বুধবার, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৯ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১:২৯
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, May 26, 2017 4:30 pm
A- A A+ Print

রাজধানীতে হেফাজতের শুকরিয়া মিছিল : রাস্তার মোড়ে কোনো মূর্তি স্থাপন মেনে নেয়া হবে না

17

সুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে গ্রিক দেবীর ভাস্কর্য অপসারণের ঘটনাকে স্বাগত জানিয়ে রাস্তার পাশে থাকা কোনো মূর্তি বরদাশত করা হবে না জানিয়েছে হেফাজতে ইসলামী বাংলাদেশ। শুক্রবার জুমার নামাজের পর সংগঠনটির উদ্যোগে বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেইটে ভাস্কর্য অপসারণের ঘটনায় শুকরিয়া মিছিলের আয়োজন করা হয়। মিছিল পরবর্তী সমাবেশ থেকে সারা দেশ থেকে মূর্তি অপসারণের দাবি জানান সংগঠনটির মহানগর আমির নূর হোসেন কাসেমি। তিনি বলেন, 'এ দেশের সংস্কৃতি মূর্তির সংস্কৃতি না। এ দেশের সংস্কৃতি তৌহিদী জনতার। এখানে মূর্তির সংস্কৃতি চলবে না। তাই সারা দেশে রাস্তার পাশে যত মূর্তি রয়েছে সব সরিয়ে ফেলতে হবে।' ভাস্কর্য অপসারণের ঘটনায় সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি আরও বলেন, 'সরকারের সঙ্গে হেফাজতের সম্পর্ক যখন ভালোর দিকে যাচ্ছিল তখন গ্রিক দেবী প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে সমস্যার সৃষ্টির ষড়যন্ত্র হচ্ছিল। তবে মূর্তি অপসারণের ঘটনায় আমরা খুশি। এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাই।' ভাস্কর্য স্থাপনের পক্ষে আন্দোলনকারীদের প্রতি হুশিয়ারি দিয়ে তিনি আরও বলেন, 'আপনারা মূর্তি স্থাপন নিয়ে বাড়াবাড়ি করবেন না। শান্তিপূর্ণ অবস্থানে থাকুন। নয়তো দাঁত ভাঙা জবাব দেয়া হবে।' মিছিল ও সমাবেশে ইসলামী আন্দোলন ও খেলাফত আন্দোলনসহ বিভিন্ন ইসলামী সংগঠন অংশ নেয়। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হেফাজতের মহানগর সহ সভাপতি আব্দুর রউফ ইউসুফি, হেফাজত নেতা মাওলানা মজিবুর রহমান হামিদিসহ বিভিন্ন ইসলামী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। এর আগে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে সুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে গ্রিক দেবীর ভাস্কর্যটি অপসারণ করা হয়। রাত ১২টার পর ভাস্কর মৃণাল হকের তত্ত্বাবধানে মোট ২০ জন শ্রমিক ভাস্কর্যটির ভিত ভাঙার কাজ শুরু করেন। প্রায় চার ঘণ্টার চেষ্টায় ভোরে সেটি সরিয়ে নেয়া হয়। এ সময়ও সর্বোচ্চ আদালতের ফটকের বাইরে বিক্ষোভ হয়।

Comments

Comments!

 রাজধানীতে হেফাজতের শুকরিয়া মিছিল : রাস্তার মোড়ে কোনো মূর্তি স্থাপন মেনে নেয়া হবে নাAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

রাজধানীতে হেফাজতের শুকরিয়া মিছিল : রাস্তার মোড়ে কোনো মূর্তি স্থাপন মেনে নেয়া হবে না

Friday, May 26, 2017 4:30 pm
17

সুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে গ্রিক দেবীর ভাস্কর্য অপসারণের ঘটনাকে স্বাগত জানিয়ে রাস্তার পাশে থাকা কোনো মূর্তি বরদাশত করা হবে না জানিয়েছে হেফাজতে ইসলামী বাংলাদেশ।

শুক্রবার জুমার নামাজের পর সংগঠনটির উদ্যোগে বায়তুল মোকাররমের উত্তর গেইটে ভাস্কর্য অপসারণের ঘটনায় শুকরিয়া মিছিলের আয়োজন করা হয়।

মিছিল পরবর্তী সমাবেশ থেকে সারা দেশ থেকে মূর্তি অপসারণের দাবি জানান সংগঠনটির মহানগর আমির নূর হোসেন কাসেমি।

তিনি বলেন, ‘এ দেশের সংস্কৃতি মূর্তির সংস্কৃতি না। এ দেশের সংস্কৃতি তৌহিদী জনতার। এখানে মূর্তির সংস্কৃতি চলবে না। তাই সারা দেশে রাস্তার পাশে যত মূর্তি রয়েছে সব সরিয়ে ফেলতে হবে।’

ভাস্কর্য অপসারণের ঘটনায় সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘সরকারের সঙ্গে হেফাজতের সম্পর্ক যখন ভালোর দিকে যাচ্ছিল তখন গ্রিক দেবী প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে সমস্যার সৃষ্টির ষড়যন্ত্র হচ্ছিল। তবে মূর্তি অপসারণের ঘটনায় আমরা খুশি। এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাই।’

ভাস্কর্য স্থাপনের পক্ষে আন্দোলনকারীদের প্রতি হুশিয়ারি দিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘আপনারা মূর্তি স্থাপন নিয়ে বাড়াবাড়ি করবেন না। শান্তিপূর্ণ অবস্থানে থাকুন। নয়তো দাঁত ভাঙা জবাব দেয়া হবে।’

মিছিল ও সমাবেশে ইসলামী আন্দোলন ও খেলাফত আন্দোলনসহ বিভিন্ন ইসলামী সংগঠন অংশ নেয়।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হেফাজতের মহানগর সহ সভাপতি আব্দুর রউফ ইউসুফি, হেফাজত নেতা মাওলানা মজিবুর রহমান হামিদিসহ বিভিন্ন ইসলামী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

এর আগে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে সুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে গ্রিক দেবীর ভাস্কর্যটি অপসারণ করা হয়। রাত ১২টার পর ভাস্কর মৃণাল হকের তত্ত্বাবধানে মোট ২০ জন শ্রমিক ভাস্কর্যটির ভিত ভাঙার কাজ শুরু করেন।

প্রায় চার ঘণ্টার চেষ্টায় ভোরে সেটি সরিয়ে নেয়া হয়। এ সময়ও সর্বোচ্চ আদালতের ফটকের বাইরে বিক্ষোভ হয়।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X