মঙ্গলবার, ২০শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৮ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ১১:২১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Wednesday, September 7, 2016 8:58 am
A- A A+ Print

সঞ্জয়ের প্রথম স্ত্রীর আবেগঘন শেষ চিঠি

Sanjay-Dutt_top1473214052

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা সঞ্জয় দত্ত। ১৯৮৭ সালে প্রথম অভিনেত্রী রিচা শর্মার সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি। আশির দশকে মাদকাসক্ত হয়ে পড়েছিলেন সঞ্জয় দত্ত। এ অবস্থা থেকে সঞ্জয়কে বের হয়ে আসতে স্ত্রী রিচার অনেক অবদান ছিল। রিচা-সঞ্জয়ের বিয়ের এক বছরের মাথায় জন্ম হয় কন্যা ত্রিশলার। কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিহাস- কারণ বিয়ের দুই বছরের মাথায় রিচার ব্রেইন টিউমার ধরা পড়ে। অনেক চেষ্টা করেও রিচাকে বাঁচাতে পারেনি সঞ্জয়। ১৯৯৬ সালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন রিচা। তারপর কেটে গেছে অনেকটা সময়। মেয়েকে বুকে আগলে রেখে বড় করেছেন সঞ্জয় দত্ত। সম্প্রতি সঞ্জয়ের কন্যা ত্রিশলা তার মায়ের লেখা শেষ চিঠি প্রকাশ করেছেন। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, ত্রিশলা কিছুদিন আগে খুঁজে পেয়েছেন তার মায়ের লিখে যাওয়া একটি নোট। মৃত্যুর আগে এটিই রিচার লেখা শেষ চিঠি বলে জানিয়েছেন ত্রিশলা। সম্প্রতি এই চিঠি নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে শেয়ার করেছেন তিনি।   letter   মৃত্যুশয্যায় রিচা তার চিঠিতে লিখেছেন- ‘আমরা প্রত্যেকেই নিজের নিজের পথে নিজের নিজের লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে যাই। আমিও তেমনটাই এগোচ্ছিলাম। কিন্তু দেখা যাচ্ছে- আমার পথটি একটি কানাগলি মাত্র। কীভাবে আমি ফিরে যাব?  আমি কি আরো একটি সুযোগ পাব?  তা সময়ই বলবে। আমি দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে প্রস্তুত রয়েছি। কারণ মনের গভীরে আমার এই বিশ্বাস রয়েছে যে, আমাকে কেউ একা ফেলে চলে যাবে না। এখনও আমি হতাশ নই। আমি জানি, আমার হিতকারী দেবদূত আমাকে আমার স্বপ্নের কাছে পৌঁছে দেবে। আমার স্বপ্নেরা স্নেহময় আলিঙ্গনে আমাকে জড়িয়ে ধরবে।’ বেঁচে থাকার প্রবল ইচ্ছে ছিল রিচা শর্মার। মানসিকভাবেও ছিলেন অনেক শক্ত। পরিবারের প্রতি তার আনুগত্যও ছিল। তা প্রকাশিত এ চিঠি থেকে স্পষ্ট। মায়ের লেখা এ চিঠি প্রসঙ্গে ত্রিশলা লিখেছেন, ‘এতদিনে বুঝতে পারলাম- ভালো লিখতে পারার যে সহজাত দক্ষতা আমার মধ্যে রয়েছে, তা আসলে আমার মায়ের সূত্রে পাওয়া।’

Comments

Comments!

 সঞ্জয়ের প্রথম স্ত্রীর আবেগঘন শেষ চিঠিAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

সঞ্জয়ের প্রথম স্ত্রীর আবেগঘন শেষ চিঠি

Wednesday, September 7, 2016 8:58 am
Sanjay-Dutt_top1473214052

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা সঞ্জয় দত্ত। ১৯৮৭ সালে প্রথম অভিনেত্রী রিচা শর্মার সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি। আশির দশকে মাদকাসক্ত হয়ে পড়েছিলেন সঞ্জয় দত্ত। এ অবস্থা থেকে সঞ্জয়কে বের হয়ে আসতে স্ত্রী রিচার অনেক অবদান ছিল।

রিচা-সঞ্জয়ের বিয়ের এক বছরের মাথায় জন্ম হয় কন্যা ত্রিশলার। কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিহাস- কারণ বিয়ের দুই বছরের মাথায় রিচার ব্রেইন টিউমার ধরা পড়ে। অনেক চেষ্টা করেও রিচাকে বাঁচাতে পারেনি সঞ্জয়। ১৯৯৬ সালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন রিচা।

তারপর কেটে গেছে অনেকটা সময়। মেয়েকে বুকে আগলে রেখে বড় করেছেন সঞ্জয় দত্ত। সম্প্রতি সঞ্জয়ের কন্যা ত্রিশলা তার মায়ের লেখা শেষ চিঠি প্রকাশ করেছেন। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, ত্রিশলা কিছুদিন আগে খুঁজে পেয়েছেন তার মায়ের লিখে যাওয়া একটি নোট। মৃত্যুর আগে এটিই রিচার লেখা শেষ চিঠি বলে জানিয়েছেন ত্রিশলা। সম্প্রতি এই চিঠি নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে শেয়ার করেছেন তিনি।

 

letter

 

মৃত্যুশয্যায় রিচা তার চিঠিতে লিখেছেন- ‘আমরা প্রত্যেকেই নিজের নিজের পথে নিজের নিজের লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে যাই। আমিও তেমনটাই এগোচ্ছিলাম। কিন্তু দেখা যাচ্ছে- আমার পথটি একটি কানাগলি মাত্র। কীভাবে আমি ফিরে যাব?  আমি কি আরো একটি সুযোগ পাব?  তা সময়ই বলবে। আমি দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে প্রস্তুত রয়েছি। কারণ মনের গভীরে আমার এই বিশ্বাস রয়েছে যে, আমাকে কেউ একা ফেলে চলে যাবে না। এখনও আমি হতাশ নই। আমি জানি, আমার হিতকারী দেবদূত আমাকে আমার স্বপ্নের কাছে পৌঁছে দেবে। আমার স্বপ্নেরা স্নেহময় আলিঙ্গনে আমাকে জড়িয়ে ধরবে।’

বেঁচে থাকার প্রবল ইচ্ছে ছিল রিচা শর্মার। মানসিকভাবেও ছিলেন অনেক শক্ত। পরিবারের প্রতি তার আনুগত্যও ছিল। তা প্রকাশিত এ চিঠি থেকে স্পষ্ট। মায়ের লেখা এ চিঠি প্রসঙ্গে ত্রিশলা লিখেছেন, ‘এতদিনে বুঝতে পারলাম- ভালো লিখতে পারার যে সহজাত দক্ষতা আমার মধ্যে রয়েছে, তা আসলে আমার মায়ের সূত্রে পাওয়া।’

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X