শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৯:৪৬
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, June 3, 2017 7:27 pm
A- A A+ Print

শর্ত দিয়েই নাসিরের ৪৭৭

c4a6e9313ea0a5c5a77461a5d62de03c-5932acce8fe2a

এই মৌসুমে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সে খেলার প্রস্তাব পেয়েই শর্তটা জুড়ে দিয়েছিলেন নাসির হোসেন। শর্ত মানলে তিনি সে দলে খেলবেন। নয়তো না। কিন্তু কি ছিল সেই শর্ত? সাত ম্যাচ খেলে দুই সেঞ্চুরি আর তিন ফিফটিসহ করেছেন ৪৭৭ রান। এর ছয় ইনিংসেই অপরাজিত থাকায় গড় ৪৭৭। এবারের প্রিমিয়ার লিগে নিজের চমক জাগানো ব্যাটিংয়ের ব্যাখ্যা দিতে গিয়েই শর্তের কথাটা জানালেন নাসির, “গাজী ট্যাংকের সঙ্গে চুক্তি করার সময় আমি কোচ সালাউদ্দিন স্যারকে বলেছিলাম, ‘স্যার, গাজীতে খেলতে পারি এক শর্তে। আমাকে চার নম্বরে ব্যাট করতে দিতে হবে। নইলে আমি খেলব না।’ স্যার তাতে রাজি হলেন।” আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নাসির মানেই বলের সঙ্গে লড়াইয়ে রানের জয়। জাতীয় দলে সাত-আটে ব্যাট করে তাই ‘ফিনিশার’ নাম কুড়িয়েছেন। কিন্তু সেই শিহরণ জাগানো ব্যাটিং ছেড়ে হঠাৎ কেন চারে চলে আসতে চাইলেন নাসির? উত্তরটা তাঁর মুখেই শুনুন, ‘এর আগে পাঁচ-ছয়ে ব্যাটিং করে প্রিমিয়ার লিগের অনেক ম্যাচে ব্যাটিংই পাইনি। অনেক ম্যাচে সাত-আটেও খেলেছি। আমি নামার আগেই দল জিতে যায় বা খেলা শেষ হয়ে যায়। আর ওই জায়গায় নেমে বড় ইনিংস খেলার সুযোগও থাকে না। সে জন্যই এবার আগে থেকে ঠিক করেছি চারে খেলব।’ লোয়ার মিডল অর্ডারে নেমে লম্বা সময় ব্যাটিংয়ের সুযোগ বেশির ভাগ সময়ই থাকে না। গতবারের প্রিমিয়ার লিগটাও তাই নাসিরকে কাটাতে হয়েছে অতৃপ্তি নিয়ে। চারে ব্যাটিং করায় এবার সেই অতৃপ্তি দূর হয়ে গেছে অনেকটাই, ‘গতবার আমার রানের গড় ছিল ৭৫-এর মতো। চার-পাঁচ ম্যাচে অপরাজিত ছিলাম। তিন-চারটিতে ব্যাটিং করারই সুযোগ পাইনি। এক শ মারতে পারিনি, ৯৭ ছিল সর্বোচ্চ ইনিংস। অথচ চারে নেমে এবার দুটো সেঞ্চুরি করেছি, কয়েকটা ফিফটি করেছি।’ এত চমৎকার পারফরম্যান্সের পরও নাসিরের একটি লক্ষ্য নাকি অপূর্ণই থেকে যাচ্ছে। লক্ষ্য ছিল এবারের লিগে সর্বোচ্চ রান করবেন। অন্তত ৯০০ রান করার স্বপ্ন ছিল তাঁর। কিন্তু মাঝে ইংল্যান্ড-আয়ারল্যান্ড সফরে যাওয়ায় খেলতে পারেননি লিগের সব ম্যাচ। করা হচ্ছে না সর্বোচ্চ রানও। তবে সাত ম্যাচে যা পেয়েছেন নাসির তাতেই সন্তুষ্ট। এখন চাওয়া একটাই—গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের শিরোপা জয়। চার নম্বর ব্যাটসম্যান নাসির হোসেনের সাফল্যের সবচেয়ে বড় স্মারক হবে সেটিই।

Comments

Comments!

 শর্ত দিয়েই নাসিরের ৪৭৭AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

শর্ত দিয়েই নাসিরের ৪৭৭

Saturday, June 3, 2017 7:27 pm
c4a6e9313ea0a5c5a77461a5d62de03c-5932acce8fe2a

এই মৌসুমে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সে খেলার প্রস্তাব পেয়েই শর্তটা জুড়ে দিয়েছিলেন নাসির হোসেন। শর্ত মানলে তিনি সে দলে খেলবেন। নয়তো না। কিন্তু কি ছিল সেই শর্ত?
সাত ম্যাচ খেলে দুই সেঞ্চুরি আর তিন ফিফটিসহ করেছেন ৪৭৭ রান। এর ছয় ইনিংসেই অপরাজিত থাকায় গড় ৪৭৭। এবারের প্রিমিয়ার লিগে নিজের চমক জাগানো ব্যাটিংয়ের ব্যাখ্যা দিতে গিয়েই শর্তের কথাটা জানালেন নাসির, “গাজী ট্যাংকের সঙ্গে চুক্তি করার সময় আমি কোচ সালাউদ্দিন স্যারকে বলেছিলাম, ‘স্যার, গাজীতে খেলতে পারি এক শর্তে। আমাকে চার নম্বরে ব্যাট করতে দিতে হবে। নইলে আমি খেলব না।’ স্যার তাতে রাজি হলেন।”
আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নাসির মানেই বলের সঙ্গে লড়াইয়ে রানের জয়। জাতীয় দলে সাত-আটে ব্যাট করে তাই ‘ফিনিশার’ নাম কুড়িয়েছেন। কিন্তু সেই শিহরণ জাগানো ব্যাটিং ছেড়ে হঠাৎ কেন চারে চলে আসতে চাইলেন নাসির? উত্তরটা তাঁর মুখেই শুনুন, ‘এর আগে পাঁচ-ছয়ে ব্যাটিং করে প্রিমিয়ার লিগের অনেক ম্যাচে ব্যাটিংই পাইনি। অনেক ম্যাচে সাত-আটেও খেলেছি। আমি নামার আগেই দল জিতে যায় বা খেলা শেষ হয়ে যায়। আর ওই জায়গায় নেমে বড় ইনিংস খেলার সুযোগও থাকে না। সে জন্যই এবার আগে থেকে ঠিক করেছি চারে খেলব।’
লোয়ার মিডল অর্ডারে নেমে লম্বা সময় ব্যাটিংয়ের সুযোগ বেশির ভাগ সময়ই থাকে না। গতবারের প্রিমিয়ার লিগটাও তাই নাসিরকে কাটাতে হয়েছে অতৃপ্তি নিয়ে। চারে ব্যাটিং করায় এবার সেই অতৃপ্তি দূর হয়ে গেছে অনেকটাই, ‘গতবার আমার রানের গড় ছিল ৭৫-এর মতো। চার-পাঁচ ম্যাচে অপরাজিত ছিলাম। তিন-চারটিতে ব্যাটিং করারই সুযোগ পাইনি। এক শ মারতে পারিনি, ৯৭ ছিল সর্বোচ্চ ইনিংস। অথচ চারে নেমে এবার দুটো সেঞ্চুরি করেছি, কয়েকটা ফিফটি করেছি।’ এত চমৎকার পারফরম্যান্সের পরও নাসিরের একটি লক্ষ্য নাকি অপূর্ণই থেকে যাচ্ছে। লক্ষ্য ছিল এবারের লিগে সর্বোচ্চ রান করবেন। অন্তত ৯০০ রান করার স্বপ্ন ছিল তাঁর। কিন্তু মাঝে ইংল্যান্ড-আয়ারল্যান্ড সফরে যাওয়ায় খেলতে পারেননি লিগের সব ম্যাচ। করা হচ্ছে না সর্বোচ্চ রানও।
তবে সাত ম্যাচে যা পেয়েছেন নাসির তাতেই সন্তুষ্ট। এখন চাওয়া একটাই—গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের শিরোপা জয়। চার নম্বর ব্যাটসম্যান নাসির হোসেনের সাফল্যের সবচেয়ে বড় স্মারক হবে সেটিই।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X