শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সন্ধ্যা ৬:২০
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Tuesday, January 17, 2017 9:19 am
A- A A+ Print

রাষ্ট্রায়াত্ত্বখাতের খেলাপি ঋণ বেড়ে যাওয়ায় বিশ্বব্যাংকের উদ্বেগ

11

রাষ্ট্রায়াত্বখাতের ব্যাংকগুলো খেলাপি ঋণ বেড়ে যাওয়া উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্বব্যাংক। একই সাথে ব্যাংকিংখাতে সুশাসন নিশ্চিত করারও তাগিদ দিয়ে আন্তর্জাতিক এই সংস্থাটি। আজ সোমবার সকালে বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর চিমিয়া ফানের নেতৃত্বে বিশ্বব্যাংক গ্রুপের কর্মকর্তারা সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করেন। এই বৈঠকে রাষ্ট্রায়াত্ব খাতের ব্যাংক নিয়ে বিশ্বব্যাংক উদ্বেগ প্রকাশ করে বলে জানা গেছে। পরে বিশ্বব্যাংকের ঢাকা অফিসের কান্ট্রি ডিরেক্টর চিমিয়াও ফান সাংবাদিকদের জানান, ‘এটি ছিল নিয়মিত সাক্ষাৎ। এ বৈঠকে তবে আইডিএ’র বিষয়ে কথা হয়েছে। আমরা অর্থমন্ত্রীকে বলেছি, বিশ্বব্যাংক আইডিএ থেকে যে সহায়তা দেয় তা গত বছরের চেয়ে আগামী বছরগুলোতে বাড়বে। তবে বাংলাদেশের আর্থিক খাতের বিশেষত রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোতে শৃঙ্খলা ও সুশাসন নিশ্চিত করতে হবে। ব্যাংকগুলোয় এনপিএল (নন পারফর্মিং লোন কুঋণ বা খেলাপি ঋণ) অত্যন্ত বেশি। এটি কমিয়ে আনতে হবে। বিষয়গুলো কীভাবে করা যায় সেজন্য আমরা সরকারের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করবো।’ দুপুরে সাংবাদিকদের অর্থমন্ত্রী বলেন, বিশ্বব্যাংকের অঙ্গভুক্ত প্রতিষ্ঠান আইডিএ (ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট অ্যাসোসিয়েশন) আগামী তিন বছরে আগের চেয়ে এক বিলিয়ন ডলার বেশি ঋণ সহায়তা দেবে। এর ফলে আগামী জুলাই থেকে পরবর্তী তিন বছরের জন্য তিন বিলিয়ন ডলার অর্থ সহায়তা পাবে সরকার। অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, বিশ্বব্যাংক গ্রুপের আইডিএ ফান্ডের মেয়াদ ২০১৭ সালের জুন মাসে শেষ হয়ে যাচ্ছে। আইডিএ থেকে পরবর্তী তিন বছরে ঋণ নেয়ার বিষয়েই বিশ্বব্যাংক গ্রুপের কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা হয়েছে। তারা বলেছেন, আইডিএ’র মাধ্যমে আগামী তিন বছরের জন্য বাংলাদেশকে অতিরিক্ত এক বিলিয়ন ডলার বাড়তি ঋণ সহায়তা দেয়া হবে। ফলে দুই বিলিয়ন ডলারের পরিবর্তে তিন বিলিয়ন ডলার ঋণ সহায়তা পাবে বাংলাদেশ। অর্থমন্ত্রী জানান, আইডিএ’র চলতি মেয়াদ আগামী জুনে শেষ হয়ে যাবে। তার আগেই অবশিষ্ট পাঁচ মাসের জন্য আমরা বর্ধিত সুদে ৫শ’ মিলিয়ন ডলার ঋণ চেয়েছিলাম। কিন্তু, খাতগুলো সুনির্দিষ্ট না থাকায় বিশ্ব ব্যাংক বলেছে এটা সম্ভব নয়। অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘এর পরিবর্তে বিশ্বব্যাংক নিজেই একটা প্রস্তাব দিয়েছে আমাদের। তারা এলজিইডি খাতে তিনশ’ মিলিয়ন ডলার আর হাউজিং খাতে তিনশ’ মিলিয়ন ডলার। পাশাপাশি ব্যাংকিং খাত সংস্কার ইস্যুতেও তারা ঋণ সহায়তা দিতে চায়। তবে এর পরিমাণ জানানো হয়নি। এজন্য যৌথভাবে রোডম্যাপ তৈরি করা হচ্ছে। যদি এটা এই সময়ে সম্ভব না হয় তাহলে আইডিএ’র আগামী প্রান্তিকে যুক্ত হবে।’

Comments

Comments!

 রাষ্ট্রায়াত্ত্বখাতের খেলাপি ঋণ বেড়ে যাওয়ায় বিশ্বব্যাংকের উদ্বেগAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

রাষ্ট্রায়াত্ত্বখাতের খেলাপি ঋণ বেড়ে যাওয়ায় বিশ্বব্যাংকের উদ্বেগ

Tuesday, January 17, 2017 9:19 am
11

রাষ্ট্রায়াত্বখাতের ব্যাংকগুলো খেলাপি ঋণ বেড়ে যাওয়া উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্বব্যাংক। একই সাথে ব্যাংকিংখাতে সুশাসন নিশ্চিত করারও তাগিদ দিয়ে আন্তর্জাতিক এই সংস্থাটি।

আজ সোমবার সকালে বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর চিমিয়া ফানের নেতৃত্বে বিশ্বব্যাংক গ্রুপের কর্মকর্তারা সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করেন। এই বৈঠকে রাষ্ট্রায়াত্ব খাতের ব্যাংক নিয়ে বিশ্বব্যাংক উদ্বেগ প্রকাশ করে বলে জানা গেছে।

পরে বিশ্বব্যাংকের ঢাকা অফিসের কান্ট্রি ডিরেক্টর চিমিয়াও ফান সাংবাদিকদের জানান, ‘এটি ছিল নিয়মিত সাক্ষাৎ। এ বৈঠকে তবে আইডিএ’র বিষয়ে কথা হয়েছে। আমরা অর্থমন্ত্রীকে বলেছি, বিশ্বব্যাংক আইডিএ থেকে যে সহায়তা দেয় তা গত বছরের চেয়ে আগামী বছরগুলোতে বাড়বে। তবে বাংলাদেশের আর্থিক খাতের বিশেষত রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোতে শৃঙ্খলা ও সুশাসন নিশ্চিত করতে হবে। ব্যাংকগুলোয় এনপিএল (নন পারফর্মিং লোন কুঋণ বা খেলাপি ঋণ) অত্যন্ত বেশি। এটি কমিয়ে আনতে হবে। বিষয়গুলো কীভাবে করা যায় সেজন্য আমরা সরকারের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করবো।’

দুপুরে সাংবাদিকদের অর্থমন্ত্রী বলেন, বিশ্বব্যাংকের অঙ্গভুক্ত প্রতিষ্ঠান আইডিএ (ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট অ্যাসোসিয়েশন) আগামী তিন বছরে আগের চেয়ে এক বিলিয়ন ডলার বেশি ঋণ সহায়তা দেবে। এর ফলে আগামী জুলাই থেকে পরবর্তী তিন বছরের জন্য তিন বিলিয়ন ডলার অর্থ সহায়তা পাবে সরকার।

অর্থমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, বিশ্বব্যাংক গ্রুপের আইডিএ ফান্ডের মেয়াদ ২০১৭ সালের জুন মাসে শেষ হয়ে যাচ্ছে। আইডিএ থেকে পরবর্তী তিন বছরে ঋণ নেয়ার বিষয়েই বিশ্বব্যাংক গ্রুপের কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা হয়েছে। তারা বলেছেন, আইডিএ’র মাধ্যমে আগামী তিন বছরের জন্য বাংলাদেশকে অতিরিক্ত এক বিলিয়ন ডলার বাড়তি ঋণ সহায়তা দেয়া হবে। ফলে দুই বিলিয়ন ডলারের পরিবর্তে তিন বিলিয়ন ডলার ঋণ সহায়তা পাবে বাংলাদেশ।

অর্থমন্ত্রী জানান, আইডিএ’র চলতি মেয়াদ আগামী জুনে শেষ হয়ে যাবে। তার আগেই অবশিষ্ট পাঁচ মাসের জন্য আমরা বর্ধিত সুদে ৫শ’ মিলিয়ন ডলার ঋণ চেয়েছিলাম। কিন্তু, খাতগুলো সুনির্দিষ্ট না থাকায় বিশ্ব ব্যাংক বলেছে এটা সম্ভব নয়।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘এর পরিবর্তে বিশ্বব্যাংক নিজেই একটা প্রস্তাব দিয়েছে আমাদের। তারা এলজিইডি খাতে তিনশ’ মিলিয়ন ডলার আর হাউজিং খাতে তিনশ’ মিলিয়ন ডলার। পাশাপাশি ব্যাংকিং খাত সংস্কার ইস্যুতেও তারা ঋণ সহায়তা দিতে চায়। তবে এর পরিমাণ জানানো হয়নি। এজন্য যৌথভাবে রোডম্যাপ তৈরি করা হচ্ছে। যদি এটা এই সময়ে সম্ভব না হয় তাহলে আইডিএ’র আগামী প্রান্তিকে যুক্ত হবে।’

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X