মঙ্গলবার, ২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৮ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৯:৪১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, December 31, 2016 9:13 pm
A- A A+ Print

রাজধানীতে কড়া নজরদারি

%e0%a7%a8%e0%a7%ae

থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপনকে কেন্দ্র করে রাজধানীতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কড়া নজরদারিতে রয়েছে ঢাকা শহর। অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে প্রতিটি মোড়ে অবস্থান নিয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। তৎপর আছেন গোয়েন্দারাও। ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) সূত্রে জানা যায়, রাজধানীর প্রবেশ পথ ও কূটনৈতিক এলাকাসহ সব গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। থাকছে টহল পুলিশ। বিদেশি নাগরিকদের জন্য বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এ ছাড়া অভিজাত হোটেল, ক্লাবসহ যেসব জায়গায় থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপন করা হবে সেসব জায়গায় কড়া নজরদারির ব্যবস্থা করা হয়েছে। পুলিশের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বছর জুড়ে জঙ্গি তৎপরতা থাকায় রাজধানীর নিরাপত্তায় জোর তৎপরতা রয়েছে। যদিও রাজধানীতে কোনো নাশকতার আগাম খবর গোয়েন্দাদের কাছে নেই। তবুও নিরাপত্তাবলয়ে থাকবে পুরো রাজধানী। ডিএমপির উপ-কমিশনার মাসুদুর রহমান রাইজিংবিডিকে বলেন, থার্টি ফার্স্ট নাইটকে কেন্দ্র করে রাজধানীতে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। রাতে উন্মুক্ত জায়গায় কোনো অনুষ্ঠান করার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। যেসব জায়গায় অনুষ্ঠান করা হবে সেসব জায়গায় আমাদের পোশাকধারী সদস্যসহ সাদা পোশাকে গোয়েন্দারা থাকছেন। তিনি আরো বলেন, রাজধানীতে নাশকতার কোনো আশঙ্কা নেই। তারপরও আমরা কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছি। কড়া নজরদারিতে থাকবে ঢাকা। এর আগে ডিএমপি কমিশনার আসাদুজ্জামান মিয়া জানিয়েছেন, থার্টি ফার্স্ট নাইটে রাজধানীতে বিশেষ নিরাপত্তা দিতে পোশাক ও সাদাপোশাকে ১০ হাজার পুলিশ মোতায়েন থাকবে। উন্মুক্ত স্থানে কোনো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করা যাবে না। এ রাতে কোথাও আতশবাজি বা পটকা ফোটানো যাবে না। তা ছাড়া রাতে মদের দোকান বন্ধ রাখার আহ্বান জানান তিনি। রাজধানীবাসীর নিরাপত্তায় পুলিশের পাশাপাশি মাঠে থাকছে র‌্যাব, র‌্যাবের ডগ স্কোয়াড, পেট্রোল টিম, মোবাইল টিম ও সাদা পোশাকাধারী গোয়েন্দা। এদিকে র‌্যাব সূত্র জানায়, নিরাপত্তা নিশ্চিতে বিশেষ পরিকল্পনা করেছে র‌্যাব। গুরুত্বপূর্ণ সড়কের বিভিন্ন মোড়ে র‌্যাবের চেক পোস্ট বাসানো হয়েছে। নারীদের তল্লাশি ও নারী অপরাধীদের জন্য র‌্যাবের নারী সদস্যরাও মাঠে থাকবেন। এ বিষয়ে র‌্যাবের মিডিয়া উইংয়ের সিনিয়র সহকারী পরিচালক মিজানুর রহমান ভূঁইয়া জানান, যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে র‌্যাবের বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে। হোটেলগুলোয় সার্বক্ষণিকভাবে র‌্যাব সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন।      

Comments

Comments!

 রাজধানীতে কড়া নজরদারিAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

রাজধানীতে কড়া নজরদারি

Saturday, December 31, 2016 9:13 pm
%e0%a7%a8%e0%a7%ae

থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপনকে কেন্দ্র করে রাজধানীতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কড়া নজরদারিতে রয়েছে ঢাকা শহর। অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে প্রতিটি মোড়ে অবস্থান নিয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। তৎপর আছেন গোয়েন্দারাও।

ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) সূত্রে জানা যায়, রাজধানীর প্রবেশ পথ ও কূটনৈতিক এলাকাসহ সব গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। থাকছে টহল পুলিশ। বিদেশি নাগরিকদের জন্য বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এ ছাড়া অভিজাত হোটেল, ক্লাবসহ যেসব জায়গায় থার্টি ফার্স্ট নাইট উদযাপন করা হবে সেসব জায়গায় কড়া নজরদারির ব্যবস্থা করা হয়েছে।

পুলিশের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বছর জুড়ে জঙ্গি তৎপরতা থাকায় রাজধানীর নিরাপত্তায় জোর তৎপরতা রয়েছে। যদিও রাজধানীতে কোনো নাশকতার আগাম খবর গোয়েন্দাদের কাছে নেই। তবুও নিরাপত্তাবলয়ে থাকবে পুরো রাজধানী।

ডিএমপির উপ-কমিশনার মাসুদুর রহমান রাইজিংবিডিকে বলেন, থার্টি ফার্স্ট নাইটকে কেন্দ্র করে রাজধানীতে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। রাতে উন্মুক্ত জায়গায় কোনো অনুষ্ঠান করার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। যেসব জায়গায় অনুষ্ঠান করা হবে সেসব জায়গায় আমাদের পোশাকধারী সদস্যসহ সাদা পোশাকে গোয়েন্দারা থাকছেন।

তিনি আরো বলেন, রাজধানীতে নাশকতার কোনো আশঙ্কা নেই। তারপরও আমরা কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছি। কড়া নজরদারিতে থাকবে ঢাকা।

এর আগে ডিএমপি কমিশনার আসাদুজ্জামান মিয়া জানিয়েছেন, থার্টি ফার্স্ট নাইটে রাজধানীতে বিশেষ নিরাপত্তা দিতে পোশাক ও সাদাপোশাকে ১০ হাজার পুলিশ মোতায়েন থাকবে। উন্মুক্ত স্থানে কোনো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করা যাবে না। এ রাতে কোথাও আতশবাজি বা পটকা ফোটানো যাবে না। তা ছাড়া রাতে মদের দোকান বন্ধ রাখার আহ্বান জানান তিনি।

রাজধানীবাসীর নিরাপত্তায় পুলিশের পাশাপাশি মাঠে থাকছে র‌্যাব, র‌্যাবের ডগ স্কোয়াড, পেট্রোল টিম, মোবাইল টিম ও সাদা পোশাকাধারী গোয়েন্দা।

এদিকে র‌্যাব সূত্র জানায়, নিরাপত্তা নিশ্চিতে বিশেষ পরিকল্পনা করেছে র‌্যাব। গুরুত্বপূর্ণ সড়কের বিভিন্ন মোড়ে র‌্যাবের চেক পোস্ট বাসানো হয়েছে। নারীদের তল্লাশি ও নারী অপরাধীদের জন্য র‌্যাবের নারী সদস্যরাও মাঠে থাকবেন।

এ বিষয়ে র‌্যাবের মিডিয়া উইংয়ের সিনিয়র সহকারী পরিচালক মিজানুর রহমান ভূঁইয়া জানান, যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে র‌্যাবের বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে। হোটেলগুলোয় সার্বক্ষণিকভাবে র‌্যাব সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন।

 

 

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X