইল আছে৷ আর মিশিগানে তো কাগজের ভোটপত্র ব্যবহার করা হয়৷
প্রাক-নির্বাচনি সমীক্ষায় ক্লিন্টন তিনটি রাজ্যেই এগিয়ে ছিলেন৷ অপরদিকে তথাকথিত ‘রাস্ট বেল্ট’ বা বন্ধ হয়ে যাওয়া কলকারখানা অঞ্চলে ট্রাম্পের অর্থনৈতিক আশাবাদিতা যে সাড়া জাগাবে, সেটা তার ক্যাম্পেইনের লোকেরা ভালোভাবেই জানতেন৷ ট্রাম্প নিজে একাধিকবার পেনসিলভেনিয়ায় ক্যাম্পেইন করেছেন এবং শেষের দিকে উইস্কনসিন ও মিশিগানের উপর জোর দিয়েছেন৷
ওদিকে ভোট পুনর্গণনার আবেদন করার শেষ তারিখ এগিয়ে আসছে তিনটি রাজ্যেই – বলতে কি, আগামী কয়েক দিনের মধ্যেই, যেমন উইস্কনসিনে রিকাউন্টের পিটিশন জমা দেবার শেষ দিন হলো এই শুক্রবার, ২৫ নভেম্বর, ২০১৬৷
সূত্র : ডয়েচে ভেলে

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X