রবিবার, ১৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৬ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ১২:৫৪
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Tuesday, January 3, 2017 9:54 am
A- A A+ Print

লিটন হত্যা পরিকল্পিত

11

সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যাকাণ্ডের প্লট আগেই তৈরি করা হয়েছে। ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে প্রথমে তাকে হেয় করা হয়েছে। তাই এমপি লিটনের হত্যাকারীদের ধরতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন। লিটনের শোক প্রস্তাব নিয়ে আলোচনার সময় গতকাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রীর আলোচনার পর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু এমপি লিটনের হত্যাকাণ্ড নিয়ে কথা বলেন। তারা বলেন, এমপি মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন কর্তৃক বাচ্চাটিকে গুলি করার ঘটনা ফলাও করে প্রচার করা হয়। কিন্তু ওই সময় লিটন আক্রান্ত হয়েছেন এ বিষয়টি ওইভাবে আসেনি। যে বাচ্চা ছেলেটির গায়ে গুলি লেগেছিল সেই ছেলেটিও এখন অনুতপ্ত। মন্ত্রিসভার সদস্যরা বলেন, এমপিকে হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি পুরোটাই ষড়যন্ত্র। কারণ প্রথমে লিটনকে হেয় করা হয়েছে। এরপর তার বৈধ আর্মস সিজ করানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। সন্ত্রাসীরা যখন জেনেছে তার কাছে বৈধ অস্ত্রটি নেই- তখনই তারা সুযোগ কাজে লাগিয়েছে। মন্ত্রিসভা বৈঠকে এক মন্ত্রী বলেন, সুন্দরগঞ্জে এক সময় চিহ্নিত যুদ্ধাপরাধী গোলাম আযমের যাওয়ার কথা ছিল। গোলাম আযমের সফর একাই ঠেকিয়ে দিয়েছিলেন এমপি লিটন। এ জন্য জামায়াত- শিবির চক্র তার ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে আছে। প্রধানমন্ত্রী লিটন হত্যাকাণ্ডে গভীর শোক প্রকাশ করে বলেন, এমপি লিটনকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে তার বিরুদ্ধে নানা ঘটনা ঘটানো হয়েছে। সন্ত্রাসীদের কোনো ছাড় নয়। এদিকে সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন ও আপিল বিভাগের বিচারপতি বজলুর রহমানের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছে মন্ত্রিসভা। গতকাল মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ শোক প্রকাশ করা হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের বলেন, মন্ত্রিসভা দুটি শোক প্রস্তাব গ্রহণ করেছে। দশম জাতীয় সংসদের সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনের মৃত্যুতে এবং আপিল বিভাগের বিচারপতি বজলুর রহমানের মৃত্যুতে মন্ত্রিসভা শোক প্রস্তাব গ্রহণ করেছে। এর আগে গত ৩১শে ডিসেম্বর সন্ধ্যায় গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য লিটনকে তার সুন্দরগঞ্জের সাহাবাজ গ্রামের বাড়ির বসার ঘরে ঢুকে দুর্বৃত্তরা গুলি করে হত্যা করে। অন্যদিকে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতি বজলুর রহমান গত রোববার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

Comments

Comments!

 লিটন হত্যা পরিকল্পিতAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

লিটন হত্যা পরিকল্পিত

Tuesday, January 3, 2017 9:54 am
11

সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যাকাণ্ডের প্লট আগেই তৈরি করা হয়েছে। ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে প্রথমে তাকে হেয় করা হয়েছে। তাই এমপি লিটনের হত্যাকারীদের ধরতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন। লিটনের শোক প্রস্তাব নিয়ে আলোচনার সময় গতকাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রীর আলোচনার পর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু এমপি লিটনের হত্যাকাণ্ড নিয়ে কথা বলেন। তারা বলেন, এমপি মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন কর্তৃক বাচ্চাটিকে গুলি করার ঘটনা ফলাও করে প্রচার করা হয়। কিন্তু ওই সময় লিটন আক্রান্ত হয়েছেন এ বিষয়টি ওইভাবে আসেনি। যে বাচ্চা ছেলেটির গায়ে গুলি লেগেছিল সেই ছেলেটিও এখন অনুতপ্ত। মন্ত্রিসভার সদস্যরা বলেন, এমপিকে হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি পুরোটাই ষড়যন্ত্র। কারণ প্রথমে লিটনকে হেয় করা হয়েছে। এরপর তার বৈধ আর্মস সিজ করানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। সন্ত্রাসীরা যখন জেনেছে তার কাছে বৈধ অস্ত্রটি নেই- তখনই তারা সুযোগ কাজে লাগিয়েছে। মন্ত্রিসভা বৈঠকে এক মন্ত্রী বলেন, সুন্দরগঞ্জে এক সময় চিহ্নিত যুদ্ধাপরাধী গোলাম আযমের যাওয়ার কথা ছিল। গোলাম আযমের সফর একাই ঠেকিয়ে দিয়েছিলেন এমপি লিটন। এ জন্য জামায়াত- শিবির চক্র তার ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে আছে। প্রধানমন্ত্রী লিটন হত্যাকাণ্ডে গভীর শোক প্রকাশ করে বলেন, এমপি লিটনকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে তার বিরুদ্ধে নানা ঘটনা ঘটানো হয়েছে। সন্ত্রাসীদের কোনো ছাড় নয়। এদিকে সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন ও আপিল বিভাগের বিচারপতি বজলুর রহমানের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছে মন্ত্রিসভা। গতকাল মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ শোক প্রকাশ করা হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের বলেন, মন্ত্রিসভা দুটি শোক প্রস্তাব গ্রহণ করেছে। দশম জাতীয় সংসদের সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনের মৃত্যুতে এবং আপিল বিভাগের বিচারপতি বজলুর রহমানের মৃত্যুতে মন্ত্রিসভা শোক প্রস্তাব গ্রহণ করেছে। এর আগে গত ৩১শে ডিসেম্বর সন্ধ্যায় গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য লিটনকে তার সুন্দরগঞ্জের সাহাবাজ গ্রামের বাড়ির বসার ঘরে ঢুকে দুর্বৃত্তরা গুলি করে হত্যা করে। অন্যদিকে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতি বজলুর রহমান গত রোববার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X