বুধবার, ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৯ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৯:৩৮
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, October 7, 2017 5:23 pm
A- A A+ Print

সিআইএ ও মোসাদের সৃষ্টি আইএস: ইরাকি গোয়েন্দা নথি

182587_1

আঙ্কারা: মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ এবং ইসরাইলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের সহায়তায় ইসলামিক স্টেট (আইএস) গঠিত হয়েছে বলে তুরস্কের একটি পত্রিকার খবরে বলা হয়েছে। এছাড়াও আইএসকে সমর্থনের জন্য ইরাকের কুর্দিস্তান আঞ্চলিক সরকারকে (কেআরজি) অভিযুক্ত করেছে সংবাদমাধ্যমটি। চলতি সপ্তাহে তুর্কি পত্রিকা ‘ইয়েনি সাফাক’ এর একটি নিবন্ধে ইরাকি গোয়েন্দা সংস্থার নথি উদ্ধৃত করে বলা হয়, কুর্দিস্তান আঞ্চলিক সরকারের প্রেসিডেন্ট মাসুদ বারজানি সিআইএ এবং ইসরাইলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের সহায়তায় ইসলামিক স্টেটের গঠনকে সমর্থন করেছেন। নথিটির তথ্যানুযায়ী, তৎকালীন সাদ্দাম হোসেনের অধীনে ইরাকি সরকার একটি ‘জিহাদি সংগঠন’ গঠনে সহযোগিতার জন্য বারজানিকে অভিযুক্ত করেছে। ইরাকি গোয়েন্দা সংস্থার ওই নথিটি প্রায় ১৩ বছর আগের। নথিটির তারিখ লেখা আছে ২০০১ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর অর্থাৎ ইসলামিক স্টেট অব ইরাক এবং আল-শামের সঙ্গে আল কায়েদার সম্পর্ক ছিন্ন করার আগে। এর কয়েক বছর পরেই নতুন করে গঠিত আইএস ইরাক ও সিরিয়ার একটি বিশাল এলাকা দখল করে নেয়। নথিটিতে সাদ্দাম হোসেনের গোয়েন্দা সংস্থা অভিযোগ, নতুন জিহাদি সংগঠন প্রতিষ্টার জন্য বারজানি ফরাসি বুদ্ধিজীবী বার্নার্ড হেনরি লেভি’র সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে বৈঠক করেছেন। বার্নার্ড হেনরি লেভি একজন ইহুদি বলে ‘ইয়েনি সাফাক’ জানিয়েছে। ইয়েনি সাফাকের ওই নিবন্ধে বলা হয়, ‘আইএস প্রতিষ্ঠা করে মোসাদ ও সিআইএ। যেটি সিরিয়ার কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টি (পিকেকে) এবং ইরাকের মাসুদ বারজানি’র জন্য একটি অবৈধ রাষ্ট্রের ভিত্তি তৈরি করে এবং কুর্দিস্তান রিজিওনাল গভর্মেন্ট (কেআরজি) প্রেসিডেন্ট বারজানি কর্তৃক তা সমর্থিত হয়েছে।’ এর আগে ইয়েনি সাফাকের একটি প্রতিবেদনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে অভিযুক্ত করা বলা হয়েছিল যে, যুক্তরাষ্ট্র আইএসকে নেতৃত্ব দিচ্ছে এবং তুরস্কে সন্ত্রাসবাদী হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছে। অন্যদিকে, গত ২৬ সেপ্টেম্বর কুর্দিস্তানের স্বাধীনতার জন্য অনুষ্ঠিত গণভোট আয়োজনে মোসাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ। চলতি সপ্তাহে এক বক্তৃতায় এরদোগান বলেন, ‘কে তোমাদের পরামর্শ দিচ্ছে? তোমাদের পিছনে রয়েছে কেবল ইসরাইল।’ বারজানিকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘ফ্রান্সের সাবেক ইহুদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আপনার ডান দিকে এবং অন্য আরেক  ইহুদি (লেভি) আপনার বাম পাশে। তাদের সঙ্গে একত্রে বসে ছক কষছেন।’ এরদোগান সর্তক করে দিয়ে বলেন, ‘তারা আপনার বন্ধু নয়। তারা আজ আপনার সঙ্গে আছে, কিন্তু আগামীকাল অদৃশ্য হয়ে যাবে।’ উল্লেখ্য, মধ্যপ্রাচ্যের একমাত্র দেশ হিসেবে ইসরাইল কুর্দিদের গণভোট আয়োজনের সিদ্ধান্তকে প্রকাশ্যে সমর্থন করেছে।

Comments

Comments!

 সিআইএ ও মোসাদের সৃষ্টি আইএস: ইরাকি গোয়েন্দা নথিAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

সিআইএ ও মোসাদের সৃষ্টি আইএস: ইরাকি গোয়েন্দা নথি

Saturday, October 7, 2017 5:23 pm
182587_1

আঙ্কারা: মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ এবং ইসরাইলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের সহায়তায় ইসলামিক স্টেট (আইএস) গঠিত হয়েছে বলে তুরস্কের একটি পত্রিকার খবরে বলা হয়েছে।

এছাড়াও আইএসকে সমর্থনের জন্য ইরাকের কুর্দিস্তান আঞ্চলিক সরকারকে (কেআরজি) অভিযুক্ত করেছে সংবাদমাধ্যমটি।

চলতি সপ্তাহে তুর্কি পত্রিকা ‘ইয়েনি সাফাক’ এর একটি নিবন্ধে ইরাকি গোয়েন্দা সংস্থার নথি উদ্ধৃত করে বলা হয়, কুর্দিস্তান আঞ্চলিক সরকারের প্রেসিডেন্ট মাসুদ বারজানি সিআইএ এবং ইসরাইলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের সহায়তায় ইসলামিক স্টেটের গঠনকে সমর্থন করেছেন।

নথিটির তথ্যানুযায়ী, তৎকালীন সাদ্দাম হোসেনের অধীনে ইরাকি সরকার একটি ‘জিহাদি সংগঠন’ গঠনে সহযোগিতার জন্য বারজানিকে অভিযুক্ত করেছে।

ইরাকি গোয়েন্দা সংস্থার ওই নথিটি প্রায় ১৩ বছর আগের। নথিটির তারিখ লেখা আছে ২০০১ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর অর্থাৎ ইসলামিক স্টেট অব ইরাক এবং আল-শামের সঙ্গে আল কায়েদার সম্পর্ক ছিন্ন করার আগে। এর কয়েক বছর পরেই নতুন করে গঠিত আইএস ইরাক ও সিরিয়ার একটি বিশাল এলাকা দখল করে নেয়।

নথিটিতে সাদ্দাম হোসেনের গোয়েন্দা সংস্থা অভিযোগ, নতুন জিহাদি সংগঠন প্রতিষ্টার জন্য বারজানি ফরাসি বুদ্ধিজীবী বার্নার্ড হেনরি লেভি’র সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে বৈঠক করেছেন। বার্নার্ড হেনরি লেভি একজন ইহুদি বলে ‘ইয়েনি সাফাক’ জানিয়েছে।

ইয়েনি সাফাকের ওই নিবন্ধে বলা হয়, ‘আইএস প্রতিষ্ঠা করে মোসাদ ও সিআইএ। যেটি সিরিয়ার কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টি (পিকেকে) এবং ইরাকের মাসুদ বারজানি’র জন্য একটি অবৈধ রাষ্ট্রের ভিত্তি তৈরি করে এবং কুর্দিস্তান রিজিওনাল গভর্মেন্ট (কেআরজি) প্রেসিডেন্ট বারজানি কর্তৃক তা সমর্থিত হয়েছে।’

এর আগে ইয়েনি সাফাকের একটি প্রতিবেদনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে অভিযুক্ত করা বলা হয়েছিল যে, যুক্তরাষ্ট্র আইএসকে নেতৃত্ব দিচ্ছে এবং তুরস্কে সন্ত্রাসবাদী হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছে।

অন্যদিকে, গত ২৬ সেপ্টেম্বর কুর্দিস্তানের স্বাধীনতার জন্য অনুষ্ঠিত গণভোট আয়োজনে মোসাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ।

চলতি সপ্তাহে এক বক্তৃতায় এরদোগান বলেন, ‘কে তোমাদের পরামর্শ দিচ্ছে? তোমাদের পিছনে রয়েছে কেবল ইসরাইল।’

বারজানিকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘ফ্রান্সের সাবেক ইহুদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী আপনার ডান দিকে এবং অন্য আরেক  ইহুদি (লেভি) আপনার বাম পাশে। তাদের সঙ্গে একত্রে বসে ছক কষছেন।’

এরদোগান সর্তক করে দিয়ে বলেন, ‘তারা আপনার বন্ধু নয়। তারা আজ আপনার সঙ্গে আছে, কিন্তু আগামীকাল অদৃশ্য হয়ে যাবে।’

উল্লেখ্য, মধ্যপ্রাচ্যের একমাত্র দেশ হিসেবে ইসরাইল কুর্দিদের গণভোট আয়োজনের সিদ্ধান্তকে প্রকাশ্যে সমর্থন করেছে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X