বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ২:২৯
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, January 7, 2017 7:43 pm
A- A A+ Print

যে যৌন নিপীড়ন রেখাকে কাঁদিয়েছিল

46

জীবনের প্রথম চলচ্চিত্র ‘আনজানা সফর’-এ অভিনয় করতে গিয়ে যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছিলেন বলিউড অভিনেত্রী রেখা। ইয়াসির ওসমানের লেখা রেখার জীবনীগ্রন্থে এ তথ্য প্রকাশিত হয়েছে। রেখার বয়স তখন মাত্র ১৫ বছর। ডাক পেলেন ‘আনজানা সফর’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করার। আর এই চলচ্চিত্রের মাধ্যমেই রুপালি পর্দায় তাঁর অভিষেক হয়। সেদিক থেকে এটি রেখার জীবনের স্মরণীয় ঘটনাগুলোর একটি হতে পারত। তবে সেটি আর হয়নি। পারলে রেখা এই ছবিটির কথা ভুলে যেতেন। কারণ, রুপালি পর্দায় অভিষেকের আনন্দকে ছাপিয়ে এই ছবি তাঁকে যৌন নিপীড়নের গভীর কষ্ট দিয়েছিল। রেখার জীবনে যা ঘটেছিল, তা ৪৪ বছর আগের চলচ্চিত্র ‘লাস্ট ট্যাংগো ইন প্যারিস’-এর নায়িকা মারিয়া স্নাইদারের জীবনের ঘটনাকে মনে করিয়ে দেয়। ১৯ বছর বয়সী মারিয়াকে অন্ধকারে রেখে পরিচালক বের্নার্দো বেরতোলুসি ও নায়ক মার্লোন ব্র্যান্ডো জোর করে যৌন সম্পর্ক স্থাপনের দৃশ্য সংযোজন করেন। ওই দৃশ্যে অভিনয় করতে গিয়ে নিজেকে ধর্ষিতা মনে করেছিলেন বলে এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন মারিয়া। তাঁর ভাষায়, ‘সত্যি বলতে, আমার মনে হচ্ছিল, আমি ধর্ষণের শিকার হয়েছি; নায়ক ও পরিচালকের দ্বারা।’ বলিউড অভিনেত্রী রেখা।প্রায় একই ধরনের ঘটনা ঘটেছিল রেখার জীবনে। ওই ঘটনার সম্পর্কে ইয়াসির ওসমান লিখেছেন, বোম্বের (এখনকার মুম্বাই) মাহবুব স্টুডিওতে ‘আনজানা সফর’ চলচ্চিত্রের শুটিং চলছিল। ছবিটির পরিচালক ও চিত্রগ্রাহক ছিলেন রাজা নাওয়াথি। আর রেখার বিপরীতে ছিলেন বিশ্বজিৎ চ্যাটার্জি। নায়ক ও পরিচালক মিলে চিত্রনাট্যের বাইরে গিয়ে এমন দৃশ্য সংযোজন করেছিলেন, যে কারণে রেখা নিজেকে যৌন নিপীড়নের শিকার মনে করে কেঁদেছিলেন। সেদিন রেখা ও বিশ্বজিতের মধ্যে প্রেমের দৃশ্য চিত্রায়ণের কথা ছিল। নায়ক-নায়িকাকে সেসব দৃশ্য বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছিল। পরিচালক ‘অ্যাকশন’ বলার সঙ্গে সঙ্গে শুরু হলো শুটিং। কিন্তু পরিচালক যেভাবে দৃশ্য বুঝিয়ে দিয়েছিলেন, সেভাবে কিছু হচ্ছিল না। বরং নায়ক বিশ্বজিৎ রেখাকে নিজের বাহুতে জোরে আটকে ধরে চুমু দিতে শুরু করেন। চিত্রনাট্যের বাইরে গিয়ে নায়কের এমন আচরণে রেখা হতবাক হয়ে যান। কিন্তু তাঁর কিছুই করার ছিল না। নায়ক তাঁকে ছাড়ছেন না, পরিচালকও ‘কাট’ বলছেন না। এভাবে পাঁচ মিনিট পার হয়। কিন্তু বিশ্বজিৎ আর রেখার ঠোঁট ছাড়েননি। শুটিং ইউনিটের লোকজন এই দৃশ্য দেখে মজা নিচ্ছিল আর সিটি বাজাচ্ছিল। বহুকাল এই ঘটনা রেখাকে প্রচণ্ড কষ্ট দিয়েছে। এ নিয়ে কথা উঠলে বিশ্বজিৎ বলেছিলেন, এটা পরিচালকের মাথা থেকে এসেছিল। তিনি শুধু পরিচালকের হুকুম তামিল করেছেন।

Comments

Comments!

 যে যৌন নিপীড়ন রেখাকে কাঁদিয়েছিলAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

যে যৌন নিপীড়ন রেখাকে কাঁদিয়েছিল

Saturday, January 7, 2017 7:43 pm
46

জীবনের প্রথম চলচ্চিত্র ‘আনজানা সফর’-এ অভিনয় করতে গিয়ে যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছিলেন বলিউড অভিনেত্রী রেখা। ইয়াসির ওসমানের লেখা রেখার জীবনীগ্রন্থে এ তথ্য প্রকাশিত হয়েছে।
রেখার বয়স তখন মাত্র ১৫ বছর। ডাক পেলেন ‘আনজানা সফর’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করার। আর এই চলচ্চিত্রের মাধ্যমেই রুপালি পর্দায় তাঁর অভিষেক হয়। সেদিক থেকে এটি রেখার জীবনের স্মরণীয় ঘটনাগুলোর একটি হতে পারত। তবে সেটি আর হয়নি। পারলে রেখা এই ছবিটির কথা ভুলে যেতেন। কারণ, রুপালি পর্দায় অভিষেকের আনন্দকে ছাপিয়ে এই ছবি তাঁকে যৌন নিপীড়নের গভীর কষ্ট দিয়েছিল।
রেখার জীবনে যা ঘটেছিল, তা ৪৪ বছর আগের চলচ্চিত্র ‘লাস্ট ট্যাংগো ইন প্যারিস’-এর নায়িকা মারিয়া স্নাইদারের জীবনের ঘটনাকে মনে করিয়ে দেয়। ১৯ বছর বয়সী মারিয়াকে অন্ধকারে রেখে পরিচালক বের্নার্দো বেরতোলুসি ও নায়ক মার্লোন ব্র্যান্ডো জোর করে যৌন সম্পর্ক স্থাপনের দৃশ্য সংযোজন করেন। ওই দৃশ্যে অভিনয় করতে গিয়ে নিজেকে ধর্ষিতা মনে করেছিলেন বলে এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন মারিয়া। তাঁর ভাষায়, ‘সত্যি বলতে, আমার মনে হচ্ছিল, আমি ধর্ষণের শিকার হয়েছি; নায়ক ও পরিচালকের দ্বারা।’

বলিউড অভিনেত্রী রেখা।প্রায় একই ধরনের ঘটনা ঘটেছিল রেখার জীবনে। ওই ঘটনার সম্পর্কে ইয়াসির ওসমান লিখেছেন, বোম্বের (এখনকার মুম্বাই) মাহবুব স্টুডিওতে ‘আনজানা সফর’ চলচ্চিত্রের শুটিং চলছিল। ছবিটির পরিচালক ও চিত্রগ্রাহক ছিলেন রাজা নাওয়াথি। আর রেখার বিপরীতে ছিলেন বিশ্বজিৎ চ্যাটার্জি। নায়ক ও পরিচালক মিলে চিত্রনাট্যের বাইরে গিয়ে এমন দৃশ্য সংযোজন করেছিলেন, যে কারণে রেখা নিজেকে যৌন নিপীড়নের শিকার মনে করে কেঁদেছিলেন।
সেদিন রেখা ও বিশ্বজিতের মধ্যে প্রেমের দৃশ্য চিত্রায়ণের কথা ছিল। নায়ক-নায়িকাকে সেসব দৃশ্য বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছিল। পরিচালক ‘অ্যাকশন’ বলার সঙ্গে সঙ্গে শুরু হলো শুটিং। কিন্তু পরিচালক যেভাবে দৃশ্য বুঝিয়ে দিয়েছিলেন, সেভাবে কিছু হচ্ছিল না। বরং নায়ক বিশ্বজিৎ রেখাকে নিজের বাহুতে জোরে আটকে ধরে চুমু দিতে শুরু করেন। চিত্রনাট্যের বাইরে গিয়ে নায়কের এমন আচরণে রেখা হতবাক হয়ে যান। কিন্তু তাঁর কিছুই করার ছিল না। নায়ক তাঁকে ছাড়ছেন না, পরিচালকও ‘কাট’ বলছেন না। এভাবে পাঁচ মিনিট পার হয়। কিন্তু বিশ্বজিৎ আর রেখার ঠোঁট ছাড়েননি। শুটিং ইউনিটের লোকজন এই দৃশ্য দেখে মজা নিচ্ছিল আর সিটি বাজাচ্ছিল। বহুকাল এই ঘটনা রেখাকে প্রচণ্ড কষ্ট দিয়েছে। এ নিয়ে কথা উঠলে বিশ্বজিৎ বলেছিলেন, এটা পরিচালকের মাথা থেকে এসেছিল। তিনি শুধু পরিচালকের হুকুম তামিল করেছেন।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X