বুধবার, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৯ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ভোর ৫:৩৬
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, June 4, 2017 11:41 pm
A- A A+ Print

শেখ হাসিনা যদি বাংলাদেশে আরেকটি ৫ জানুয়ারির নির্বাচন করতে পারেন তাহলে বাংলাদশের পতাকাও চলে যাবে : মাহমুদুর রহমান

download

ঢাকা: আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমান বলেছেন, ‘এদেশে নির্বাচন হবে কী হবে না, এদেশে কোনও দখলদার প্রধানমন্ত্রী ক্ষমতায় থাকবে কী থাকবে না, সেটা নির্ধারণ কোথায় হয়? নির্ধারণ হয় দিল্লিতে। যার প্রমাণ ২০১৪ সালে যখন নির্বাচন হবে কী হবে না তা নিয়ে বিতর্ক চলছিল তখন আমি জেলে বসে দেখলাম মুহূর্তে ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত বারেবারে দিল্লি ছুটে যাচ্ছেন, কেন?’ রবিবার দুপুরে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ৩৬তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবকদল এ আলোচনা সভার আয়োজন করে। মাহমুদুর রহমান বলেন,‘বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদের বিরূপতার পাশে দাঁড়িয়ে আছে বাঙালি জাতীয়তাবাদ। কিন্তু বাঙালি জাতীয়তাবাদের লক্ষ্যটা হচ্ছে ভারতীয় সম্প্রসারণবাদের কাছে নতি স্বীকার করা। ভারতের দিকে তাকিয়ে থাকা এবং আমাদের সংস্কৃতির জন্য কলকাতামুখী হওয়া। অথচ এটা আধিপত্যবাদ, এটাই আগ্রাসন। আর তাই শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান সেই আগ্রাসন থেকে সমগ্র জাতিকে মুক্ত করতে দিয়েছেন বাংলাদেশের জাতীয়তাবাদ।’ উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে মাহমুদুর রহমান বলেন, ‘আপনারা যদি দিল্লির কোনো কলোনির লোক না হতে চান তাহলে জিয়াউর রহমানের বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদকে ধারণ করুন। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে রাজপথে নামুন। দিল্লির দাসত্বে যে সরকার ক্ষমতায় আছে সেই সরকারকে উৎখাত করে দিন। তবেই বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র ফেরত আসবে। আর যদি সেটা করতে না পারেন, তাহলে গণতন্ত্র, স্বাধীনতা তো চলে গেছে। শেখ হাসিনা যদি বাংলাদেশে আরেকটি ৫ জানুয়ারির নির্বাচন করতে পারেন তাহলে বাংলাদশের পতাকাও চলে যাবে।’ তিনি বলেন, ‘স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব, মানবাধিকার এবং আমাদের পতাকা, যে পতাকা অর্জন করতে ৩০ লাখ লোক শহীদ হয়েছেন। সেই পতাকা ধরে রাখতে অবশ্যই দখলদার সরকারকে উৎখাত করতে হবে। দিল্লির সম্প্রসারণবাদ থেকে দেশকে মুক্ত করতে হবে। আর এজন্য সর্বদা প্রস্তুত থাকতে হবে। জেল-জুলুম দূরে রেখে বুলেট মোকাবিলা করার শক্তি সাহস নিয়ে রাজপথে থাকতে হবে।’ মাহমুদুর রহমান এও বলেন,শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে ৫ জানুয়ারির মতো আর কোনো প্রহসনের নির্বাচন হলে দেশ থেকে বাংলাদেশের পতাকাও হাতছাড়া হয়ে যাবে। ফলে এবার শক্ত প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। আগামীদিনে জিয়াউর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে এক মাস ব্যাপী আলোচনা সভার আয়োজন এবং প্রতিদিন জিয়াউর রহমানের একেকটি অবদানের বিষয় তুলে ধরতে হবে। এবং সর্বশেষ দিন রাজধানীতে একটি জনসভা হবে আর সেই জনসভার জন্য কারও অনুমতির তোয়াক্কা করা হবে না বলেও বিএনপিকে প্রস্তাব দেন। সংগঠনের সভাপতি শফিউল বারী বাবু’র সভাপতিত্বে বক্তব্য দন- বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও নগর বিএনপি (দক্ষিণ) সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল, নগর বিএনপি (উত্তর) সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্লাহ হাসান, বিএনপির স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা মোস্তাফিজুর রহমান, সাইফুল ইসলাম ফিরোজ, সাদরুজ্জামান, ফখরুল ইসলাম রবিন, এস এম জিলানী, গাজী রেজওয়ানুল হক রিয়াজ, নজরুল ইসলাম, রফিক হাওলাদার, আওলাদ হোসেন উজ্জ্বল, জাহিদ হোসেন এবং জাতীয় প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবদাল আহমেদ প্রমুখ।

Comments

Comments!

 শেখ হাসিনা যদি বাংলাদেশে আরেকটি ৫ জানুয়ারির নির্বাচন করতে পারেন তাহলে বাংলাদশের পতাকাও চলে যাবে : মাহমুদুর রহমানAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

শেখ হাসিনা যদি বাংলাদেশে আরেকটি ৫ জানুয়ারির নির্বাচন করতে পারেন তাহলে বাংলাদশের পতাকাও চলে যাবে : মাহমুদুর রহমান

Sunday, June 4, 2017 11:41 pm
download

ঢাকা: আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমান বলেছেন, ‘এদেশে নির্বাচন হবে কী হবে না, এদেশে কোনও দখলদার প্রধানমন্ত্রী ক্ষমতায় থাকবে কী থাকবে না, সেটা নির্ধারণ কোথায় হয়? নির্ধারণ হয় দিল্লিতে। যার প্রমাণ ২০১৪ সালে যখন নির্বাচন হবে কী হবে না তা নিয়ে বিতর্ক চলছিল তখন আমি জেলে বসে দেখলাম মুহূর্তে ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত বারেবারে দিল্লি ছুটে যাচ্ছেন, কেন?’

রবিবার দুপুরে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ৩৬তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবকদল এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

মাহমুদুর রহমান বলেন,‘বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদের বিরূপতার পাশে দাঁড়িয়ে আছে বাঙালি জাতীয়তাবাদ। কিন্তু বাঙালি জাতীয়তাবাদের লক্ষ্যটা হচ্ছে ভারতীয় সম্প্রসারণবাদের কাছে নতি স্বীকার করা। ভারতের দিকে তাকিয়ে থাকা এবং আমাদের সংস্কৃতির জন্য কলকাতামুখী হওয়া। অথচ এটা আধিপত্যবাদ, এটাই আগ্রাসন। আর তাই শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান সেই আগ্রাসন থেকে সমগ্র জাতিকে মুক্ত করতে দিয়েছেন বাংলাদেশের জাতীয়তাবাদ।’

উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে মাহমুদুর রহমান বলেন, ‘আপনারা যদি দিল্লির কোনো কলোনির লোক না হতে চান তাহলে জিয়াউর রহমানের বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদকে ধারণ করুন। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে রাজপথে নামুন। দিল্লির দাসত্বে যে সরকার ক্ষমতায় আছে সেই সরকারকে উৎখাত করে দিন। তবেই বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র ফেরত আসবে। আর যদি সেটা করতে না পারেন, তাহলে গণতন্ত্র, স্বাধীনতা তো চলে গেছে। শেখ হাসিনা যদি বাংলাদেশে আরেকটি ৫ জানুয়ারির নির্বাচন করতে পারেন তাহলে বাংলাদশের পতাকাও চলে যাবে।’

তিনি বলেন, ‘স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব, মানবাধিকার এবং আমাদের পতাকা, যে পতাকা অর্জন করতে ৩০ লাখ লোক শহীদ হয়েছেন। সেই পতাকা ধরে রাখতে অবশ্যই দখলদার সরকারকে উৎখাত করতে হবে। দিল্লির সম্প্রসারণবাদ থেকে দেশকে মুক্ত করতে হবে। আর এজন্য সর্বদা প্রস্তুত থাকতে হবে। জেল-জুলুম দূরে রেখে বুলেট মোকাবিলা করার শক্তি সাহস নিয়ে রাজপথে থাকতে হবে।’

মাহমুদুর রহমান এও বলেন,শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে ৫ জানুয়ারির মতো আর কোনো প্রহসনের নির্বাচন হলে দেশ থেকে বাংলাদেশের পতাকাও হাতছাড়া হয়ে যাবে। ফলে এবার শক্ত প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

আগামীদিনে জিয়াউর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে এক মাস ব্যাপী আলোচনা সভার আয়োজন এবং প্রতিদিন জিয়াউর রহমানের একেকটি অবদানের বিষয় তুলে ধরতে হবে। এবং সর্বশেষ দিন রাজধানীতে একটি জনসভা হবে আর সেই জনসভার জন্য কারও অনুমতির তোয়াক্কা করা হবে না বলেও বিএনপিকে প্রস্তাব দেন।

সংগঠনের সভাপতি শফিউল বারী বাবু’র সভাপতিত্বে বক্তব্য দন- বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও নগর বিএনপি (দক্ষিণ) সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল, নগর বিএনপি (উত্তর) সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্লাহ হাসান, বিএনপির স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা মোস্তাফিজুর রহমান, সাইফুল ইসলাম ফিরোজ, সাদরুজ্জামান, ফখরুল ইসলাম রবিন, এস এম জিলানী, গাজী রেজওয়ানুল হক রিয়াজ, নজরুল ইসলাম, রফিক হাওলাদার, আওলাদ হোসেন উজ্জ্বল, জাহিদ হোসেন এবং জাতীয় প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবদাল আহমেদ প্রমুখ।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X