বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১:১০
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Thursday, November 3, 2016 10:17 am
A- A A+ Print

রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় ৮ মুসলিম ছাত্রকে ‘এনকাউন্টার’: মমতা

158357_1

নয়াদিল্লি: মুসলিম ছাত্র সংগঠন ‘স্টুডেন্টস ইসলামিক মুভমেন্ট অব ইন্ডিয়ার’ (সিমি) ৮ ছাত্রনেতা এনকাউন্টারে নিহত হওয়ার ঘটনায় অবশেষে মুখ খুললেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। বুধবার টুইটারে ভোপাল এনকাউন্টারের বিষয়ে মন্তব্য করেন মমতা। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় বলেন, ‘রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতে এসব করানো হচ্ছে। এই ধরনের ঘটনা দেশের অখণ্ডতা ও ঐক্যের ব্যাপারে আমাকে গভীরভাবে চিন্তিত করছে।’ এনকাউন্টারের সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে মমতা বলেন, ‘তথাকথিত এনকাউন্টারের দাবি আমরা মানছি না। এই ঘটনা নিয়ে মানুষের মনে অনেক প্রশ্ন সৃষ্টি হচ্ছে।’ এর আগে ভারতের মধ্যপ্রদেশের ভোপাল হাইসিকিউরিটি কারাগার কর্তৃপক্ষ দাবি করেছিল, রবিবার রাত ২টার দিকে এক নিরাপত্তারক্ষীকে গলাকেটে পালিয়ে যায় আট ছাত্র নেতা। এর আট ঘণ্টা পর সোমবার সকালে ভোপাল থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে এন্তেখেড়ি গ্রামের কাছে পুলিশ ও কাউন্টার টেরোরিজম গ্রুপের (সিটিজি) এনকাউন্টারে তারা মারা যান। তারা হলেন মেহবুব গুড্ডু ওরফে মল্লিক, মোহাম্মদ খালিদ আহমাদ, আমজাদ খান, মুজিব শেখ, মোহাম্মদ আকিল খিলজি, জাকির হোসেন সাদিক, মোহাম্মদ সালিক সাল্লু এবং আবদুল মজিদ। তবে এই এনকাউন্টারকে অসত্য দাবি করে সরব হন ভারতের বিরোধী রাজনৈতিক দল এবং অ্যাক্টিভিস্টরা। বিভিন্ন রাজনৈতিক এবং সামাজিক সংগঠন এটাকে পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড আখ্যা দিয়ে এর প্রতিবাদে গোটা ভারতজুড়ে ফুঁসে উঠেছে এবং যথাযথ তদন্তের মাধ্যমে এর বিচার দাবি করছেন তারা। এনকাউন্টার নিয়ে কংগ্রেস, সিপিএমসহ বিরোধী দলগুলো সরব হলেও তৃণমূল কংগ্রেস নীরব ছিল। এ নিয়ে দলটির মুসলিম নেতারা প্রকাশ্যে বিবৃতির দাবি জানান। এরপর টুইট করে দলীয় অবস্থান স্পষ্ট করেন মমতা বন্দোপাধ্যায়।

Comments

Comments!

 রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় ৮ মুসলিম ছাত্রকে ‘এনকাউন্টার’: মমতাAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় ৮ মুসলিম ছাত্রকে ‘এনকাউন্টার’: মমতা

Thursday, November 3, 2016 10:17 am
158357_1

নয়াদিল্লি: মুসলিম ছাত্র সংগঠন ‘স্টুডেন্টস ইসলামিক মুভমেন্ট অব ইন্ডিয়ার’ (সিমি) ৮ ছাত্রনেতা এনকাউন্টারে নিহত হওয়ার ঘটনায় অবশেষে মুখ খুললেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়।

বুধবার টুইটারে ভোপাল এনকাউন্টারের বিষয়ে মন্তব্য করেন মমতা।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় বলেন, ‘রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতে এসব করানো হচ্ছে। এই ধরনের ঘটনা দেশের অখণ্ডতা ও ঐক্যের ব্যাপারে আমাকে গভীরভাবে চিন্তিত করছে।’

এনকাউন্টারের সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে মমতা বলেন, ‘তথাকথিত এনকাউন্টারের দাবি আমরা মানছি না। এই ঘটনা নিয়ে মানুষের মনে অনেক প্রশ্ন সৃষ্টি হচ্ছে।’

এর আগে ভারতের মধ্যপ্রদেশের ভোপাল হাইসিকিউরিটি কারাগার কর্তৃপক্ষ দাবি করেছিল, রবিবার রাত ২টার দিকে এক নিরাপত্তারক্ষীকে গলাকেটে পালিয়ে যায় আট ছাত্র নেতা।

এর আট ঘণ্টা পর সোমবার সকালে ভোপাল থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে এন্তেখেড়ি গ্রামের কাছে পুলিশ ও কাউন্টার টেরোরিজম গ্রুপের (সিটিজি) এনকাউন্টারে তারা মারা যান।

তারা হলেন মেহবুব গুড্ডু ওরফে মল্লিক, মোহাম্মদ খালিদ আহমাদ, আমজাদ খান, মুজিব শেখ, মোহাম্মদ আকিল খিলজি, জাকির হোসেন সাদিক, মোহাম্মদ সালিক সাল্লু এবং আবদুল মজিদ।

তবে এই এনকাউন্টারকে অসত্য দাবি করে সরব হন ভারতের বিরোধী রাজনৈতিক দল এবং অ্যাক্টিভিস্টরা।

বিভিন্ন রাজনৈতিক এবং সামাজিক সংগঠন এটাকে পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড আখ্যা দিয়ে এর প্রতিবাদে গোটা ভারতজুড়ে ফুঁসে উঠেছে এবং যথাযথ তদন্তের মাধ্যমে এর বিচার দাবি করছেন তারা।

এনকাউন্টার নিয়ে কংগ্রেস, সিপিএমসহ বিরোধী দলগুলো সরব হলেও তৃণমূল কংগ্রেস নীরব ছিল।

এ নিয়ে দলটির মুসলিম নেতারা প্রকাশ্যে বিবৃতির দাবি জানান। এরপর টুইট করে দলীয় অবস্থান স্পষ্ট করেন মমতা বন্দোপাধ্যায়।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X