বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১০:৫৭
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Tuesday, June 6, 2017 3:56 am
A- A A+ Print

রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সম্মানে খালেদা জিয়া ইফতার

৩

চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে কথা বলবে বিএনপি। সোমবার ইফতারের আগে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে এক সংক্ষিপ্ত খোলামেলা আলোচনায় খালেদা জিয়া এ কথা বলেন। দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের শীর্ষ নেতাদের সম্মানে বসুন্ধরার কনভেনশন সিটি- নবরাত্রি হলে  খালেদা জিয়া এই ইফতারের আয়োজন করেন। ইফতারে ২০দলীয় জোটের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ ছাড়াও বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক ড. একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডির সভাপতি আসম আবদুর রব, তার স্ত্রী তানিয়া রব, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান তালুকদার প্রমুখ অংশ  নেন। এদের মধ্যে মূল মঞ্চে বসেন বি. চৌধুরী। তবে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দল, জাতীয় পার্টি, কমিউনিস্ট পার্টির নেতৃবৃন্দদের আমন্ত্রণ জানালেও তাদের পক্ষ থেকে কোনো নেতৃবৃন্দ অংশ নেননি। ইফতারের আগে সন্ধ্যা ৬ টা ২৬ মিনিটে খালেদা জিয়া অনুষ্ঠানস্থলে প্রবেশ করেই  প্রথম সারিতে অধ্যাপক একিউএম বদরুদ্দোজা  চৌধুরী, আসম আবদুর রব ও তার স্ত্রী তানিয়া রব, মাহমুদুর রহমান মান্নার টেবিলে এসে বসেন। প্রথমেই তাদের সঙ্গে খালেদা জিয়া কুশল বিনিময় করেন। খালেদা জিয়া কথা বলেন আসম আবদুর রব ও মাহমুদুর রহমান মান্নার সঙ্গেও। প্রায় ৮ মিনিট এই আলাপচারিতায় দেশের পরিস্থিতি নিয়ে নেতৃবৃন্দের সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসনের খোলামেলা কথা বলেন। প্রসঙ্গক্রমে খালেদা জিয়ার উদ্দেশে মান্না বলেন, আপনি সবার সঙ্গে কথা বলেন। জবাবে খালেদা জিয়া বলেন, আমরাও বলি, আপনারাও সবার সঙ্গে কথা বলেন। এরপর খালেদা জিয়া আমন্ত্রিত অতিথিদের টেবিল ঘুরে কুশল বিনিময় করেন। খালেদা জিয়া যখন মূল মঞ্চে যান সঙ্গে বি. চৌধুরীকেও নিয়ে যান। সেখানেও তারা দু’জন দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলেন। বি. চৌধুরী এক পর্যায়ে খালেদা জিয়াকে বলেন, আপনি দেশের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে সবার সঙ্গে কথা বলেন। আনেক লোক পাবেন। জবাবে খালেদা জিয়া বলেন, আমরাও বলি, আপনিও সবার সঙ্গে কথা বলেন। ইফতারের পূর্ব মুহূর্তে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া উপস্থিত রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দকে ধন্যবাদ জানিয়ে সংক্ষিপ্ত বক্তৃতা করেন। তিনি বলেন, আমি জানি রাস্তায় প্রচণ্ড যানজট। তার মধ্যেও কষ্ট করে আমার আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ এ ইফতারে অংশ নিয়েছেন। এজন্য আমার দল বিএনপি ও আমার পক্ষ থেকে আন্তরিক অভিনন্দন জানাচ্ছি। মূল মঞ্চে বি  চৌধুরী, এলডিপির চেয়ারম্যান কর্নেল (অব.) অলি আহমেদ, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম, জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর) টিআইএম ফজলে রাব্বী  চৌধুরী, জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমির অধ্যাপক মজিবুর রহমান, ইসলামী ঐক্যজোটের অ্যাডভোকেট এমএ রকিব, জাগপার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সদ্য প্রয়াত শফিউল আলম প্রধানের স্ত্রী অধ্যাপিকা  রেহমান প্রধানসহ ২০ দলীয়  জোটের শীর্ষ  নেতাদের নিয়ে ইফতার করেন বিএনপি চেয়ারপারসন। এছাড়াও বিকল্পধারা মহাসচিব অবসরপ্রাপ্ত মেজর আবদুল মান্নান জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন, সাংগঠনিক সম্পাদক কামালউদ্দিন পাটোয়ারী ইফতারে অংশ নেন। ২০ দলীয়  জোটের অন্য শরিকদের মধ্যে  খেলাফত মজলিশের মাওলানা  সৈয়দ মজিবুর রহমান, আহমেদ আবদুল কাদের, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের মাওলানা নূর  হোসেন কাশেমী, মুফতি আবদুর রব ইউসুফী, বিজেপির আবদুল মতিন সউদ, জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর)  মোস্তফা জামাল হায়দার, আহসান হাবিব লিংকন, এলডিপির  রেদোয়ান আহমেদ, সাহাদাত  হোসেন  সেলিম, জাগপার  খোন্দকার লুৎফর রহমান, ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান, এনডিপির ফরিদুজ্জামান ফরহাদ,  মোস্তাফিজুর রহমান  মোস্তফা, এনডিপির খন্দকার  গোলাম  মের্ত্তুজা,  লেবার পার্টির  মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, হামদুল্লাহ আল  মেহেদি, ন্যাপের  জেবেল রহমান গানি,  গোলাম  মোস্তফা ভূঁইয়া, মুসলিম লীগের এএইচএম কামরুজ্জামান খান, শেখ জুলফিকার বুলবুল  চৌধুরী, পিপলস লীগের গরীবে  নেওয়াজ,  সৈয়দ মাহবুব  হোসেন, ইসলামিক পার্টির আবু তাহের  চৌধুরী, ন্যাপ-ভাসানীর আজহারুল ইসলাম, সাম্যবাদী দলের সাঈদ আহমেদ, ডিএল‘র সাইফুদ্দিন মনি, জাতীয় দলের  সৈয়দ এহসানুল হুদা প্রমুখ ইফতারে অংশ  নেন। জামায়াতে ইসলামীর  নেতৃবৃন্দের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন নায়েবে আমির সাবেক সংসদ সদস্য আনম শামসুল ইসলাম, মিয়া গোলাম পারোয়ার, ঢাকা মহানগর উত্তরের আমির সেলিম উদ্দিন,  দক্ষিণের ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল মঞ্জুরুল ইসলাম ভুঁইয়া, শামীম সাঈদী প্রমুখ। বিএনপি  নেতাদের মধ্যে ইফতারে অংশ  নেন মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ড. খন্দকার  মোশাররফ  হোসেন, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ  চৌধুরী, আবদুস সালাম, ফজলুল হক মিলন, সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, শামা ওবায়েদ, শহীদউদ্দিন  চৌধুরী এ্যানী, তাইফুল ইসলাম টিপু,  বেলাল আহমেদ, আমিরুল ইসলাম খান আলিম, শাহ  নোসারুল হক, রনকুল ইসলাম টিপুসহ  কেন্দ্রীয়  নেতৃবৃন্দ।

Comments

Comments!

 রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সম্মানে খালেদা জিয়া ইফতারAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সম্মানে খালেদা জিয়া ইফতার

Tuesday, June 6, 2017 3:56 am
৩

চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে কথা বলবে বিএনপি। সোমবার ইফতারের আগে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে এক সংক্ষিপ্ত খোলামেলা আলোচনায় খালেদা জিয়া এ কথা বলেন।

দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের শীর্ষ নেতাদের সম্মানে বসুন্ধরার কনভেনশন সিটি- নবরাত্রি হলে  খালেদা জিয়া এই ইফতারের আয়োজন করেন।

ইফতারে ২০দলীয় জোটের শীর্ষ নেতৃবৃন্দ ছাড়াও বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক ড. একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডির সভাপতি আসম আবদুর রব, তার স্ত্রী তানিয়া রব, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান তালুকদার প্রমুখ অংশ  নেন। এদের মধ্যে মূল মঞ্চে বসেন বি. চৌধুরী।

তবে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দল, জাতীয় পার্টি, কমিউনিস্ট পার্টির নেতৃবৃন্দদের আমন্ত্রণ জানালেও তাদের পক্ষ থেকে কোনো নেতৃবৃন্দ অংশ নেননি।
ইফতারের আগে সন্ধ্যা ৬ টা ২৬ মিনিটে খালেদা জিয়া অনুষ্ঠানস্থলে প্রবেশ করেই  প্রথম সারিতে অধ্যাপক একিউএম বদরুদ্দোজা  চৌধুরী, আসম আবদুর রব ও তার স্ত্রী তানিয়া রব, মাহমুদুর রহমান মান্নার টেবিলে এসে বসেন। প্রথমেই তাদের সঙ্গে খালেদা জিয়া কুশল বিনিময় করেন।

খালেদা জিয়া কথা বলেন আসম আবদুর রব ও মাহমুদুর রহমান মান্নার সঙ্গেও।

প্রায় ৮ মিনিট এই আলাপচারিতায় দেশের পরিস্থিতি নিয়ে নেতৃবৃন্দের সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসনের খোলামেলা কথা বলেন।

প্রসঙ্গক্রমে খালেদা জিয়ার উদ্দেশে মান্না বলেন, আপনি সবার সঙ্গে কথা বলেন। জবাবে খালেদা জিয়া বলেন, আমরাও বলি, আপনারাও সবার সঙ্গে কথা বলেন। এরপর খালেদা জিয়া আমন্ত্রিত অতিথিদের টেবিল ঘুরে কুশল বিনিময় করেন।

খালেদা জিয়া যখন মূল মঞ্চে যান সঙ্গে বি. চৌধুরীকেও নিয়ে যান। সেখানেও তারা দু’জন দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলেন।

বি. চৌধুরী এক পর্যায়ে খালেদা জিয়াকে বলেন, আপনি দেশের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে সবার সঙ্গে কথা বলেন। আনেক লোক পাবেন। জবাবে খালেদা জিয়া বলেন, আমরাও বলি, আপনিও সবার সঙ্গে কথা বলেন।

ইফতারের পূর্ব মুহূর্তে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া উপস্থিত রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দকে ধন্যবাদ জানিয়ে সংক্ষিপ্ত বক্তৃতা করেন।

তিনি বলেন, আমি জানি রাস্তায় প্রচণ্ড যানজট। তার মধ্যেও কষ্ট করে আমার আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ এ ইফতারে অংশ নিয়েছেন। এজন্য আমার দল বিএনপি ও আমার পক্ষ থেকে আন্তরিক অভিনন্দন জানাচ্ছি।

মূল মঞ্চে বি  চৌধুরী, এলডিপির চেয়ারম্যান কর্নেল (অব.) অলি আহমেদ, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম, জাতীয় পার্টি (কাজী জাফর) টিআইএম ফজলে রাব্বী  চৌধুরী, জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমির অধ্যাপক মজিবুর রহমান, ইসলামী ঐক্যজোটের অ্যাডভোকেট এমএ রকিব, জাগপার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সদ্য প্রয়াত শফিউল আলম প্রধানের স্ত্রী অধ্যাপিকা  রেহমান প্রধানসহ ২০ দলীয়  জোটের শীর্ষ  নেতাদের নিয়ে ইফতার করেন বিএনপি চেয়ারপারসন।

এছাড়াও বিকল্পধারা মহাসচিব অবসরপ্রাপ্ত মেজর আবদুল মান্নান জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক রতন, সাংগঠনিক সম্পাদক কামালউদ্দিন পাটোয়ারী ইফতারে অংশ নেন।

২০ দলীয়  জোটের অন্য শরিকদের মধ্যে  খেলাফত মজলিশের মাওলানা  সৈয়দ মজিবুর রহমান, আহমেদ আবদুল কাদের, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের মাওলানা নূর  হোসেন কাশেমী, মুফতি আবদুর রব ইউসুফী, বিজেপির আবদুল মতিন সউদ, জাতীয় পার্টির (কাজী জাফর)  মোস্তফা জামাল হায়দার, আহসান হাবিব লিংকন, এলডিপির  রেদোয়ান আহমেদ, সাহাদাত  হোসেন  সেলিম, জাগপার  খোন্দকার লুৎফর রহমান, ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান, এনডিপির ফরিদুজ্জামান ফরহাদ,  মোস্তাফিজুর রহমান  মোস্তফা, এনডিপির খন্দকার  গোলাম  মের্ত্তুজা,  লেবার পার্টির  মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, হামদুল্লাহ আল  মেহেদি, ন্যাপের  জেবেল রহমান গানি,  গোলাম  মোস্তফা ভূঁইয়া, মুসলিম লীগের এএইচএম কামরুজ্জামান খান, শেখ জুলফিকার বুলবুল  চৌধুরী, পিপলস লীগের গরীবে  নেওয়াজ,  সৈয়দ মাহবুব  হোসেন, ইসলামিক পার্টির আবু তাহের  চৌধুরী, ন্যাপ-ভাসানীর আজহারুল ইসলাম, সাম্যবাদী দলের সাঈদ আহমেদ, ডিএল‘র সাইফুদ্দিন মনি, জাতীয় দলের  সৈয়দ এহসানুল হুদা প্রমুখ ইফতারে অংশ  নেন।

জামায়াতে ইসলামীর  নেতৃবৃন্দের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন নায়েবে আমির সাবেক সংসদ সদস্য আনম শামসুল ইসলাম, মিয়া গোলাম পারোয়ার, ঢাকা মহানগর উত্তরের আমির সেলিম উদ্দিন,  দক্ষিণের ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল মঞ্জুরুল ইসলাম ভুঁইয়া, শামীম সাঈদী প্রমুখ।

বিএনপি  নেতাদের মধ্যে ইফতারে অংশ  নেন মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ড. খন্দকার  মোশাররফ  হোসেন, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ  চৌধুরী, আবদুস সালাম, ফজলুল হক মিলন, সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, শামা ওবায়েদ, শহীদউদ্দিন  চৌধুরী এ্যানী, তাইফুল ইসলাম টিপু,  বেলাল আহমেদ, আমিরুল ইসলাম খান আলিম, শাহ  নোসারুল হক, রনকুল ইসলাম টিপুসহ  কেন্দ্রীয়  নেতৃবৃন্দ।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X