সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৪ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৯:৩৫
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Wednesday, October 26, 2016 1:15 pm
A- A A+ Print

সন্ত্রাসী সংগঠনের সঙ্গে জড়িত অভিযোগে তুরস্কে নারী মেয়র গ্রেপ্তার

157687_1

আঙ্কারা: সন্ত্রাসী সংগঠনের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে দক্ষিণপূর্ব তুরস্কের বৃহত্তম শহর ‘দিয়ারবাকিরের’ মেয়র গুলটেন কিসানাককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে শহরের বিমানবন্দর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাকে দিয়ারবাকিরের নিরাপত্তা অধিদপ্তরের পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। স্থানীয় একজন নিরাপত্তা কর্মকর্তা এ তথ্য নিশ্চিত করেন। গুলটেন কিসানাক দেশটির ‘পীস এনড ডেমোক্র্যাটিক’ পার্টির একজন সদস্য। মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলায় সীমাবদ্ধতার কারণে নাম না প্রকাশের শর্তে একজন কর্মকর্তা জানান, পিকেকে সন্ত্রাসবাদ তদন্তের অংশ হিসাবে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, একই তদন্তের অংশ হিসেবে ফিরাত আনলি নামে স্থানীয় আরেকজন নির্বাচিত ব্যক্তিকে তার বাড়িতে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের উভয়কেই নিরাপত্তা অধিদপ্তর প্রাঙ্গণে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ২০১৪ সালের মার্চ শহরের প্রথম নারী মেয়র হওয়ার আগে কিসানাক ২০০৭ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত দিয়ারবারিক প্রদেশের উপ-সংসদীয় দায়িত্বে ছিলেন। এদিকে, দিয়ারবারিকের প্রধান প্রসিকিউটর কার্যালয় থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, সশস্ত্র একটি সন্ত্রাসী গ্রুপের সদস্য হওয়ায় বুধবার ভোরে মেয়রকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ‘পিকেকে’ কয়েক দশকের পুরনো সশস্ত্র অভিযান পুনরায় শুরু করলে গত বছরের জুলাইয়ে তুরস্ক, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন সংগঠনটিকে একটি সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে তালিকাভুক্ত করে। এপর্যন্ত পিকেকে সন্ত্রাসীদের হামলার ৭ শতাধিকেরও বেশি নিরাপত্তা কর্মী নিহত হয়েছে এবং নারী ও শিশুসহ অনেক বেসামরিক মানুষকে তারা হত্যা করেছে। অন্যদিকে তুরস্কের সামরিক অভিযানে ৮ হাজারে অধিক পিকেকে সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে।

Comments

Comments!

 সন্ত্রাসী সংগঠনের সঙ্গে জড়িত অভিযোগে তুরস্কে নারী মেয়র গ্রেপ্তারAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

সন্ত্রাসী সংগঠনের সঙ্গে জড়িত অভিযোগে তুরস্কে নারী মেয়র গ্রেপ্তার

Wednesday, October 26, 2016 1:15 pm
157687_1

আঙ্কারা: সন্ত্রাসী সংগঠনের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে দক্ষিণপূর্ব তুরস্কের বৃহত্তম শহর ‘দিয়ারবাকিরের’ মেয়র গুলটেন কিসানাককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে শহরের বিমানবন্দর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাকে দিয়ারবাকিরের নিরাপত্তা অধিদপ্তরের পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। স্থানীয় একজন নিরাপত্তা কর্মকর্তা এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

গুলটেন কিসানাক দেশটির ‘পীস এনড ডেমোক্র্যাটিক’ পার্টির একজন সদস্য।

মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলায় সীমাবদ্ধতার কারণে নাম না প্রকাশের শর্তে একজন কর্মকর্তা জানান, পিকেকে সন্ত্রাসবাদ তদন্তের অংশ হিসাবে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, একই তদন্তের অংশ হিসেবে ফিরাত আনলি নামে স্থানীয় আরেকজন নির্বাচিত ব্যক্তিকে তার বাড়িতে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের উভয়কেই নিরাপত্তা অধিদপ্তর প্রাঙ্গণে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

২০১৪ সালের মার্চ শহরের প্রথম নারী মেয়র হওয়ার আগে কিসানাক ২০০৭ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত দিয়ারবারিক প্রদেশের উপ-সংসদীয় দায়িত্বে ছিলেন।

এদিকে, দিয়ারবারিকের প্রধান প্রসিকিউটর কার্যালয় থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, সশস্ত্র একটি সন্ত্রাসী গ্রুপের সদস্য হওয়ায় বুধবার ভোরে মেয়রকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

‘পিকেকে’ কয়েক দশকের পুরনো সশস্ত্র অভিযান পুনরায় শুরু করলে গত বছরের জুলাইয়ে তুরস্ক, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন সংগঠনটিকে একটি সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে তালিকাভুক্ত করে।

এপর্যন্ত পিকেকে সন্ত্রাসীদের হামলার ৭ শতাধিকেরও বেশি নিরাপত্তা কর্মী নিহত হয়েছে এবং নারী ও শিশুসহ অনেক বেসামরিক মানুষকে তারা হত্যা করেছে। অন্যদিকে তুরস্কের সামরিক অভিযানে ৮ হাজারে অধিক পিকেকে সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X