শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৮:৫১
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, July 1, 2017 6:00 pm
A- A A+ Print

সিংহ ঘেরা অ্যাম্বুলেন্সের ভেতরেই সন্তান প্রসব

Lion20170701172331

অ্যাম্বুলেন্সে প্রসব বেদনায় কাতরাচ্ছিলেন এক নারী। কিন্তু প্রত্যন্ত গ্রামের সড়কে থাকা গাড়িটি এক ইঞ্চিও এগুতে পারছেন না চালক। কারণ ১১ থেকে ১২টি সিংহের একটি দল অ্যাম্বুলেন্সটিকে ঘিরে রেখেছে। শেষ পর্যন্ত তাই অ্যাম্বুলেন্সেই প্রসব হলো নবজাতক। বুধবার গভীর রাতে ভারতের গুজরাট রাজ্যের আমরেলি জেলার জাফরাবাদ এলাকার লুনাসাপুর গ্রামের কাছে এ ঘটনা ঘটেছে। শনিবার টাইমস অব ইন্ডিয়া এ তথ্য জানিয়েছে। বুধবার রাতে লুনাসাপুর গ্রামের ৩২ বছর বয়সী নারী মানগুবেন মাকওয়ানার প্রসব বেদনা উঠলে ১০৮ নম্বরে ফোন করে জরুরি অ্যাম্বুলেন্স সেবা চাওয়া হয়। মানগুবেনকে নিয়ে অ্যাম্বুলেন্সটি গ্রাম থেকে প্রায় তিন কিলোমিটার দূরে যাওয়ার পর চালক দেখতে পান সড়কের ওপর ১১ থেকে ১২টি সিংহ দাঁড়িয়ে আছে। কিছুক্ষণ অপেক্ষার পরও সিংহগুলো সড়ক থেকে সরে যায়নি। আমরেলি জেলার জরুরি অ্যাম্বুলেন্স সেবার প্রধান কর্মকর্তা চেতন গাধী জানান, এই পরিস্থিতিতে অ্যাম্বুলেন্সে থাকা স্বাস্থ্যকর্মীরা গাড়ির ভেতরেই সন্তান প্রসব করানোর সিদ্ধান্ত নেন। তিনি বলেন, কর্মীরা এক চিকিৎসককে ফোন করে কী করতে হবে তার নির্দেশনা নিয়ে কাজ শুরু করেন। তাদের দেওয়া তথ্যের ওপর ভিত্তি করে চিকিৎসক প্রসব করানোর অনুমতি দেন। প্রসব করাতে সময় লেগেছে ২৫ মিনিট। আর এই পুরোটা সময় সিংহগুলো অ্যাম্বুলেন্সটি ঘিরে চক্কর কেটেছে। চেতন গাধী বলেন, এরপর চালক ধীরে ধীরে গাড়ি সামনে নেওয়ার চেষ্টা করেন। গাড়িটি চলতে দেখে ও অ্যাম্বুলেন্সের লাইটগুলো জ্বলতে দেখে সিংহগুলো পথ ছেড়ে দিতে শুরু করে। মা ও তার নবজাতককে জাফরাবাদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি জানান, জরুরি অ্যাম্বুলেন্স সেবা কর্মীদের এর আগেও এ ধরণের পরিস্থিতির মুখে পড়তে হয়েছে। তাই এ ধরণের পরিস্থিতে পড়লে মাথা ঠান্ডা রেখে কীভাবে কাজ করতে হবে সে বিষয়ে কর্মীদের বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।

Comments

Comments!

 সিংহ ঘেরা অ্যাম্বুলেন্সের ভেতরেই সন্তান প্রসবAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

সিংহ ঘেরা অ্যাম্বুলেন্সের ভেতরেই সন্তান প্রসব

Saturday, July 1, 2017 6:00 pm
Lion20170701172331

অ্যাম্বুলেন্সে প্রসব বেদনায় কাতরাচ্ছিলেন এক নারী। কিন্তু প্রত্যন্ত গ্রামের সড়কে থাকা গাড়িটি এক ইঞ্চিও এগুতে পারছেন না চালক। কারণ ১১ থেকে ১২টি সিংহের একটি দল অ্যাম্বুলেন্সটিকে ঘিরে রেখেছে। শেষ পর্যন্ত তাই অ্যাম্বুলেন্সেই প্রসব হলো নবজাতক।

বুধবার গভীর রাতে ভারতের গুজরাট রাজ্যের আমরেলি জেলার জাফরাবাদ এলাকার লুনাসাপুর গ্রামের কাছে এ ঘটনা ঘটেছে। শনিবার টাইমস অব ইন্ডিয়া এ তথ্য জানিয়েছে।

বুধবার রাতে লুনাসাপুর গ্রামের ৩২ বছর বয়সী নারী মানগুবেন মাকওয়ানার প্রসব বেদনা উঠলে ১০৮ নম্বরে ফোন করে জরুরি অ্যাম্বুলেন্স সেবা চাওয়া হয়। মানগুবেনকে নিয়ে অ্যাম্বুলেন্সটি গ্রাম থেকে প্রায় তিন কিলোমিটার দূরে যাওয়ার পর চালক দেখতে পান সড়কের ওপর ১১ থেকে ১২টি সিংহ দাঁড়িয়ে আছে। কিছুক্ষণ অপেক্ষার পরও সিংহগুলো সড়ক থেকে সরে যায়নি।

আমরেলি জেলার জরুরি অ্যাম্বুলেন্স সেবার প্রধান কর্মকর্তা চেতন গাধী জানান, এই পরিস্থিতিতে অ্যাম্বুলেন্সে থাকা স্বাস্থ্যকর্মীরা গাড়ির ভেতরেই সন্তান প্রসব করানোর সিদ্ধান্ত নেন।

তিনি বলেন, কর্মীরা এক চিকিৎসককে ফোন করে কী করতে হবে তার নির্দেশনা নিয়ে কাজ শুরু করেন। তাদের দেওয়া তথ্যের ওপর ভিত্তি করে চিকিৎসক প্রসব করানোর অনুমতি দেন। প্রসব করাতে সময় লেগেছে ২৫ মিনিট। আর এই পুরোটা সময় সিংহগুলো অ্যাম্বুলেন্সটি ঘিরে চক্কর কেটেছে।

চেতন গাধী বলেন, এরপর চালক ধীরে ধীরে গাড়ি সামনে নেওয়ার চেষ্টা করেন। গাড়িটি চলতে দেখে ও অ্যাম্বুলেন্সের লাইটগুলো জ্বলতে দেখে সিংহগুলো পথ ছেড়ে দিতে শুরু করে। মা ও তার নবজাতককে জাফরাবাদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তিনি জানান, জরুরি অ্যাম্বুলেন্স সেবা কর্মীদের এর আগেও এ ধরণের পরিস্থিতির মুখে পড়তে হয়েছে। তাই এ ধরণের পরিস্থিতে পড়লে মাথা ঠান্ডা রেখে কীভাবে কাজ করতে হবে সে বিষয়ে কর্মীদের বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X