শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ২:৪১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, September 15, 2017 12:22 pm
A- A A+ Print

যে কারণে বাংলাদেশের কোনো বিগ হিটার নেই

8

বিশ্বের ক্রিকেট পরাশক্তির দেশগুলোতে এমন কিছু ব্যাটসম্যান রয়েছে যারা যে কোনো সময় যে কোনো ম্যাচ বের করে নেয়ার ক্ষমতা রাখে। এবি ডিভিলিয়ার্স, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, হার্দিক পান্ডে, থিসারা পেরেরা- এমনি খেলোয়াড় যাদের ওপর দলের অধিনায়ক নিশ্চিন্তে ভরসা রাখতে পারেন। অধিনায়ক জানেন, লক্ষ্য যতই দূরে হোক তারা ক্রিজে থাকলে ম্যাচ বের করে আনতে পারবেনই। কোনো দলের বিপক্ষে যদি অস্টেলিয়ার ৪০ বলে ১০০ রানের দরকার হয়। আর ক্রিজে যদি থাকেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল তাহলে প্রতিপক্ষ দলের কোনো আশা নেই, যে তারা জিতবেন। সব ফরম্যাটের ক্রিকেটে গত কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশের ধারাবাহিক উন্নতি চোখে পড়ার মতো। যে কোনো ক্রিকেট পরাশক্তিকেই হারানোর ক্ষমতা রাখেন মুশফিকরা। কিন্তু প্রশ্ন হলো, বাংলাদেশ কি এখনও এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে? যে ব্যাটিং বিপর্যয় কাটিয়ে দলের যদি প্রয়োজন হয় ৩০ বলে ৭০ রান, টাইগারদের কি এমন কোনো ব্যাটসম্যান রয়েছে যে এই অবস্থায় ম্যাচ জেতাতে পারে? সহজ উত্তর হয়তো আসবে না। কেন বাংলাদেশে ম্যাক্সওয়েলের মতো হার্ডহিটার ব্যাটসম্যান তৈরি হচ্ছে না। যারা দলকে প্রয়োজনমতো সাপোর্ট দিয়ে যাবে। বাংলাদেশে অবশ্য তামিম, সাব্বির, সৌম্য, সাকিবের মতো কিছু ক্রিকেটার রয়েছেন, যারা বিগ হিট খেলতেন। কিন্তু তারাও তাদের জৌলুস রাখতে পারেননি। কেন বাংলাদেশ অন্যান্য ক্রিকেট শক্তির মতো বিগ হিটার তৈরি করতে পারছে না। এর জবাব খুঁজতে গেলে বাংলাদেশের ঘরোয়া লীগের খুঁটিনাটি খুঁজে দেখতে হবে। দেশের ঘরোয়া লিগে খেলেন কয়েকজন বিগ হিটার, তারা হচ্ছেন- জিয়াউর রহমান, মেহেদী মারুফ, হাসানুজ্জামান, সালাউদ্দিন পাপ্পু, নাজমুল হোসেন মিলন। সালাউদ্দিন পাপ্পু জানালেন, আসলে বাংলাদেশে বিগ হিটার তৈরি হওয়ার পথে সমস্যা কোথায়। তিনি জানান, বাংলাদেশে বিগ হিটারদের কখনোই উৎসাহিত করা হয় না। ঘরোয়া লীগে এক বলে এক ছক্কা হাঁকানোর পরের বলে আবার বিগ হিটের চেষ্টা করলেই কোচ শেখানো শুরু করেন কীভাবে খেলতে হবে? কিংবা টানা মারতে গিয়ে ক্যাচ আউট হলেই পরের ম্যাচ খেলা অনিশ্চিত হয়ে যায়। খেলোয়াড়দের শেখার জায়গা হচ্ছে ঘরোয়া লীগ, এখানেই হিটারদের আতঙ্কে থাকতে হয়। খেলোয়াড়ি জীবনের পুরোটা সময়ই আমাকে এমন কথা শুনতে হয়েছে, বলেন ৩৮ বছর বয়সী পাপ্পু। এমনকি উল্লিখিত খেলোয়াড়রা লোকাল একমাত্র টি২০ লীগ বিপিএলেও খেলার সুযোগ পান না। যদিও মেহেদী মারুফ ঢাকার ডাইনামাইটসে সুযোগ পেয়েই প্রমাণ করেছিলেন যে তিনিও পারেন। তারা জানান, মনমানসিকতা বদলাতে হবে। স্বাধীনভাবে খেলার সুযোগ দিলে বাংলাদেশ থেকেও শিগগিরই বিশ্বমানের বিগ হিটার বের হবে বলে আশ্বস্ত করলেন ঘরোয়া লীগের এ বিগ হিটাররা। সূত্র: ক্রিকইনফো

Comments

Comments!

 যে কারণে বাংলাদেশের কোনো বিগ হিটার নেইAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

যে কারণে বাংলাদেশের কোনো বিগ হিটার নেই

Friday, September 15, 2017 12:22 pm
8

বিশ্বের ক্রিকেট পরাশক্তির দেশগুলোতে এমন কিছু ব্যাটসম্যান রয়েছে যারা যে কোনো সময় যে কোনো ম্যাচ বের করে নেয়ার ক্ষমতা রাখে।

এবি ডিভিলিয়ার্স, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, হার্দিক পান্ডে, থিসারা পেরেরা- এমনি খেলোয়াড় যাদের ওপর দলের অধিনায়ক নিশ্চিন্তে ভরসা রাখতে পারেন। অধিনায়ক জানেন, লক্ষ্য যতই দূরে হোক তারা ক্রিজে থাকলে ম্যাচ বের করে আনতে পারবেনই।

কোনো দলের বিপক্ষে যদি অস্টেলিয়ার ৪০ বলে ১০০ রানের দরকার হয়। আর ক্রিজে যদি থাকেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল তাহলে প্রতিপক্ষ দলের কোনো আশা নেই, যে তারা জিতবেন।

সব ফরম্যাটের ক্রিকেটে গত কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশের ধারাবাহিক উন্নতি চোখে পড়ার মতো। যে কোনো ক্রিকেট পরাশক্তিকেই হারানোর ক্ষমতা রাখেন মুশফিকরা।

কিন্তু প্রশ্ন হলো, বাংলাদেশ কি এখনও এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে? যে ব্যাটিং বিপর্যয় কাটিয়ে দলের যদি প্রয়োজন হয় ৩০ বলে ৭০ রান, টাইগারদের কি এমন কোনো ব্যাটসম্যান রয়েছে যে এই অবস্থায় ম্যাচ জেতাতে পারে?

সহজ উত্তর হয়তো আসবে না। কেন বাংলাদেশে ম্যাক্সওয়েলের মতো হার্ডহিটার ব্যাটসম্যান তৈরি হচ্ছে না। যারা দলকে প্রয়োজনমতো সাপোর্ট দিয়ে যাবে।

বাংলাদেশে অবশ্য তামিম, সাব্বির, সৌম্য, সাকিবের মতো কিছু ক্রিকেটার রয়েছেন, যারা বিগ হিট খেলতেন। কিন্তু তারাও তাদের জৌলুস রাখতে পারেননি।

কেন বাংলাদেশ অন্যান্য ক্রিকেট শক্তির মতো বিগ হিটার তৈরি করতে পারছে না।

এর জবাব খুঁজতে গেলে বাংলাদেশের ঘরোয়া লীগের খুঁটিনাটি খুঁজে দেখতে হবে।

দেশের ঘরোয়া লিগে খেলেন কয়েকজন বিগ হিটার, তারা হচ্ছেন- জিয়াউর রহমান, মেহেদী মারুফ, হাসানুজ্জামান, সালাউদ্দিন পাপ্পু, নাজমুল হোসেন মিলন।

সালাউদ্দিন পাপ্পু জানালেন, আসলে বাংলাদেশে বিগ হিটার তৈরি হওয়ার পথে সমস্যা কোথায়। তিনি জানান, বাংলাদেশে বিগ হিটারদের কখনোই উৎসাহিত করা হয় না।

ঘরোয়া লীগে এক বলে এক ছক্কা হাঁকানোর পরের বলে আবার বিগ হিটের চেষ্টা করলেই কোচ শেখানো শুরু করেন কীভাবে খেলতে হবে?
কিংবা টানা মারতে গিয়ে ক্যাচ আউট হলেই পরের ম্যাচ খেলা অনিশ্চিত হয়ে যায়।

খেলোয়াড়দের শেখার জায়গা হচ্ছে ঘরোয়া লীগ, এখানেই হিটারদের আতঙ্কে থাকতে হয়।

খেলোয়াড়ি জীবনের পুরোটা সময়ই আমাকে এমন কথা শুনতে হয়েছে, বলেন ৩৮ বছর বয়সী পাপ্পু।

এমনকি উল্লিখিত খেলোয়াড়রা লোকাল একমাত্র টি২০ লীগ বিপিএলেও খেলার সুযোগ পান না। যদিও মেহেদী মারুফ ঢাকার ডাইনামাইটসে সুযোগ পেয়েই প্রমাণ করেছিলেন যে তিনিও পারেন।

তারা জানান, মনমানসিকতা বদলাতে হবে। স্বাধীনভাবে খেলার সুযোগ দিলে বাংলাদেশ থেকেও শিগগিরই বিশ্বমানের বিগ হিটার বের হবে বলে আশ্বস্ত করলেন ঘরোয়া লীগের এ বিগ হিটাররা।

সূত্র: ক্রিকইনফো

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X