শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৮:৫৩
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Tuesday, October 25, 2016 9:55 am
A- A A+ Print

যে তালা ‘চোরকে’ অসুস্থ করবে!

lock1477360996

রাস্তা বা অফিস কিংবা কলেজে বেঁধে রাখা সাইকেল বা মোটর সাইকেল চুরি গেলে মনকে বোঝানো যায়। কিন্তু নিজের বাড়িতে তালা লাগিয়ে রাখার পরেও যদি সাইকেলের চুরি ঠেকানো না যায় তো কার ভালো লাগে? হ্যাঁ, এই সমস্যা শুধু যে আমাদের দেশেই আছে তা নয়। সাইকেল চুরির সমস্যা অনেক ‘ভদ্র’ দেশেও ব্যাপক হারে আছে। তা না হলে তালা শুধু আমাদের অঞ্চলেই উৎপাদন হতো! সে যাই হোক, সাইকেল চুরি নিয়ে ভীষণ ঝামেলায় আছে উন্নত দেশের মানুষরাও। শুধু আমেরিকাতেই প্রতিবছর ৩০ লাখ সাইকেল চুরি হয়, ভাবা যায়! সুতরাং এতো বড় ঘটনার পর নিশ্চয়ই আমেরিকানরা বসে থাকার পাত্র নন। তাই একজন আমেরিকান উদ্যোক্তা সঙ্গে একজন সুইস ইঞ্জিনিয়ার নিয়ে আবিষ্কার করলেন অভিনব এক তালা যা চোরকে অসুস্থ করে ফেলবে। দেখতে আর দশটা সাধারণ তালার মতোই, ইউ আকৃতির। পার্থক্য শুধু কালো রঙের এই তালার ওপর সাদা রঙের কিছু স্ট্রাইপ আছে। দেখতে ডিজাইন মনে হলেও এটা আসলে এক ধরনের কেমিক্যাল অস্ত্র। ফলে এই তালা ভাঙার চেষ্টা করা হলে এর থেকে নির্গত হবে রাসায়নিক গ্যাস। আর এই গ্যাস চোরকে করবে অসুস্থ। এমনকি মাস্ক পরেও রেহাই মিলবে না এই গ্যাসের আক্রমন থেকে কিংবা আক্রান্ত হওয়া থেকে। অনেকে চোর ধরার বা চোরকে ‘শিক্ষা’ দেয়ার জন্যে বিস্ফোরকসহ তালা লাগানোর চিন্তা করেছিলেন। কিন্তু সেটা দুই পক্ষেই হতে পারে ক্ষতিকর। কেননা চুরির জন্যে নিশ্চয়ই কাউকে মেরে ফেলার অনুমতি দেবেনা আইন। আর মেরে না ফেললেও বিস্ফোরক আসলে কোনোভাবেই নিরাপদ নয়। তাই সে চিন্তা থেকে সরতে হয়েছে বিশেষজ্ঞদের। আমেরিকান উদ্যোক্তা ড্যানিয়েল ইদজস্কির এক বন্ধুর বাইক খুব ভালো তালা লাগানো সত্ত্বেও চুরি হয়ে যায়। ফলে বিষয়টি তাকে বেশ ভাবায়। এরপর তিনি এমন এক আইডিয়া বের করলেন যাতে চোরকে মেরে ফেলা নয় অন্তত অসুস্থ করা যায়। এতে সাইকেলও রক্ষা পাবে এবং ধরা যাবে চোরকেও। ফলে সুইস ইঞ্জিনিয়ার যেভস পেরেনডকে নিয়ে উদ্ভাবন করলেন উদ্ভট কিন্তু দারুন কার্যকর এক তালা। যার নাম দেয়া হয়েছে স্কানক লক। ইদজস্কির ভাষায় এটা ক্ষতিকর কিছু নয়। শুধু কিছু সময়ের জন্যে চোরের দৃষ্টিশক্তি স্বল্প করে দেবে একই সঙ্গে তার নিঃশ্বাস নিতে কষ্ট হবে। ইদজস্কির বলেন, তিনি নিজের ওপর এই রাসায়নিক প্রয়োগ করে দেখেছেন। এটা সাময়িক এক ব্যবস্থা। আর এটা তৈরি হয়েছে দৈনন্দিন আমরা যেসব খাবার থেকে ফ্যাটি এসিড গ্রহণ করে থাকি যেমন, মাখন বা পনির এ ধরনের খাবার বা উপাদান থেকে। তবে তিনি এর কার্যকারিতা হারানোর ভয়ে অথবা চোর বিকল্প উপায় বের করে ফেলবে এই ভয়ে এর ফর্মুলা প্রকাশ করছেন না। আবিষ্কারক যুগল এই ফর্মুলার নাম দিয়েছেন, ফর্মুলা ডিথ১। ফর্মুলা প্রকাশ করুন বা না করুন আমরা চাই খুব দ্রুত এই লক আমাদের দেশেও আসুক এবং এর বাণিজ্যিক প্রচলনও দ্রুত শুরু হোক। যাতে আমাদের চোর মহোদয়দের একটা শিক্ষা দেয়া যায়। তাছাড়া ইদানিং ঢাকার রাস্তায় বেশ সাইকেল দেখা যায়। ফলে বোঝাই যাচ্ছে, এই তালা আমাদের এখানে আসলে কত দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে উঠবে।

Comments

Comments!

 যে তালা ‘চোরকে’ অসুস্থ করবে!AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

যে তালা ‘চোরকে’ অসুস্থ করবে!

Tuesday, October 25, 2016 9:55 am
lock1477360996

রাস্তা বা অফিস কিংবা কলেজে বেঁধে রাখা সাইকেল বা মোটর সাইকেল চুরি গেলে মনকে বোঝানো যায়। কিন্তু নিজের বাড়িতে তালা লাগিয়ে রাখার পরেও যদি সাইকেলের চুরি ঠেকানো না যায় তো কার ভালো লাগে?

হ্যাঁ, এই সমস্যা শুধু যে আমাদের দেশেই আছে তা নয়। সাইকেল চুরির সমস্যা অনেক ‘ভদ্র’ দেশেও ব্যাপক হারে আছে। তা না হলে তালা শুধু আমাদের অঞ্চলেই উৎপাদন হতো!

সে যাই হোক, সাইকেল চুরি নিয়ে ভীষণ ঝামেলায় আছে উন্নত দেশের মানুষরাও। শুধু আমেরিকাতেই প্রতিবছর ৩০ লাখ সাইকেল চুরি হয়, ভাবা যায়! সুতরাং এতো বড় ঘটনার পর নিশ্চয়ই আমেরিকানরা বসে থাকার পাত্র নন। তাই একজন আমেরিকান উদ্যোক্তা সঙ্গে একজন সুইস ইঞ্জিনিয়ার নিয়ে আবিষ্কার করলেন অভিনব এক তালা যা চোরকে অসুস্থ করে ফেলবে।

দেখতে আর দশটা সাধারণ তালার মতোই, ইউ আকৃতির। পার্থক্য শুধু কালো রঙের এই তালার ওপর সাদা রঙের কিছু স্ট্রাইপ আছে। দেখতে ডিজাইন মনে হলেও এটা আসলে এক ধরনের কেমিক্যাল অস্ত্র। ফলে এই তালা ভাঙার চেষ্টা করা হলে এর থেকে নির্গত হবে রাসায়নিক গ্যাস। আর এই গ্যাস চোরকে করবে অসুস্থ। এমনকি মাস্ক পরেও রেহাই মিলবে না এই গ্যাসের আক্রমন থেকে কিংবা আক্রান্ত হওয়া থেকে।

অনেকে চোর ধরার বা চোরকে ‘শিক্ষা’ দেয়ার জন্যে বিস্ফোরকসহ তালা লাগানোর চিন্তা করেছিলেন। কিন্তু সেটা দুই পক্ষেই হতে পারে ক্ষতিকর। কেননা চুরির জন্যে নিশ্চয়ই কাউকে মেরে ফেলার অনুমতি দেবেনা আইন। আর মেরে না ফেললেও বিস্ফোরক আসলে কোনোভাবেই নিরাপদ নয়। তাই সে চিন্তা থেকে সরতে হয়েছে বিশেষজ্ঞদের।

আমেরিকান উদ্যোক্তা ড্যানিয়েল ইদজস্কির এক বন্ধুর বাইক খুব ভালো তালা লাগানো সত্ত্বেও চুরি হয়ে যায়। ফলে বিষয়টি তাকে বেশ ভাবায়। এরপর তিনি এমন এক আইডিয়া বের করলেন যাতে চোরকে মেরে ফেলা নয় অন্তত অসুস্থ করা যায়। এতে সাইকেলও রক্ষা পাবে এবং ধরা যাবে চোরকেও। ফলে সুইস ইঞ্জিনিয়ার যেভস পেরেনডকে নিয়ে উদ্ভাবন করলেন উদ্ভট কিন্তু দারুন কার্যকর এক তালা। যার নাম দেয়া হয়েছে স্কানক লক।

ইদজস্কির ভাষায় এটা ক্ষতিকর কিছু নয়। শুধু কিছু সময়ের জন্যে চোরের দৃষ্টিশক্তি স্বল্প করে দেবে একই সঙ্গে তার নিঃশ্বাস নিতে কষ্ট হবে। ইদজস্কির বলেন, তিনি নিজের ওপর এই রাসায়নিক প্রয়োগ করে দেখেছেন। এটা সাময়িক এক ব্যবস্থা। আর এটা তৈরি হয়েছে দৈনন্দিন আমরা যেসব খাবার থেকে ফ্যাটি এসিড গ্রহণ করে থাকি যেমন, মাখন বা পনির এ ধরনের খাবার বা উপাদান থেকে।

তবে তিনি এর কার্যকারিতা হারানোর ভয়ে অথবা চোর বিকল্প উপায় বের করে ফেলবে এই ভয়ে এর ফর্মুলা প্রকাশ করছেন না। আবিষ্কারক যুগল এই ফর্মুলার নাম দিয়েছেন, ফর্মুলা ডিথ১। ফর্মুলা প্রকাশ করুন বা না করুন আমরা চাই খুব দ্রুত এই লক আমাদের দেশেও আসুক এবং এর বাণিজ্যিক প্রচলনও দ্রুত শুরু হোক। যাতে আমাদের চোর মহোদয়দের একটা শিক্ষা দেয়া যায়। তাছাড়া ইদানিং ঢাকার রাস্তায় বেশ সাইকেল দেখা যায়। ফলে বোঝাই যাচ্ছে, এই তালা আমাদের এখানে আসলে কত দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে উঠবে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X