রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৯:৪৬
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Monday, July 25, 2016 9:50 pm
A- A A+ Print

সরকারি দলের এমপিরা তথ্যমন্ত্রী ইনুকে সংসদে ক্ষমা চাইতে বাধ্য করলেন

37_136173

এমপিদের তোপের মুখে অবশেষে সংসদে ক্ষমা চাইতে বাধ্য হলেন তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু। এমপিদের ‘চোর’ বলে তুমুল সমালোচনার মধ্যে সোমবার সন্ধ্যায় সংসদ অধিবেশনে ক্ষমা প্রার্থনা করেন তিনি। দুপুরে মন্ত্রিসভায় সমালোচনার পর সন্ধ্যায় সংসদ অধিবেশনেও এমপিদের তোপের মুখে পড়েন জাসদ সভাপতি ইনু। এ সময় তিনি নিজের বক্তব্যের জন্য দুঃখ প্রকাশ করলে সংসদ সদস্যরা তাতে সম্মত না হয়ে ক্ষমা চাওয়ার দাবি তোলেন। তখন তথ্যমন্ত্রী বলেন, “আমি মনে করি গণমাধ্যমে আমার বরাত দিয়ে যে বক্তব্য এসেছে, সেজন্য আমি ক্ষমা চাইছি, আমি আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি।” ‘দরিদ্রদের জন্য বরাদ্দ টিআর-কাবিখার অর্ধেক এমপিদের পকেটে যায়’ রোববার পল্লী কর্ম সহায়ক ফাউন্ডেশনের এক অনুষ্ঠানে এমন মন্তব্য করেন তথ্যমন্ত্রী। তথ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্যে এমপিদের মধ্যে তুমুল সমালোচনার ঝড় ওঠে। এর ফলশ্রুতিতে সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে উপস্থিত সদস্যদের কাছে লিখিত ক্ষমা চান তথ্যমন্ত্রী। সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকের শুরুতে তথ্যমন্ত্রী ক্ষমা চেয়ে লিখিত বক্তব্য একটি খামে ভরে সব সদস্যদের আসনের সামনে রাখেন। পরে মন্ত্রিসভার বৈঠকে নির্ধারিত এজেন্ডার বাইরে এ বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন উপস্থিত সবাই। সোমবার সন্ধ্যায় জাতীয় সংসদের অধিবেশন চলাকালে পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে এমপিরা ইনুর কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা দাবি করেন। তারা বলেন, মাননীয় তথ্যমন্ত্রী টিআর কাবিখা নিয়ে মন্তব্য করে সব সংসদ সদস্যকে অপমান করেছেন। এজন্য সংসদে দাঁড়িয়ে তাকে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে। একই সঙ্গে তথ্যমন্ত্রীর নির্বাচনী এলাকায় টিআর কাবিখার আওতায় কী কী উন্নয়নমূলক কাজ হয়েছে তা তদন্ত করে দেখতে হবে। এরপর নিজের বক্তব্যের জন্য দুঃখ প্রকাশ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, “আমার বক্তব্যের ব্যাপারে গণমাধ্যমে বিবৃতি দিয়ে দুঃখ প্রকাশ করেছি। আমি সব জনপ্রতিনিধি ও এমপিদের কাছে আমার বক্তব্যের জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি এবং আমার বক্তব্য প্রত্যাহার করে নিচ্ছি। জঙ্গি দমনের একজন যোদ্ধা হিসেবে সবাই আমার দুঃখপ্রকাশ গ্রহণ করবেন বলে আশা করছি।” এ সময় সংসদে ব্যাপক হইচই করেন এমপিরা। পরে চাপের মুখে আবার ফ্লোর নিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, “আমার বক্তব্য অনভিপ্রেত। এমপিদের দাবির মুখে আমি ক্ষমা চাচ্ছি।”

Comments

Comments!

 সরকারি দলের এমপিরা তথ্যমন্ত্রী ইনুকে সংসদে ক্ষমা চাইতে বাধ্য করলেনAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

সরকারি দলের এমপিরা তথ্যমন্ত্রী ইনুকে সংসদে ক্ষমা চাইতে বাধ্য করলেন

Monday, July 25, 2016 9:50 pm
37_136173

এমপিদের তোপের মুখে অবশেষে সংসদে ক্ষমা চাইতে বাধ্য হলেন তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু।

এমপিদের ‘চোর’ বলে তুমুল সমালোচনার মধ্যে সোমবার সন্ধ্যায় সংসদ অধিবেশনে ক্ষমা প্রার্থনা করেন তিনি।

দুপুরে মন্ত্রিসভায় সমালোচনার পর সন্ধ্যায় সংসদ অধিবেশনেও এমপিদের তোপের মুখে পড়েন জাসদ সভাপতি ইনু।

এ সময় তিনি নিজের বক্তব্যের জন্য দুঃখ প্রকাশ করলে সংসদ সদস্যরা তাতে সম্মত না হয়ে ক্ষমা চাওয়ার দাবি তোলেন।

তখন তথ্যমন্ত্রী বলেন, “আমি মনে করি গণমাধ্যমে আমার বরাত দিয়ে যে বক্তব্য এসেছে, সেজন্য আমি ক্ষমা চাইছি, আমি

আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি।”

‘দরিদ্রদের জন্য বরাদ্দ টিআর-কাবিখার অর্ধেক এমপিদের পকেটে যায়’ রোববার পল্লী কর্ম সহায়ক ফাউন্ডেশনের এক অনুষ্ঠানে এমন মন্তব্য করেন তথ্যমন্ত্রী।

তথ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্যে এমপিদের মধ্যে তুমুল সমালোচনার ঝড় ওঠে।

এর ফলশ্রুতিতে সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে উপস্থিত সদস্যদের কাছে লিখিত ক্ষমা চান তথ্যমন্ত্রী। সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকের শুরুতে তথ্যমন্ত্রী ক্ষমা চেয়ে লিখিত বক্তব্য একটি খামে ভরে সব সদস্যদের আসনের সামনে রাখেন। পরে মন্ত্রিসভার বৈঠকে নির্ধারিত এজেন্ডার বাইরে এ বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন উপস্থিত সবাই।

সোমবার সন্ধ্যায় জাতীয় সংসদের অধিবেশন চলাকালে পয়েন্ট অব অর্ডারে দাঁড়িয়ে এমপিরা ইনুর কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা দাবি করেন। তারা বলেন, মাননীয় তথ্যমন্ত্রী টিআর কাবিখা নিয়ে মন্তব্য করে সব সংসদ সদস্যকে অপমান করেছেন। এজন্য সংসদে দাঁড়িয়ে তাকে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে। একই সঙ্গে তথ্যমন্ত্রীর নির্বাচনী এলাকায় টিআর কাবিখার আওতায় কী কী উন্নয়নমূলক কাজ হয়েছে তা তদন্ত করে দেখতে হবে।

এরপর নিজের বক্তব্যের জন্য দুঃখ প্রকাশ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, “আমার বক্তব্যের ব্যাপারে গণমাধ্যমে বিবৃতি দিয়ে দুঃখ প্রকাশ করেছি। আমি সব জনপ্রতিনিধি ও এমপিদের কাছে আমার বক্তব্যের জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি এবং আমার বক্তব্য প্রত্যাহার করে নিচ্ছি। জঙ্গি দমনের একজন যোদ্ধা হিসেবে সবাই আমার দুঃখপ্রকাশ গ্রহণ করবেন বলে আশা করছি।”

এ সময় সংসদে ব্যাপক হইচই করেন এমপিরা। পরে চাপের মুখে আবার ফ্লোর নিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, “আমার বক্তব্য অনভিপ্রেত। এমপিদের দাবির মুখে আমি ক্ষমা চাচ্ছি।”

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X