রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ১০:০৭
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Thursday, December 15, 2016 5:51 pm
A- A A+ Print

শাস্তির ব্যাপারে ভারতীয় খেলোয়াড়দের ছাড় দেয় আইসিসি!

18

মোহালিতে সিরিজের তৃতীয় টেস্টে ঝগড়া লেগেছিল বিরাট কোহলি ও বেন স্টোকসের মধ্যে। সেখানে আইসিসির কাছ থেকে শাস্তি পেলেন স্টোকস। মুম্বাইয়ে পরের টেস্টেও হলো ঝামেলা, এবার জেমস অ্যান্ডারসনের সঙ্গে কথা-কাটাকাটি হলো রবিচন্দ্রন অশ্বিনের। এবারও ডিমেরিট পয়েন্ট পেলেন শুধু ইংল্যান্ড পেসারই। অশ্বিনের সঙ্গে কথা বলেছিলেন ম্যাচ রেফারি, কিন্তু কোনো শাস্তি পেতে হয়নি ভারতীয় স্পিনারকে। এ থেকেই স্টোকসের উপলব্ধি, ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা শৃঙ্খলাজনিত ব্যাপারগুলোতে ভারতের খেলোয়াড়দের সুবিধা দিচ্ছে। সরাসরি কিছু বলেননি, তবে যে সুরে কথা বলেছেন স্টোকস, তাতে বোঝাই যাচ্ছে, আইসিসির এমন ‘একপাক্ষিক’ বিচারে মোটেও খুশি নয় ইংল্যান্ড। খেলোয়াড়ের নাম কী, কিংবা কোন দলে খেলেন—এসব বিবেচনা না করেই শৃঙ্খলাজনিত বিষয়গুলো বিচার করার জন্য বলছেন ইংল্যান্ড অলরাউন্ডার। সাংবাদিকদের স্টোকস বলেছেন, ‘এগুলো (খেলোয়াড়দের কথা-কাটাকাটি) খেলারই অংশ। এগুলোকে কেন দমিয়ে রাখতে চায়, সেটিরই কোনো কারণ খুঁজে পাই না। কিন্তু তা যদি করতেই হয়, তবে সবার জন্য নিয়মটা একই হওয়া উচিত। কিছু নির্দিষ্ট মানুষকে নির্দিষ্ট ব্যাপারে ছেড়ে দেবেন, অন্যদের দেবেন না, এটা হতে পারে না। যদি কোনো একজনের বিচার করেন, অন্যজনেরও করতে হবে। তা তিনি যে-ই হোন বা যে দলেই খেলেন না কেন।’ কথা শুনে মনে হতে পারে, স্টোকসের ইঙ্গিতটা কোহলি ও অশ্বিনের শাস্তি না পাওয়ার দিকে। ইংলিশ অলরাউন্ডারকে জিজ্ঞেসও করেছিলেন সাংবাদিকেরা, কোহলি ও অশ্বিনের ম্যাচ রেফারিরা আগলে রাখছেন কি না। স্টোকস অবশ্য কারও নাম নেননি, ‘আমি জানি না (ম্যাচ রেফারি কোহলিদের আগলে রাখছেন কি না), অত ভাবিও না এসব নিয়ে। তবে যিনিই শৃঙ্খলাজনিত বিষয়গুলো দেখাশোনা করেন, তাঁর উচিত হবে সবার জন্য একই বিচার করা।’ তবে আইসিসিকে বাঁকা কথা শোনালেও কোহলির প্রতি ব্যক্তিগতভাবে স্টোকসের কোনো রাগ নেই। ভারত অধিনায়ককে যথেষ্ট সম্মান করেন তিনি। এ-ও জানালেন, দুজনের যেমন আবেগ, তাতে মাঠে এমন কথা-কাটাকাটিও আরও হতে পারে, ‘আমরা দুজনই অনেক প্রতিযোগিতামূলক মনোভাবের, আবেগের প্রকাশও অনেক বেশি করি। এটাই সম্ভবত শেষবার নয়, এমন কিছুতে আরও জড়িয়ে পড়তে পারি আমরা। তবে ব্যক্তিগতভাবে কোনো রাগ নেই। ও সময়ের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান। এটা আপনাকে মেনে নিতেই হবে, খেলোয়াড় হিসেবেও ওকে অনেক সম্মান করতে হবে।’ সূত্র : গার্ডিয়ান।

Comments

Comments!

 শাস্তির ব্যাপারে ভারতীয় খেলোয়াড়দের ছাড় দেয় আইসিসি!AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

শাস্তির ব্যাপারে ভারতীয় খেলোয়াড়দের ছাড় দেয় আইসিসি!

Thursday, December 15, 2016 5:51 pm
18

মোহালিতে সিরিজের তৃতীয় টেস্টে ঝগড়া লেগেছিল বিরাট কোহলি ও বেন স্টোকসের মধ্যে। সেখানে আইসিসির কাছ থেকে শাস্তি পেলেন স্টোকস। মুম্বাইয়ে পরের টেস্টেও হলো ঝামেলা, এবার জেমস অ্যান্ডারসনের সঙ্গে কথা-কাটাকাটি হলো রবিচন্দ্রন অশ্বিনের। এবারও ডিমেরিট পয়েন্ট পেলেন শুধু ইংল্যান্ড পেসারই। অশ্বিনের সঙ্গে কথা বলেছিলেন ম্যাচ রেফারি, কিন্তু কোনো শাস্তি পেতে হয়নি ভারতীয় স্পিনারকে।

এ থেকেই স্টোকসের উপলব্ধি, ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা শৃঙ্খলাজনিত ব্যাপারগুলোতে ভারতের খেলোয়াড়দের সুবিধা দিচ্ছে। সরাসরি কিছু বলেননি, তবে যে সুরে কথা বলেছেন স্টোকস, তাতে বোঝাই যাচ্ছে, আইসিসির এমন ‘একপাক্ষিক’ বিচারে মোটেও খুশি নয় ইংল্যান্ড। খেলোয়াড়ের নাম কী, কিংবা কোন দলে খেলেন—এসব বিবেচনা না করেই শৃঙ্খলাজনিত বিষয়গুলো বিচার করার জন্য বলছেন ইংল্যান্ড অলরাউন্ডার।
সাংবাদিকদের স্টোকস বলেছেন, ‘এগুলো (খেলোয়াড়দের কথা-কাটাকাটি) খেলারই অংশ। এগুলোকে কেন দমিয়ে রাখতে চায়, সেটিরই কোনো কারণ খুঁজে পাই না। কিন্তু তা যদি করতেই হয়, তবে সবার জন্য নিয়মটা একই হওয়া উচিত। কিছু নির্দিষ্ট মানুষকে নির্দিষ্ট ব্যাপারে ছেড়ে দেবেন, অন্যদের দেবেন না, এটা হতে পারে না। যদি কোনো একজনের বিচার করেন, অন্যজনেরও করতে হবে। তা তিনি যে-ই হোন বা যে দলেই খেলেন না কেন।’
কথা শুনে মনে হতে পারে, স্টোকসের ইঙ্গিতটা কোহলি ও অশ্বিনের শাস্তি না পাওয়ার দিকে। ইংলিশ অলরাউন্ডারকে জিজ্ঞেসও করেছিলেন সাংবাদিকেরা, কোহলি ও অশ্বিনের ম্যাচ রেফারিরা আগলে রাখছেন কি না। স্টোকস অবশ্য কারও নাম নেননি, ‘আমি জানি না (ম্যাচ রেফারি কোহলিদের আগলে রাখছেন কি না), অত ভাবিও না এসব নিয়ে। তবে যিনিই শৃঙ্খলাজনিত বিষয়গুলো দেখাশোনা করেন, তাঁর উচিত হবে সবার জন্য একই বিচার করা।’
তবে আইসিসিকে বাঁকা কথা শোনালেও কোহলির প্রতি ব্যক্তিগতভাবে স্টোকসের কোনো রাগ নেই। ভারত অধিনায়ককে যথেষ্ট সম্মান করেন তিনি। এ-ও জানালেন, দুজনের যেমন আবেগ, তাতে মাঠে এমন কথা-কাটাকাটিও আরও হতে পারে, ‘আমরা দুজনই অনেক প্রতিযোগিতামূলক মনোভাবের, আবেগের প্রকাশও অনেক বেশি করি। এটাই সম্ভবত শেষবার নয়, এমন কিছুতে আরও জড়িয়ে পড়তে পারি আমরা। তবে ব্যক্তিগতভাবে কোনো রাগ নেই। ও সময়ের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান। এটা আপনাকে মেনে নিতেই হবে, খেলোয়াড় হিসেবেও ওকে অনেক সম্মান করতে হবে।’ সূত্র : গার্ডিয়ান।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X