রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ২:০৪
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Tuesday, October 25, 2016 8:56 pm
A- A A+ Print

যেভাবে গৌরীর প্রেমে পড়েন শাহরুখ খান

157634_1

   
মুম্বাই: দিনটি ছিল ১৯৯১ সালের ২৫ অক্টোবর। আজ থেকে ২৫ বছর আগের কথা। দিল্লির সম্ভ্রান্ত এক ব্রাহ্মণ পরিবারের মেয়ে গৌরী শিবারকে ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন ‘বলিউড বাদশাহ’ শাহরুখ খান। হিন্দু রীতিতেই গৌরীর গলায় মালা পরিয়েছিলেন কিং খান। সেই থেকে দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে স্কুল জীবনের প্রেমিকা গৌরীর সাথে সংসার করছেন বলিউড কিং শাহরুখ। তবে মাঝখানে অনেক ঝড় তাদের সুখের সংসারে হানা দিয়েছিল। বিশেষ করে শাহরুখ খান হলেন একজন মুসলমান এবং গৌরী হলেন হিন্দু। ধর্মীয় এই দেওয়ালটিই তাদের জীবনে সবচেয়ে বড় বাঁধা ছিল। কিন্তু তাদের অকৃত্রিম ভালোবাসার কাছে কোনো ঝড়ই টেকে নি। সময়টা ছিল ১৯৮৪ সাল। শাহরুখ ও গৌরী একই স্কুলে পড়াশোনা করতেন। শাহরুখের বয়স তখন প্রেম কি জিনিস তা বুঝতে পারলেও গৌরীর বয়স এসময় একেবারেই অপরিপক্ক ছিল। সে সময় শাহরুখের বয়স ছিল ১৯ বছর এবং গৌরীর বয়স ১৪ বছর। তাদের পরিচয়টা কিন্তু স্কুল থেকে হয় নি। একটি অনুষ্ঠানে তাদের দুজনের প্রথম দেখা হয়। প্রথম দেখাতেই গৌরীকে মনে ধরে যায় শাহরুখের।
সেই অনুষ্ঠানেই গৌরীকে প্রেম প্রস্তাব দেয়ার জন্য এক বন্ধুর সহায়তা নেন। বন্ধুর মাধ্যমে সে গৌরীকে জানায় যে শাহরুখ তার সাথে নাচতে চায়। কিন্তু গৌরী শাহরুখের সে প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন। গৌরী বলেছিল সে তার প্রেমিকের জন্য অপেক্ষা করছে। কিন্তু পরে জানা যায় গৌরী তার ভাইয়ের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। পরবর্তীতে শাহরুখ নিজে গিয়েই গৌরীকে জানায় সেও তার ভাই হতে চায়। এভাবেই শুরু হয় শাহরুখ-গৌরীর প্রেম কাহিনী। শাহরুখের সাথে গৌরীর প্রেমের সম্পর্ক হয়ে গেলেও গৌরী ভয়ে তা তার পরিবারকে জানাতে পারেন নি। কারণ গৌরীর বাবা ছিলেন আগাগোড়া একজন ব্রাহ্মণ। এজন্য তাদের এই প্রেম-ভালোবাসা লুকিয়েই চলছিল। তবে ভয় সবসময় তাদের সাথে সাথেই থাকতো। সবচেয় ভয় ছিল গৌরীর ভাই। এভাবে কিছুদিন চলার পর একদিন শাহরুখ গৌরীদের বাড়িতে অনুষ্ঠিত এক পার্টিতে চলে যান। শাহরুখ সেখানে নিজেকে হিন্দু বলে পরিচয় দেন। এভাবে দীর্ঘ ৫ বছর লুকিয়ে লুকিয়ে প্রেম চলে তাদের দুজনের মধ্যে। ভালোবাসার সম্পর্কে টানাপোড়েন: শাহরুক গৌরীকে নিয়ে অনেক বেশি আধিপত্য বিস্তার করতো। চুল খোলা অবস্থায় গৌরীকে দেখলেও তার উপর চটে যেতেন। আরো অনেক ছোটখাটো বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। গৌরী শাহরুখের আচরণে অতিষ্ঠ হয়ে তাকে ছেড়ে চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন এবং শাহরুখকে না জানিয়েই বন্ধুদের সাথে মুম্বাই চলে যায়। এরপর শাহরুখ গৌরীর মাকে তাদের ভালোবাসার কথা জানান। শাহরুখের কথা শুনে গৌরীর মা শাহরুখকে ১০ হাজার রুপি দিয়ে বলেন ‘যাও তোমার প্রেমিকাকে খুঁজে নিয়ে আসো’। এরপর শাহরুখ চলে যায় মুম্বাই। কিন্তু এত বড় মুম্বাই শহরে কোথায় খুঁজবে গৌরীকে। শাহরুখ আগে থেকেই জানতেন সমুদ্র গৌরীর খুব পছন্দ। এজন্য বিভিন্ন সমুদ্র সৈকতে খুঁজতে থাকেন গৌরীকে। একদিন আকসা সমুদ্রসৈকতে ঠিকই তিনি গৌরীর সন্ধান পেয়ে যান। সামনাসামনি হতেই তারা দুজনই কাঁদতে শুরু করেন। সেই মুহূর্তে গৌরী উপলব্ধি করেন, শাহরুখ তাকে কতটা ভালোবাসেন! মূলত তখনই আজীবনের সঙ্গী হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন এই প্রেমিক যুগল। এরপর গৌরী সিদ্ধান্ত নেন সে তার বাবা-মাকে তাদের সম্পর্কের কথা বলবেন। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী গৌরী তার বাবা-মাকে তাদের সম্পর্কের কথা জানান। বাবা-মা আপত্তি না করলেও তার পরিবারের অন্য সদস্যরা এ নিয়ে আপত্তি তোলেন। কিন্তু শাহরুখ – গৌরীর ভালোবাসার কাছে সকল বাঁধা হার মেনে যায়। বিয়ে: ১৯৯১ সালের ২৫ অক্টোবর হিন্দু রীতি অনুযায়ী শাহরুখের হাতে মেয়েকে তুলে দেন গৌরীর বাবা-মা। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষ হওয়ার পর গৌরীকে উদ্দেশ করে শাহরুখ বলে ওঠেন, ‘চলো, নামাজের সময় হয়েছে।’ শাহরুখের মুখে এই কথা শুনে বিস্ময়ে হতবাক হয়ে যান বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত গৌরীর পরিবারের সদস্য ও বন্ধু-বান্ধবরা। তখন হাসতে হাসতে শাহরুখ বলেন, ‘আমি স্রেফ মজা করার জন্যই এটা বলেছি।’ তবে দুজনের ধর্ম ভিন্ন ভিন্ন হলেও কারো ধর্মকেই কেউ অবহেলা করেন না। দুজনেই যেমন ঘটা করে পূজা পালন করেন তেমনি ঘটা করে ঈদও পালন করেন। সংসার: তাদের দুই সন্তান, ছেলে আরিয়ান খান (জন্ম ১৯৯৭) ও মেয়ে সুহানা খান (জন্ম ২০০০)। ২০১২ সালে শাহরুখের তৃতীয় সন্তান আব্রাম জন্মগ্রহন করে। মাঝে বলিউডের অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে ঘিরে শাহরুখের ঘনিষ্ঠতার খবর চাউর হওয়ায় শাহরুখ-গৌরীর সংসারে অশান্তির ঝড় উঠলেও, পারস্পরিক বোঝাপড়ার ভিত্তিতে সমস্যা মিটিয়ে পারিবারিক বন্ধন আরো দৃঢ় করেছেন শাহরুখ-গৌরী। দীর্ঘদিন এক ছাদের নিচে বসবাস করে ভালোবাসা, পারস্পরিক সমঝোতা এবং বিশ্বস্ততার অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন সফল এ দম্পতি। বলিউডের সেরা দম্পতি: বলিউডের সেরা দম্পতি নির্বাচিত হয়েছেন বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান ও গৌরী। এ দম্পতি ৪৫.৩ শতাংশ ভোট পেয়ে শীর্ষস্থান দখল করে নিয়েছেন। ২০১৩ সালে ভারতের ম্যাট্রিমোনিয়াল ওয়েবসাইটের করা এক জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে। ম্যাট্রিমোনিয়াল ওয়েবসাইটটি বলিউড সেলিব্রেটি দম্পতিদের মধ্যকার সম্পর্কের ধরনের ওপর এ জরিপ চালিয়েছে।

Comments

Comments!

 যেভাবে গৌরীর প্রেমে পড়েন শাহরুখ খানAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

যেভাবে গৌরীর প্রেমে পড়েন শাহরুখ খান

Tuesday, October 25, 2016 8:56 pm
157634_1

 

 

মুম্বাই: দিনটি ছিল ১৯৯১ সালের ২৫ অক্টোবর। আজ থেকে ২৫ বছর আগের কথা। দিল্লির সম্ভ্রান্ত এক ব্রাহ্মণ পরিবারের মেয়ে গৌরী শিবারকে ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন ‘বলিউড বাদশাহ’ শাহরুখ খান। হিন্দু রীতিতেই গৌরীর গলায় মালা পরিয়েছিলেন কিং খান।

সেই থেকে দীর্ঘ ২৫ বছর ধরে স্কুল জীবনের প্রেমিকা গৌরীর সাথে সংসার করছেন বলিউড কিং শাহরুখ। তবে মাঝখানে অনেক ঝড় তাদের সুখের সংসারে হানা দিয়েছিল। বিশেষ করে শাহরুখ খান হলেন একজন মুসলমান এবং গৌরী হলেন হিন্দু। ধর্মীয় এই দেওয়ালটিই তাদের জীবনে সবচেয়ে বড় বাঁধা ছিল। কিন্তু তাদের অকৃত্রিম ভালোবাসার কাছে কোনো ঝড়ই টেকে নি।

সময়টা ছিল ১৯৮৪ সাল। শাহরুখ ও গৌরী একই স্কুলে পড়াশোনা করতেন। শাহরুখের বয়স তখন প্রেম কি জিনিস তা বুঝতে পারলেও গৌরীর বয়স এসময় একেবারেই অপরিপক্ক ছিল। সে সময় শাহরুখের বয়স ছিল ১৯ বছর এবং গৌরীর বয়স ১৪ বছর। তাদের পরিচয়টা কিন্তু স্কুল থেকে হয় নি। একটি অনুষ্ঠানে তাদের দুজনের প্রথম দেখা হয়। প্রথম দেখাতেই গৌরীকে মনে ধরে যায় শাহরুখের।

সেই অনুষ্ঠানেই গৌরীকে প্রেম প্রস্তাব দেয়ার জন্য এক বন্ধুর সহায়তা নেন। বন্ধুর মাধ্যমে সে গৌরীকে জানায় যে শাহরুখ তার সাথে নাচতে চায়। কিন্তু গৌরী শাহরুখের সে প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন। গৌরী বলেছিল সে তার প্রেমিকের জন্য অপেক্ষা করছে। কিন্তু পরে জানা যায় গৌরী তার ভাইয়ের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। পরবর্তীতে শাহরুখ নিজে গিয়েই গৌরীকে জানায় সেও তার ভাই হতে চায়। এভাবেই শুরু হয় শাহরুখ-গৌরীর প্রেম কাহিনী।

শাহরুখের সাথে গৌরীর প্রেমের সম্পর্ক হয়ে গেলেও গৌরী ভয়ে তা তার পরিবারকে জানাতে পারেন নি। কারণ গৌরীর বাবা ছিলেন আগাগোড়া একজন ব্রাহ্মণ। এজন্য তাদের এই প্রেম-ভালোবাসা লুকিয়েই চলছিল। তবে ভয় সবসময় তাদের সাথে সাথেই থাকতো। সবচেয় ভয় ছিল গৌরীর ভাই।

এভাবে কিছুদিন চলার পর একদিন শাহরুখ গৌরীদের বাড়িতে অনুষ্ঠিত এক পার্টিতে চলে যান। শাহরুখ সেখানে নিজেকে হিন্দু বলে পরিচয় দেন। এভাবে দীর্ঘ ৫ বছর লুকিয়ে লুকিয়ে প্রেম চলে তাদের দুজনের মধ্যে।

ভালোবাসার সম্পর্কে টানাপোড়েন: শাহরুক গৌরীকে নিয়ে অনেক বেশি আধিপত্য বিস্তার করতো। চুল খোলা অবস্থায় গৌরীকে দেখলেও তার উপর চটে যেতেন। আরো অনেক ছোটখাটো বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। গৌরী শাহরুখের আচরণে অতিষ্ঠ হয়ে তাকে ছেড়ে চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন এবং শাহরুখকে না জানিয়েই বন্ধুদের সাথে মুম্বাই চলে যায়। এরপর শাহরুখ গৌরীর মাকে তাদের ভালোবাসার কথা জানান। শাহরুখের কথা শুনে গৌরীর মা শাহরুখকে ১০ হাজার রুপি দিয়ে বলেন ‘যাও তোমার প্রেমিকাকে খুঁজে নিয়ে আসো’।

এরপর শাহরুখ চলে যায় মুম্বাই। কিন্তু এত বড় মুম্বাই শহরে কোথায় খুঁজবে গৌরীকে। শাহরুখ আগে থেকেই জানতেন সমুদ্র গৌরীর খুব পছন্দ। এজন্য বিভিন্ন সমুদ্র সৈকতে খুঁজতে থাকেন গৌরীকে। একদিন আকসা সমুদ্রসৈকতে ঠিকই তিনি গৌরীর সন্ধান পেয়ে যান। সামনাসামনি হতেই তারা দুজনই কাঁদতে শুরু করেন। সেই মুহূর্তে গৌরী উপলব্ধি করেন, শাহরুখ তাকে কতটা ভালোবাসেন! মূলত তখনই আজীবনের সঙ্গী হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন এই প্রেমিক যুগল।

এরপর গৌরী সিদ্ধান্ত নেন সে তার বাবা-মাকে তাদের সম্পর্কের কথা বলবেন। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী গৌরী তার বাবা-মাকে তাদের সম্পর্কের কথা জানান। বাবা-মা আপত্তি না করলেও তার পরিবারের অন্য সদস্যরা এ নিয়ে আপত্তি তোলেন। কিন্তু শাহরুখ – গৌরীর ভালোবাসার কাছে সকল বাঁধা হার মেনে যায়।

বিয়ে: ১৯৯১ সালের ২৫ অক্টোবর হিন্দু রীতি অনুযায়ী শাহরুখের হাতে মেয়েকে তুলে দেন গৌরীর বাবা-মা। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষ হওয়ার পর গৌরীকে উদ্দেশ করে শাহরুখ বলে ওঠেন, ‘চলো, নামাজের সময় হয়েছে।’ শাহরুখের মুখে এই কথা শুনে বিস্ময়ে হতবাক হয়ে যান বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত গৌরীর পরিবারের সদস্য ও বন্ধু-বান্ধবরা। তখন হাসতে হাসতে শাহরুখ বলেন, ‘আমি স্রেফ মজা করার জন্যই এটা বলেছি।’ তবে দুজনের ধর্ম ভিন্ন ভিন্ন হলেও কারো ধর্মকেই কেউ অবহেলা করেন না। দুজনেই যেমন ঘটা করে পূজা পালন করেন তেমনি ঘটা করে ঈদও পালন করেন।

সংসার: তাদের দুই সন্তান, ছেলে আরিয়ান খান (জন্ম ১৯৯৭) ও মেয়ে সুহানা খান (জন্ম ২০০০)। ২০১২ সালে শাহরুখের তৃতীয় সন্তান আব্রাম জন্মগ্রহন করে। মাঝে বলিউডের অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে ঘিরে শাহরুখের ঘনিষ্ঠতার খবর চাউর হওয়ায় শাহরুখ-গৌরীর সংসারে অশান্তির ঝড় উঠলেও, পারস্পরিক বোঝাপড়ার ভিত্তিতে সমস্যা মিটিয়ে পারিবারিক বন্ধন আরো দৃঢ় করেছেন শাহরুখ-গৌরী। দীর্ঘদিন এক ছাদের নিচে বসবাস করে ভালোবাসা, পারস্পরিক সমঝোতা এবং বিশ্বস্ততার অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন সফল এ দম্পতি।

বলিউডের সেরা দম্পতি: বলিউডের সেরা দম্পতি নির্বাচিত হয়েছেন বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান ও গৌরী। এ দম্পতি ৪৫.৩ শতাংশ ভোট পেয়ে শীর্ষস্থান দখল করে নিয়েছেন। ২০১৩ সালে ভারতের ম্যাট্রিমোনিয়াল ওয়েবসাইটের করা এক জরিপে এ তথ্য উঠে এসেছে। ম্যাট্রিমোনিয়াল ওয়েবসাইটটি বলিউড সেলিব্রেটি দম্পতিদের মধ্যকার সম্পর্কের ধরনের ওপর এ জরিপ চালিয়েছে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X