মঙ্গলবার, ২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৮ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৬:০৮
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, September 24, 2017 6:53 pm
A- A A+ Print

লেবার নেতা হিসেবে সাদিক খানকে দেখতে চান বৃটিশ ভোটাররা

9

লন্ডনের প্রথম মুসলিম মেয়র নির্বাচিত হয়ে চমক সৃষ্টি করেছিলেন সাদিক খান। এবার তাকে লেবার দলের নেতা হিসেবে দেখতে চান বৃটিশ ভোটাররা। বর্তমানে লেবার দলের নেতা প্রাজ্ঞ রাজনীতিক জেরেমি করবিন। কিন্তু এক জনমত জরিপে দেখা গেছে, ভোটাররা চাইছেন করবিনের উচিত পদ থেকে সরে যাওয়া। তার পরিবর্তে নেতা বানানো উচিত সাদিক খানকে। হাফিংটন পোস্ট ইউকে’র সহায়তায় বিএমজি এ জরিপ পরিচালনা করেছে। এতে বরা হয়েছে, শতকরা ৫৭ ভাগ মানুষ মনে করেন জেরেমি করবিনের সঙ্গে তুলনা চলে না কারো। তবে পরবর্তীতে লেবার দলের নেতা হিসেবে লন্ডনের মেয়র সাদিক খানই হবেন সেরা প্রার্থী। ১৫০০ ভোটারের ওপর ওই জরিপ চালানো হ৮য়। এর মধ্যে শতকরা ১২ ভাগ এমনটাই মত দিয়েছেন। দ্বিতীয় সেরা প্রার্থী হিসেবে তারা মত দিয়েছেন ম্যানচেস্টারের মেয়র অ্যান্ডি বার্নহ্যামের প্রতি। তবে শতকরা ৩ ভাগ ভোটার মনে করেন লেবার দলের পরবর্তী নেতা হওয়া উচিত একজন নারী। ওদিকে ছায়া চ্যান্সেলর জন ম্যাকডোনেলের প্রতি সমর্থন রয়েছে শতকরা ৩ ভাগ ভোটারের। একই অবস্থা ছায়া ব্রেক্সিট মন্ত্রী কেইর স্টারমার, ছায়া স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী ডায়ানে অ্যাবোট। ছায়া পররাষ্ট্রমন্ত্রী এমিলি থর্ণবারিকে সমর্থন করেছেন শতকরা মাত্র ২ ভাগ ভোটার। এখনও পর্যন্ত লেবার দলে কোনো নারী নেতৃত্ব আসেন নি। তবে শতকরা ৭৯ ভাগ ভোটার মনে করছেন লিঙ্গগত বিষয় বাদ দিয়ে অভিজ্ঞতা বড় ফ্যাক্টর হওয়া উচিত। ওদিকে আগামী সাধারণ নির্বাচনের আগে ভোটাররা আরো বিভক্ত হয়ে পড়তে পারেন। জরিপে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে প্রতি ৫ জনে একজন অর্থাৎ শতকরা ২১ ভাগ মনে করেন ২০১৯ সালে ব্রেক্সিট প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার পর পরই যত দ্রুত সম্ভব নির্বাচন হওয়া উচিত। তবে শতকরা ১৫ ভাগ মানুষ অবিলম্বে আরেকটি ভোট চান। অন্যদিকে ২০২২ সালের আগে আরেকটি ভোট চান না শতকরা ৩৩ ভাগ ভোটার। শতকরা ৪৩ ভাগ মত দিয়েছেন, ব্রেক্সিট সম্পন্ন হওয়ার পর অবাধ চলাচল বন্ধ হওয়া উচিত।

Comments

Comments!

 লেবার নেতা হিসেবে সাদিক খানকে দেখতে চান বৃটিশ ভোটাররাAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

লেবার নেতা হিসেবে সাদিক খানকে দেখতে চান বৃটিশ ভোটাররা

Sunday, September 24, 2017 6:53 pm
9

লন্ডনের প্রথম মুসলিম মেয়র নির্বাচিত হয়ে চমক সৃষ্টি করেছিলেন সাদিক খান। এবার তাকে লেবার দলের নেতা হিসেবে দেখতে চান বৃটিশ ভোটাররা। বর্তমানে লেবার দলের নেতা প্রাজ্ঞ রাজনীতিক জেরেমি করবিন। কিন্তু এক জনমত জরিপে দেখা গেছে, ভোটাররা চাইছেন করবিনের উচিত পদ থেকে সরে যাওয়া। তার পরিবর্তে নেতা বানানো উচিত সাদিক খানকে। হাফিংটন পোস্ট ইউকে’র সহায়তায় বিএমজি এ জরিপ পরিচালনা করেছে। এতে বরা হয়েছে, শতকরা ৫৭ ভাগ মানুষ মনে করেন জেরেমি করবিনের সঙ্গে তুলনা চলে না কারো। তবে পরবর্তীতে লেবার দলের নেতা হিসেবে লন্ডনের মেয়র সাদিক খানই হবেন সেরা প্রার্থী। ১৫০০ ভোটারের ওপর ওই জরিপ চালানো হ৮য়। এর মধ্যে শতকরা ১২ ভাগ এমনটাই মত দিয়েছেন। দ্বিতীয় সেরা প্রার্থী হিসেবে তারা মত দিয়েছেন ম্যানচেস্টারের মেয়র অ্যান্ডি বার্নহ্যামের প্রতি। তবে শতকরা ৩ ভাগ ভোটার মনে করেন লেবার দলের পরবর্তী নেতা হওয়া উচিত একজন নারী। ওদিকে ছায়া চ্যান্সেলর জন ম্যাকডোনেলের প্রতি সমর্থন রয়েছে শতকরা ৩ ভাগ ভোটারের। একই অবস্থা ছায়া ব্রেক্সিট মন্ত্রী কেইর স্টারমার, ছায়া স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী ডায়ানে অ্যাবোট। ছায়া পররাষ্ট্রমন্ত্রী এমিলি থর্ণবারিকে সমর্থন করেছেন শতকরা মাত্র ২ ভাগ ভোটার। এখনও পর্যন্ত লেবার দলে কোনো নারী নেতৃত্ব আসেন নি। তবে শতকরা ৭৯ ভাগ ভোটার মনে করছেন লিঙ্গগত বিষয় বাদ দিয়ে অভিজ্ঞতা বড় ফ্যাক্টর হওয়া উচিত। ওদিকে আগামী সাধারণ নির্বাচনের আগে ভোটাররা আরো বিভক্ত হয়ে পড়তে পারেন। জরিপে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে প্রতি ৫ জনে একজন অর্থাৎ শতকরা ২১ ভাগ মনে করেন ২০১৯ সালে ব্রেক্সিট প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার পর পরই যত দ্রুত সম্ভব নির্বাচন হওয়া উচিত। তবে শতকরা ১৫ ভাগ মানুষ অবিলম্বে আরেকটি ভোট চান। অন্যদিকে ২০২২ সালের আগে আরেকটি ভোট চান না শতকরা ৩৩ ভাগ ভোটার। শতকরা ৪৩ ভাগ মত দিয়েছেন, ব্রেক্সিট সম্পন্ন হওয়ার পর অবাধ চলাচল বন্ধ হওয়া উচিত।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X