শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১১:৩০
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, June 18, 2017 2:20 am
A- A A+ Print

লন্ডন অগ্নিকাণ্ডে নিখোঁজ ৫৮ জনের কেউ বেঁচে নেই!

11

লন্ডনের গ্রেনফেল টাওয়ারের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এখনো নিখোঁজ ৫৮ জন। ধরে নেওয়া হচ্ছে, তারা কেউ বেঁচে নেই। তবে এত দেরিতে নিখোঁজ ও মৃতদের সংখ্যা প্রকাশ করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা। শনিবার লন্ডন পুলিশ এ তথ্য জানিয়েছে। খবর বিবিসি অনলাইনের। সবশেষ প্রকাশিত পুলিশের এই তথ্যে আগেই নিশ্চিত করা মৃত ৩০ জনকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। অর্থাৎ বুধবার পশ্চিম লন্ডনের টাওয়ার ব্লকে গ্রেনফেল টাওয়ারের আগুনে ৩০ জনসহ মোট ৫৮ জন মারা গেছেন বলে ধরে নেওয়া হচ্ছে। কমান্ডার স্টুয়ার্ট কান্ডি বলেছেন, মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে এবং ব্যাপক এ উদ্ধারাভিযান শেষ হতে কয়েক সপ্তাহ লেগে যেতে পারে। তিনি বলেন, যত দ্রুত সম্ভব আমরা প্রিয়জনদের শনাক্ত করে উদ্ধার করব। তবে বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, তাদের অনুমান এ ঘটনায় ৭০ জন নিখোঁজ রয়েছেন। কমান্ডার কান্ডি জানিয়েছেন, নিরাপত্তা ঝুঁকির কারণে শুক্রবার উদ্ধারাভিযান স্থগিত রাখা হয়। তবে আবার তা শুরু হয়েছে। ভবনে অগ্নিকাণ্ডসহ সাম্প্রতিক সময়ে যুক্তরাজ্যে ঘটে যাওয়া মর্মান্তিক ঘটনার প্রতিফলন ঘটেছে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের এবারের জন্মদিনের বার্তায়। এদিকে, অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য দেওয়া ত্রাণ নিয়ে তালগোল পাঁকানোয় নিন্দা জানিয়েছেন বাসিন্দারা। কেউ কেউ বলেছেন, ত্রাণ তৎপরতার সঙ্গে কেনসিংটন ও চেলসি কাউন্সিলের যুক্ত হওয়ার দরকার নেই। লন্ডন অগ্নিকাণ্ড নিয়ে এখন লন্ডনবাসীদের মধ্যে অনেক প্রশ্ন। ক্ষোভের উত্তাপ বইয়ে যুক্তরাজ্যজুড়ে। এত বড় দুর্ঘটনা হলো কীভাবে- প্রশ্ন উঠেছে জনমনে। কেউ কেউ দাবি করেছেন, ভবন নির্মাণে দুর্নীতি করা হয়েছে। কেউ অভিযোগ করেছেন, টাওয়ার নির্মাণে বিল্ডিংকোড মানা হয়নি। আবার কারো অভিযোগ, বাজেট ছাঁটার কারণে যেনতেনভাবে ভবনিটি নির্মাণ করা হয়েছে। এতসব অভিযোগের মধ্যে বিক্ষোভরত মানুষের সঙ্গে ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে সরাসরি কথা বলতে চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। শনিবার ভুক্তভোগী পরিবারের স্বজন ও সদস্যদের ডেকেছেন মে।

Comments

Comments!

 লন্ডন অগ্নিকাণ্ডে নিখোঁজ ৫৮ জনের কেউ বেঁচে নেই!AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

লন্ডন অগ্নিকাণ্ডে নিখোঁজ ৫৮ জনের কেউ বেঁচে নেই!

Sunday, June 18, 2017 2:20 am
11

লন্ডনের গ্রেনফেল টাওয়ারের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এখনো নিখোঁজ ৫৮ জন। ধরে নেওয়া হচ্ছে, তারা কেউ বেঁচে নেই।

তবে এত দেরিতে নিখোঁজ ও মৃতদের সংখ্যা প্রকাশ করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা।

শনিবার লন্ডন পুলিশ এ তথ্য জানিয়েছে। খবর বিবিসি অনলাইনের।

সবশেষ প্রকাশিত পুলিশের এই তথ্যে আগেই নিশ্চিত করা মৃত ৩০ জনকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। অর্থাৎ বুধবার পশ্চিম লন্ডনের টাওয়ার ব্লকে গ্রেনফেল টাওয়ারের আগুনে ৩০ জনসহ মোট ৫৮ জন মারা গেছেন বলে ধরে নেওয়া হচ্ছে।

কমান্ডার স্টুয়ার্ট কান্ডি বলেছেন, মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে এবং ব্যাপক এ উদ্ধারাভিযান শেষ হতে কয়েক সপ্তাহ লেগে যেতে পারে। তিনি বলেন, যত দ্রুত সম্ভব আমরা প্রিয়জনদের শনাক্ত করে উদ্ধার করব।

তবে বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, তাদের অনুমান এ ঘটনায় ৭০ জন নিখোঁজ রয়েছেন। কমান্ডার কান্ডি জানিয়েছেন, নিরাপত্তা ঝুঁকির কারণে শুক্রবার উদ্ধারাভিযান স্থগিত রাখা হয়। তবে আবার তা শুরু হয়েছে।

ভবনে অগ্নিকাণ্ডসহ সাম্প্রতিক সময়ে যুক্তরাজ্যে ঘটে যাওয়া মর্মান্তিক ঘটনার প্রতিফলন ঘটেছে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের এবারের জন্মদিনের বার্তায়।

এদিকে, অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য দেওয়া ত্রাণ নিয়ে তালগোল পাঁকানোয় নিন্দা জানিয়েছেন বাসিন্দারা। কেউ কেউ বলেছেন, ত্রাণ তৎপরতার সঙ্গে কেনসিংটন ও চেলসি কাউন্সিলের যুক্ত হওয়ার দরকার নেই।

লন্ডন অগ্নিকাণ্ড নিয়ে এখন লন্ডনবাসীদের মধ্যে অনেক প্রশ্ন। ক্ষোভের উত্তাপ বইয়ে যুক্তরাজ্যজুড়ে। এত বড় দুর্ঘটনা হলো কীভাবে- প্রশ্ন উঠেছে জনমনে। কেউ কেউ দাবি করেছেন, ভবন নির্মাণে দুর্নীতি করা হয়েছে। কেউ অভিযোগ করেছেন, টাওয়ার নির্মাণে বিল্ডিংকোড মানা হয়নি। আবার কারো অভিযোগ, বাজেট ছাঁটার কারণে যেনতেনভাবে ভবনিটি নির্মাণ করা হয়েছে।

এতসব অভিযোগের মধ্যে বিক্ষোভরত মানুষের সঙ্গে ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে সরাসরি কথা বলতে চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে। শনিবার ভুক্তভোগী পরিবারের স্বজন ও সদস্যদের ডেকেছেন মে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X