শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৪:০৬
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, November 6, 2016 9:00 pm
A- A A+ Print

সিরিয়ায় আইএস এর ‘রাজধানী’ দখলে অভিযান শুরুর ঘোষণা

160288_1

   
ওয়াশিংটন: সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেটের হাত থেকে তাদের দখলকৃত ‘রাজধানী’ রাক্বা শহর দখল করে নেওয়ার লক্ষ্যে অভিযান শুরু করার কথা ঘোষণা করেছে যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত বিদ্রোহী যোদ্ধারা। উত্তরের এই শহরটি আইএস জঙ্গি গোষ্ঠীর মূল ঘাঁটি। বিদ্রোহী যোদ্ধাদের এই গ্রুপটির নাম ‘সিরিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ফোর্সেস’ যেখানে আছে কুর্দী এবং জাতিগত আরব মিলিশিয়ারা। জঙ্গিদের হাত থেকে গত দুবছরে তারা কিছু এলাকা দখল করেছে কিন্তু এখনো তারা রাক্কা শহর থেকে ৫০ কিলোমিটার দূরে রয়েছে।
২০১৫ সালে ইসলামিক স্টেট এই রাক্কা শহরটি দখল করে একে তাদের ভাষায় ‘খিলাফতের রাজধানী’ বলে ঘোষণা করেছিল। এটি পুনর্দখলের জন্য মার্কিন সমর্থিত যোদ্ধাদের এই অভিযানের নাম দেয়া হয়েছে ‘ইউফ্রেটিসের ক্রোধ’ বা এ্যাঙ্গার অব দি ইউফ্রেটিস। জানা যাচ্ছে যে, এতে থাকবে সিরিয়া ডেমোক্রেটিক ফোর্সেস নামের প্রধানত: কুর্দি যোদ্ধাদের দল। তাদেরকে এজন্য ট্যাংক-বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্রসহ নতুন অস্ত্রশস্ত্র দিয়েছে আমেরিকান-নেতৃত্বাধীন কোয়ালিশন এবং তাদের ৩০ হাজার যোদ্ধা এতে অংশ নেবে, আর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র জঙ্গি বিমান হামলা চালিয়ে তাদের আকাশ থেকে সুরক্ষা দেবে। রাক্কা থেকে ৩০ মাইল দূরে এক সংবাদ সম্মেলন করে এসডিএফের মুখপাত্র জিহান শেখ আহমেদ এ লড়াই শুরুর কথা ঘোষণা করেন। তবে এই অভিযানে কুর্দি সৈন্যদের ব্যাপকভাবে জড়িত করাটা একটা সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ রাক্কা একটি আরব-সংখ্যাগরিষ্ঠ শহর এবং অতীতে এমন হয়েছে যে কুর্দি যোদ্ধারা বিভিন্ন শহর দখল করার পর আরবদের সেখান থেকে বের করে দিয়েছে।   এটা তুরস্ককেও ক্ষুব্ধ করে তুলেছে-কারণ তারা মনে করে যে সিরিয়ার কুর্দি যোদ্ধারা আসলে তুরস্কের কুর্দি বিদ্রোহী পিকেকেরই একটি অংশ। তুরস্কের চোথে এই পিকেকে হচ্ছে একটি সন্ত্রাসী সংগঠন। আমেরিকার সাথে সিরিয়ার কুর্দিদের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক আঙ্কারা-ওয়াশিংটন সম্পর্কের ওপর গুরুতর বিরূপ প্রভাব ফেলেছে। এ কারণে তুরস্ক অন্তত এখন রাক্কা পুনর্দখলের এই অভিযানের অংশ হবে না। বরং এই অভিযানের সুবাদে কুর্দিরা গুরুত্বপূর্ণ এলাকার নিয়ন্ত্রণ দখল করলে তাতে তারা বাধা দিতে পারে। যুক্তরাষ্ট্র চেয়েছিল ইরাকে মসুল পুনর্দখলের অভিযানের সাথে সাথেই রাক্কা দখলের অভিযানটিও শুরু করতে-যাতে মসুল থেকে ইসলামিক স্টেটের যোদ্ধারা পালিয়ে রাক্কায় আশ্রয় নিতে না পারে কিন্তু এটা মসুল দখলের লড়াইয়ের চাইতেও কঠিন হতে পারে, কারণ-সিরিয়ার যুদ্ধের সব পক্ষই ইসলামিক স্টেটের বিরোধী-কিন্তু তারা আবার নিজেদের মধ্যে লড়াইয়ে লিপ্ত। এ কারণে দ্বিতীয় একটি প্রক্সি যুদ্ধ পরিস্থিতিকে আরো জটিল করে তুলতে পারে। যেভাবেই হোক, জিহাদিদের হাত থেকে রাক্কা পুনর্দখল করার এই লড়াই হবে একটি দীর্ঘ এবং দুরহ যুদ্ধ।

Comments

Comments!

 সিরিয়ায় আইএস এর ‘রাজধানী’ দখলে অভিযান শুরুর ঘোষণাAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

সিরিয়ায় আইএস এর ‘রাজধানী’ দখলে অভিযান শুরুর ঘোষণা

Sunday, November 6, 2016 9:00 pm
160288_1

 

 

ওয়াশিংটন: সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেটের হাত থেকে তাদের দখলকৃত ‘রাজধানী’ রাক্বা শহর দখল করে নেওয়ার লক্ষ্যে অভিযান শুরু করার কথা ঘোষণা করেছে যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত বিদ্রোহী যোদ্ধারা।

উত্তরের এই শহরটি আইএস জঙ্গি গোষ্ঠীর মূল ঘাঁটি। বিদ্রোহী যোদ্ধাদের এই গ্রুপটির নাম ‘সিরিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ফোর্সেস’ যেখানে আছে কুর্দী এবং জাতিগত আরব মিলিশিয়ারা।

জঙ্গিদের হাত থেকে গত দুবছরে তারা কিছু এলাকা দখল করেছে কিন্তু এখনো তারা রাক্কা শহর থেকে ৫০ কিলোমিটার দূরে রয়েছে।

২০১৫ সালে ইসলামিক স্টেট এই রাক্কা শহরটি দখল করে একে তাদের ভাষায় ‘খিলাফতের রাজধানী’ বলে ঘোষণা করেছিল।

এটি পুনর্দখলের জন্য মার্কিন সমর্থিত যোদ্ধাদের এই অভিযানের নাম দেয়া হয়েছে ‘ইউফ্রেটিসের ক্রোধ’ বা এ্যাঙ্গার অব দি ইউফ্রেটিস।

জানা যাচ্ছে যে, এতে থাকবে সিরিয়া ডেমোক্রেটিক ফোর্সেস নামের প্রধানত: কুর্দি যোদ্ধাদের দল। তাদেরকে এজন্য ট্যাংক-বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্রসহ নতুন অস্ত্রশস্ত্র দিয়েছে আমেরিকান-নেতৃত্বাধীন কোয়ালিশন এবং তাদের ৩০ হাজার যোদ্ধা এতে অংশ নেবে, আর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র জঙ্গি বিমান হামলা চালিয়ে তাদের আকাশ থেকে সুরক্ষা দেবে।

রাক্কা থেকে ৩০ মাইল দূরে এক সংবাদ সম্মেলন করে এসডিএফের মুখপাত্র জিহান শেখ আহমেদ এ লড়াই শুরুর কথা ঘোষণা করেন।

তবে এই অভিযানে কুর্দি সৈন্যদের ব্যাপকভাবে জড়িত করাটা একটা সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

কারণ রাক্কা একটি আরব-সংখ্যাগরিষ্ঠ শহর এবং অতীতে এমন হয়েছে যে কুর্দি যোদ্ধারা বিভিন্ন শহর দখল করার পর আরবদের সেখান থেকে বের করে দিয়েছে।

 

এটা তুরস্ককেও ক্ষুব্ধ করে তুলেছে-কারণ তারা মনে করে যে সিরিয়ার কুর্দি যোদ্ধারা আসলে তুরস্কের কুর্দি বিদ্রোহী পিকেকেরই একটি অংশ। তুরস্কের চোথে এই পিকেকে হচ্ছে একটি সন্ত্রাসী সংগঠন।

আমেরিকার সাথে সিরিয়ার কুর্দিদের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক আঙ্কারা-ওয়াশিংটন সম্পর্কের ওপর গুরুতর বিরূপ প্রভাব ফেলেছে। এ কারণে তুরস্ক অন্তত এখন রাক্কা পুনর্দখলের এই অভিযানের অংশ হবে না। বরং এই অভিযানের সুবাদে কুর্দিরা গুরুত্বপূর্ণ এলাকার নিয়ন্ত্রণ দখল করলে তাতে তারা বাধা দিতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্র চেয়েছিল ইরাকে মসুল পুনর্দখলের অভিযানের সাথে সাথেই রাক্কা দখলের অভিযানটিও শুরু করতে-যাতে মসুল থেকে ইসলামিক স্টেটের যোদ্ধারা পালিয়ে রাক্কায় আশ্রয় নিতে না পারে কিন্তু এটা মসুল দখলের লড়াইয়ের চাইতেও কঠিন হতে পারে, কারণ-সিরিয়ার যুদ্ধের সব পক্ষই ইসলামিক স্টেটের বিরোধী-কিন্তু তারা আবার নিজেদের মধ্যে লড়াইয়ে লিপ্ত। এ কারণে দ্বিতীয় একটি প্রক্সি যুদ্ধ পরিস্থিতিকে আরো জটিল করে তুলতে পারে।

যেভাবেই হোক, জিহাদিদের হাত থেকে রাক্কা পুনর্দখল করার এই লড়াই হবে একটি দীর্ঘ এবং দুরহ যুদ্ধ।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X