সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১১:৫৫
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Monday, September 5, 2016 12:23 am
A- A A+ Print

‘সব লিখতে’ ভয় পাচ্ছেন খোদ মুজিববাদী সাংবাদিক!

778

বাংলাদেশে এখন মতপ্রকাশের ক্ষেত্রে দমবন্ধ করা পরিবেশ বিরাজ করছে। সরকারের অসংখ্য অপকর্মের কোনো কিছু নিয়েই কিছু বলা বা লেখার সুযোগ নেই। যে লিখছেন তাকেই মামলা বা জেল বরণ করতে হচ্ছে। ক্ষেত্রবিশেষে জীবনও হুমকিতে পড়ছে। এমতবাস্থায় সরকারপন্থী সাংবাদিক ও সংবাদমাধ্যমগুলোর পোয়াবারো হয়েছে। তারা ইচ্ছামত সরকারের পদলেহনে ব্যস্ত হতে পেরেছেন। তবে সংবাদমাধ্যমের ব্যবসা নির্ভর করে পাঠকপ্রিয়তার উপর। আর পাঠকপ্রিয়তা নির্ভর করে সত্য প্রকাশ ও ক্ষমতাসীনদের অপকর্মকে কোনো সংবাদমাধ্যম কতটা তুলে ধরছে তার উপর। বর্তমানে বিশ্বব্যাপী সামাজিক মাধ্যমের ব্যবহারের কারণে সংবাদমাধ্যমের বাইরে থেকেও নানা তথ্য পেয়ে সচেতন হচ্ছেন সাধারণ পাঠকরা। এতে সমস্যা হয়েছে সরকারের সুবিধাভোগী সাংবাদিক ও সংবাদমাধ্যমের। সরকারের প্রতি রোমান্স থাকার কারণে বা কোনো ক্ষেত্রে ভয় থাকার কারণে সত্য প্রকাশ করতে পারছেন না। আবার বিকল্প মাধ্যমে সত্য প্রকাশিত হয়ে পড়ায় পাঠকের কাছে তাদের গ্রহণযোগ্যতা ধরে রাখা কঠিন হয়ে পড়ছে। এমন উভয় সংকটে পড়া বাংলাদেশী সরকাপন্থী সাংবাদিকদের কেউ কেউ হাশফাশ করছেন! তাদেরই একজন একটি অনলাইনের সম্পাদক ও সরকারপন্থী বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার সাবেক নির্বাহী সম্পাদক পীর হাবীব। তিনি নিজেকে একজন ‘মুজিববাদী’ হিসেবে পরিচয় দিতে গর্ববোধ করেন। সেই পীর হাবীব গত ৩১ আগস্ট তার ফেসবুকে লিখেছেন- “দম বন্ধ বন্ধ লাগে! যা দেখি,যা ঘটে না পারি বলতে, না পারি লিখতে! নির্বোধ নই,নির্জীব নই।দহন আর দহন!ক্ষয়ে যায় এভাবেই জীবন!” ২ সেপ্টেম্বর তিনি আরো লিখেছেন, আজকাল মাঝে মধ্যে খুব ইচ্ছে করে সাংবাদিকতায় সাময়িক হলেও বিরতি দেই।গনমানুষ নয় দলবাজিতেই ডুবছে গনমাধ্যম।আর কিছু করিনি,আর কিছু শিখিওনি! একজন মুজিববাদী সাংবাদিকের পত্রিকার ব্যবসা টিকিয়ে রাখতে এমন আক্ষেপই বলে দেয় বর্তমান বাংলাদেশের বিরোধী মত প্রকাশের বা সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতার চিত্রটা আসলে কী?

Comments

Comments!

 ‘সব লিখতে’ ভয় পাচ্ছেন খোদ মুজিববাদী সাংবাদিক!AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

‘সব লিখতে’ ভয় পাচ্ছেন খোদ মুজিববাদী সাংবাদিক!

Monday, September 5, 2016 12:23 am
778

বাংলাদেশে এখন মতপ্রকাশের ক্ষেত্রে দমবন্ধ করা পরিবেশ বিরাজ করছে। সরকারের অসংখ্য অপকর্মের কোনো কিছু নিয়েই কিছু বলা বা লেখার সুযোগ নেই। যে লিখছেন তাকেই মামলা বা জেল বরণ করতে হচ্ছে। ক্ষেত্রবিশেষে জীবনও হুমকিতে পড়ছে।

এমতবাস্থায় সরকারপন্থী সাংবাদিক ও সংবাদমাধ্যমগুলোর পোয়াবারো হয়েছে। তারা ইচ্ছামত সরকারের পদলেহনে ব্যস্ত হতে পেরেছেন।

তবে সংবাদমাধ্যমের ব্যবসা নির্ভর করে পাঠকপ্রিয়তার উপর। আর পাঠকপ্রিয়তা নির্ভর করে সত্য প্রকাশ ও ক্ষমতাসীনদের অপকর্মকে কোনো সংবাদমাধ্যম কতটা তুলে ধরছে তার উপর। বর্তমানে বিশ্বব্যাপী সামাজিক মাধ্যমের ব্যবহারের কারণে সংবাদমাধ্যমের বাইরে থেকেও নানা তথ্য পেয়ে সচেতন হচ্ছেন সাধারণ পাঠকরা।

এতে সমস্যা হয়েছে সরকারের সুবিধাভোগী সাংবাদিক ও সংবাদমাধ্যমের। সরকারের প্রতি রোমান্স থাকার কারণে বা কোনো ক্ষেত্রে ভয় থাকার কারণে সত্য প্রকাশ করতে পারছেন না। আবার বিকল্প মাধ্যমে সত্য প্রকাশিত হয়ে পড়ায় পাঠকের কাছে তাদের গ্রহণযোগ্যতা ধরে রাখা কঠিন হয়ে পড়ছে।

এমন উভয় সংকটে পড়া বাংলাদেশী সরকাপন্থী সাংবাদিকদের কেউ কেউ হাশফাশ করছেন! তাদেরই একজন একটি অনলাইনের সম্পাদক ও সরকারপন্থী বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার সাবেক নির্বাহী সম্পাদক পীর হাবীব।

তিনি নিজেকে একজন ‘মুজিববাদী’ হিসেবে পরিচয় দিতে গর্ববোধ করেন। সেই পীর হাবীব গত ৩১ আগস্ট তার ফেসবুকে লিখেছেন- “দম বন্ধ বন্ধ লাগে! যা দেখি,যা ঘটে না পারি বলতে, না পারি লিখতে! নির্বোধ নই,নির্জীব নই।দহন আর দহন!ক্ষয়ে যায় এভাবেই জীবন!”

২ সেপ্টেম্বর তিনি আরো লিখেছেন,

আজকাল মাঝে মধ্যে খুব ইচ্ছে করে সাংবাদিকতায় সাময়িক হলেও বিরতি দেই।গনমানুষ নয় দলবাজিতেই ডুবছে গনমাধ্যম।আর কিছু করিনি,আর কিছু শিখিওনি!

একজন মুজিববাদী সাংবাদিকের পত্রিকার ব্যবসা টিকিয়ে রাখতে এমন আক্ষেপই বলে দেয় বর্তমান বাংলাদেশের বিরোধী মত প্রকাশের বা সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতার চিত্রটা আসলে কী?

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X