শনিবার, ১৬ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং, ২রা পৌষ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১:১১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, August 12, 2017 2:53 pm
A- A A+ Print

রায়ের পর্যবেক্ষণে ‘দেশের আসল চেহারা’ উন্মোচিত হয়েছে

242993_137

ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের পূর্ণাঙ্গ রায়ের পর্যবেক্ষণে 'দেশের বর্তমান অবস্থার আসল চেহারা' উন্মোচিত হওয়ায় সরকারের গাত্রদাহ হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শনিবার সকালে এক দোয়া মাহফিলপূর্ব সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বিএনপি মহাসচিব এই মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ‘‘আজকে যখন সুপ্রিম কোর্ট তাদের রায়ের মধ্য দিয়ে দেশের বর্তমান অবস্থার আসল চেহারা তুলে ধরেছেন, তখন তাদের গাত্রদাহ শুরু হয়েছে। গতকাল (শুক্রবার) আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেছেন যে এখন তাদের খুব দুঃসময়। দুঃসময় কেনো? বলছে যে এখন নাকী ষড়যন্ত্র শুরু হয়ে গেছে।” ‘‘ তোমরা রাষ্ট্র চালাতে পারো না, ব্যর্থ হও। এয়ারপোর্টের মধ্যে তিনতলায় আগুন লাগে, সমস্ত বন্ধ করে দিতে হয়। হজযাত্রীরা যেতেও পারছেন না একটার পর একটা সমস্যা তৈরি হয়ে যাচ্ছে, তারা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে। তোমরা ঢাকা শহরের রাস্তা ঠিক করতে পারো না। বাইরের কথা বাদই দেন।” মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘‘ আমরা বার বার বলছি, এই সরকার বিশেষ করে এই রায়ের পর্যবেক্ষণের পরে এটা প্রমাণিত হয়ে গেছে, এদের কোনো নৈতিক অধিকার নেই ক্ষমতায় বসে থাকার। জোর করে বসে আছে, বন্দুক-পিস্তল দিয়ে বসে আছে, পেছনে বন্দুক-পিস্তল না থাকলে দাঁড়াতেও পারবে না এক সেকেন্ড-এটাই হচ্ছে মূল কথা।” ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ডাকসু নির্বাচনের দাবিতে উন্মুক্ত আলোচনায় জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল অংশ নিলে তাদেরকে ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠন ‘লাঠি-সোঠা-অস্ত্র’ নিয়ে বের করে দেয়ার ঘটনায় কঠোর সমালোচনা করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘‘এই হচ্ছে আওয়ামী লীগের গণতন্ত্র। আবার  বলে কিনা দেশে তো গণতন্ত্র আছে, গণতন্ত্রের ওপর কোনো আকাশ ভেঙে পড়লো যে, আপনাদেরকে সহায়ক সরকার দিতে হবে?” ‘‘ আমাদেরকে তোমরা সাধারণ সভা করতে দাও না, আমাদেরকে মাঠের মধ্যে জনসভা করতে দাও না। ঢাকার বাইরে গতকালও চাঁদপুর থেকে আমাকে টেলিফোন করেছিলো ম্যাডামের আরোগ্য কামনায় মিলাদ করতে চেয়েছিলো তাদেরকে বাইরে মিলাদ করতে দেয়নি। শেষে মসজিদের ভেতরে গিয়ে তারা মিলাদ করেছে, সব জায়গায় এসব কাজ করছে। এখন সেখানে তাদের ভয় যদি মিলাদ করতে গিয়ে এসে বসে পড়ে, এখান থেকে আবার যদি আন্দোলন শুরু না হয়ে যায়, সেখানে ক্ষমতা চলে যায়।” জাতীয়তাবাদী যুব দলের নেতৃত্বকে তাদের সংগঠন শক্তিশালী করার তাগিদ দেন ফখরুল। নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয়তাবাদী যুব দলের উদ্যোগে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আশু আরোগ্য কামনায় এই দোয়া মাহফিল হয়। গত ৮ আগস্ট লন্ডনের মুরফিল্ড আই হসপিটালে খালেদা জিয়ার ডান চোখে সফল অস্ত্রোপচার হয়। যুব দলের সিনিয়র সহসভাপতি মোরতাজুল করীম বাদরু'র পরিচালনায় সংক্ষিপ্ত আলোচনায় যুব দলের সভাপতি সাইফুল আলম নিরব ও সাধারণ সম্পাদক সুলতানা সালাউদ্দিন টুকু বক্তব্য রাখেন। দোয়া মাহফিলে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আবদুস সালাম, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, যুব দলের কেন্দ্রীয় নেতা নুরুল ইসলাম নয়ন, এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন, মোস্তফা কামাল রিয়াদ, গোলাম মাওলা শাহিন প্রমুখ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Comments

Comments!

 রায়ের পর্যবেক্ষণে ‘দেশের আসল চেহারা’ উন্মোচিত হয়েছেAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

রায়ের পর্যবেক্ষণে ‘দেশের আসল চেহারা’ উন্মোচিত হয়েছে

Saturday, August 12, 2017 2:53 pm
242993_137

ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের পূর্ণাঙ্গ রায়ের পর্যবেক্ষণে ‘দেশের বর্তমান অবস্থার আসল চেহারা’ উন্মোচিত হওয়ায় সরকারের গাত্রদাহ হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শনিবার সকালে এক দোয়া মাহফিলপূর্ব সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বিএনপি মহাসচিব এই মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, ‘‘আজকে যখন সুপ্রিম কোর্ট তাদের রায়ের মধ্য দিয়ে দেশের বর্তমান অবস্থার আসল চেহারা তুলে ধরেছেন, তখন তাদের গাত্রদাহ শুরু হয়েছে। গতকাল (শুক্রবার) আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেছেন যে এখন তাদের খুব দুঃসময়। দুঃসময় কেনো? বলছে যে এখন নাকী ষড়যন্ত্র শুরু হয়ে গেছে।”

‘‘ তোমরা রাষ্ট্র চালাতে পারো না, ব্যর্থ হও। এয়ারপোর্টের মধ্যে তিনতলায় আগুন লাগে, সমস্ত বন্ধ করে দিতে হয়। হজযাত্রীরা যেতেও পারছেন না একটার পর একটা সমস্যা তৈরি হয়ে যাচ্ছে, তারা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে। তোমরা ঢাকা শহরের রাস্তা ঠিক করতে পারো না। বাইরের কথা বাদই দেন।”

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘‘ আমরা বার বার বলছি, এই সরকার বিশেষ করে এই রায়ের পর্যবেক্ষণের পরে এটা প্রমাণিত হয়ে গেছে, এদের কোনো নৈতিক অধিকার নেই ক্ষমতায় বসে থাকার। জোর করে বসে আছে, বন্দুক-পিস্তল দিয়ে বসে আছে, পেছনে বন্দুক-পিস্তল না থাকলে দাঁড়াতেও পারবে না এক সেকেন্ড-এটাই হচ্ছে মূল কথা।”

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ডাকসু নির্বাচনের দাবিতে উন্মুক্ত আলোচনায় জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল অংশ নিলে তাদেরকে ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠন ‘লাঠি-সোঠা-অস্ত্র’ নিয়ে বের করে দেয়ার ঘটনায় কঠোর সমালোচনা করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘‘এই হচ্ছে আওয়ামী লীগের গণতন্ত্র। আবার  বলে কিনা দেশে তো গণতন্ত্র আছে, গণতন্ত্রের ওপর কোনো আকাশ ভেঙে পড়লো যে, আপনাদেরকে সহায়ক সরকার দিতে হবে?”

‘‘ আমাদেরকে তোমরা সাধারণ সভা করতে দাও না, আমাদেরকে মাঠের মধ্যে জনসভা করতে দাও না। ঢাকার বাইরে গতকালও চাঁদপুর থেকে আমাকে টেলিফোন করেছিলো ম্যাডামের আরোগ্য কামনায় মিলাদ করতে চেয়েছিলো তাদেরকে বাইরে মিলাদ করতে দেয়নি। শেষে মসজিদের ভেতরে গিয়ে তারা মিলাদ করেছে, সব জায়গায় এসব কাজ করছে। এখন সেখানে তাদের ভয় যদি মিলাদ করতে গিয়ে এসে বসে পড়ে, এখান থেকে আবার যদি আন্দোলন শুরু না হয়ে যায়, সেখানে ক্ষমতা চলে যায়।”

জাতীয়তাবাদী যুব দলের নেতৃত্বকে তাদের সংগঠন শক্তিশালী করার তাগিদ দেন ফখরুল।

নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয়তাবাদী যুব দলের উদ্যোগে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আশু আরোগ্য কামনায় এই দোয়া মাহফিল হয়। গত ৮ আগস্ট লন্ডনের মুরফিল্ড আই হসপিটালে খালেদা জিয়ার ডান চোখে সফল অস্ত্রোপচার হয়।

যুব দলের সিনিয়র সহসভাপতি মোরতাজুল করীম বাদরু’র পরিচালনায় সংক্ষিপ্ত আলোচনায় যুব দলের সভাপতি সাইফুল আলম নিরব ও সাধারণ সম্পাদক সুলতানা সালাউদ্দিন টুকু বক্তব্য রাখেন।

দোয়া মাহফিলে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আবদুস সালাম, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, যুব দলের কেন্দ্রীয় নেতা নুরুল ইসলাম নয়ন, এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন, মোস্তফা কামাল রিয়াদ, গোলাম মাওলা শাহিন প্রমুখ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X