শনিবার, ১৮ই নভেম্বর, ২০১৭ ইং, ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ২:০৯
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Tuesday, September 12, 2017 6:23 pm
A- A A+ Print

রো‌হিঙ্গা নির্যাত‌নের বিরু‌দ্ধে সংস‌দে নিন্দা প্রস্তাব রা‌খে‌নি সরকার : ফখরুল

15

বিএন‌পির মহাস‌চিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, জা‌তিসংঘ, মানবা‌ধিকার সংস্থাসহ সবাই আস‌ছে, এখন সরকা‌রের বোধোদয় হ‌য়ে‌ছে। এখন প্রধানমন্ত্রী রো‌হিঙ্গা‌দের দেখ‌তে গে‌ছেন, ত্রাণ দি‌চ্ছেন কিন্তু মিয়ানমা‌রে নির্যাত‌নের বিরু‌দ্ধে সংস‌দে নিন্দা ক‌রে‌নি সরকার। আজ মঙ্গলবার দুপু‌রে রাজধানীর ইঞ্জি‌নিয়া‌রিং ই‌নস্টি‌টিউশনে বিএন‌পির চেয়ারপারসন খা‌লেদা জিয়া ও সি‌নিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তা‌রেক রহমা‌নের ১০ম কারামু‌ক্তি দিবস উপল‌ক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন। এই সভার আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী যুবদল। বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘সংসদে পাস করেছেন রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে হবে। কিন্তু নিন্দা জানাননি। গণহত্যা বন্ধ করার জন্য আন্তর্জাতিক চাপ সৃষ্টি করতে হবে, তা করেননি। আজ বোধোদয় হয়েছে, তার আগে কী বলেছেন, আমাদের দেখতে হবে, এখানে (রোহিঙ্গা) সন্ত্রাসী আছে।’ মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘সরকার কন্সপিরেসি ফোবিয়ায় (ষড়যন্ত্রকে ভয়) ভুগছে। কোনো কিছু হলেই আতঙ্কে থাকে। এসব বাদ দিয়ে জনগণের কথা ভাবুন, রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে কাজ করুন। আপনারা এটা (রোহিঙ্গা) নিয়ে রাজনীতি করতে চান বলেই এটা বলেছেন যে, মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর সাথে যৌথভাবে সন্ত্রাস মোকাবিলা করবেন, কাদের বিরুদ্ধে? যারা নির্যাতিত হচ্ছে, নারী শিশু তাদের বিরুদ্ধে?’ মির্জা ফখরুল বলেন, ‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গা নির্যাতন হচ্ছে, জাতিগতভাবে নিধন করার চেষ্টা করা হচ্ছে। আর বাংলাদেশের গণতন্ত্রকে ধ্বংস করার জন্য অসংখ্য নেতাকর্মীকে হত্যা, গুম, মামলা করা হচ্ছে। এ মামলাগুলো বেশিরভাগই ১/১১-এর সময়ে হয়েছে। আপনাদের মামলা তুলে নিলেন আর আমাদের মামলা বাড়াচ্ছেন?’ বিএনপির এই নেতা আরো বলেন, ‘জনগণকে রুখে দাঁড়াতে হবে এবং এটা একমাত্র ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবকদল দ্বারাই সম্ভব। আমরা নির্বাচন চাই, তবে ২০১৪ সালের মতো নয়। তারা জোর করে ক্ষমতা দখল করে বসে আছে। শুধু ক্ষমতায় থাকার জন্যই অশান্তি সৃষ্টি করে রেখেছে। সরকারের শুভবুদ্ধির উদয় হোক, সহায়ক সরকার দিয়ে নির্বাচনের ব্যবস্থা করুন, অথবা জনগণের কাছে দায়ী হবেন, জনগণ আপনাদের ক্ষমা করবে না।’ অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নিরব ও সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু।

Comments

Comments!

 রো‌হিঙ্গা নির্যাত‌নের বিরু‌দ্ধে সংস‌দে নিন্দা প্রস্তাব রা‌খে‌নি সরকার : ফখরুলAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

রো‌হিঙ্গা নির্যাত‌নের বিরু‌দ্ধে সংস‌দে নিন্দা প্রস্তাব রা‌খে‌নি সরকার : ফখরুল

Tuesday, September 12, 2017 6:23 pm
15

বিএন‌পির মহাস‌চিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, জা‌তিসংঘ, মানবা‌ধিকার সংস্থাসহ সবাই আস‌ছে, এখন সরকা‌রের বোধোদয় হ‌য়ে‌ছে। এখন প্রধানমন্ত্রী রো‌হিঙ্গা‌দের দেখ‌তে গে‌ছেন, ত্রাণ দি‌চ্ছেন কিন্তু মিয়ানমা‌রে নির্যাত‌নের বিরু‌দ্ধে সংস‌দে নিন্দা ক‌রে‌নি সরকার।

আজ মঙ্গলবার দুপু‌রে রাজধানীর ইঞ্জি‌নিয়া‌রিং ই‌নস্টি‌টিউশনে বিএন‌পির চেয়ারপারসন খা‌লেদা জিয়া ও সি‌নিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তা‌রেক রহমা‌নের ১০ম কারামু‌ক্তি দিবস উপল‌ক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন। এই সভার আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী যুবদল।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘সংসদে পাস করেছেন রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে হবে। কিন্তু নিন্দা জানাননি। গণহত্যা বন্ধ করার জন্য আন্তর্জাতিক চাপ সৃষ্টি করতে হবে, তা করেননি। আজ বোধোদয় হয়েছে, তার আগে কী বলেছেন, আমাদের দেখতে হবে, এখানে (রোহিঙ্গা) সন্ত্রাসী আছে।’

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘সরকার কন্সপিরেসি ফোবিয়ায় (ষড়যন্ত্রকে ভয়) ভুগছে। কোনো কিছু হলেই আতঙ্কে থাকে। এসব বাদ দিয়ে জনগণের কথা ভাবুন, রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে কাজ করুন। আপনারা এটা (রোহিঙ্গা) নিয়ে রাজনীতি করতে চান বলেই এটা বলেছেন যে, মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর সাথে যৌথভাবে সন্ত্রাস মোকাবিলা করবেন, কাদের বিরুদ্ধে? যারা নির্যাতিত হচ্ছে, নারী শিশু তাদের বিরুদ্ধে?’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘মিয়ানমারে রোহিঙ্গা নির্যাতন হচ্ছে, জাতিগতভাবে নিধন করার চেষ্টা করা হচ্ছে। আর বাংলাদেশের গণতন্ত্রকে ধ্বংস করার জন্য অসংখ্য নেতাকর্মীকে হত্যা, গুম, মামলা করা হচ্ছে। এ মামলাগুলো বেশিরভাগই ১/১১-এর সময়ে হয়েছে। আপনাদের মামলা তুলে নিলেন আর আমাদের মামলা বাড়াচ্ছেন?’

বিএনপির এই নেতা আরো বলেন, ‘জনগণকে রুখে দাঁড়াতে হবে এবং এটা একমাত্র ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবকদল দ্বারাই সম্ভব। আমরা নির্বাচন চাই, তবে ২০১৪ সালের মতো নয়। তারা জোর করে ক্ষমতা দখল করে বসে আছে। শুধু ক্ষমতায় থাকার জন্যই অশান্তি সৃষ্টি করে রেখেছে। সরকারের শুভবুদ্ধির উদয় হোক, সহায়ক সরকার দিয়ে নির্বাচনের ব্যবস্থা করুন, অথবা জনগণের কাছে দায়ী হবেন, জনগণ আপনাদের ক্ষমা করবে না।’

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নিরব ও সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X