শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১০:২৭
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, December 9, 2016 12:27 pm
A- A A+ Print

সু চি রাখাইন যান, পরিস্থিতি দেখুন: জাতিসংঘ

260d1c1ecdae979671b32a20388f56f4-6

মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চিকে রাখাইন রাজ্যে গিয়ে সংকটপূর্ণ পরিস্থিতি দেখার আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ। ওই রাজ্যে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর দেশটির সেনারা অমানবিক নির্যাতন চালাচ্ছে। বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে জানানো হয়, মিয়ানমার-বিষয়ক জাতিসংঘের বিশেষ উপদেষ্টা বিজয় নামবিয়ার গতকাল বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে শান্তিতে নোবেলজয়ী সু চির প্রতি ওই আহ্বান জানান। রাখাইনের পরিস্থিতিতে সু চির হস্তক্ষেপ চেয়ে বিজয় নামবিয়ার বলেন, স্থানীয় জনগণের নিরাপত্তায় প্রতিরক্ষামূলক ব্যবস্থা না নিয়ে অভিযানে যাওয়ায় স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে হতাশার সৃষ্টি হয়েছে। বিজয় নামবিয়ার বলেন, ‘আমি সু চিকে রাখাইনের মংডু ও বুথিডং পরিদর্শনের অনুরোধ করছি। সেখানকার বেসামরিক লোকজনকে তাদের সুরক্ষার বিষয়ে আশ্বস্ত করতে বলেছি।’ রাখাইনে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে দেশটির সেনা ও পুলিশ সহিংস অভিযান চালাচ্ছে। রোহিঙ্গাবিরোধী এই অভিযান বন্ধে কার্যত কোনো পদক্ষেপ না নেওয়ায় আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সমালোচিত হচ্ছেন সু চি। রাখাইনে রোহিঙ্গারা ব্যাপক হারে হত্যা, ধর্ষণ ও নির্যাতনের শিকার হচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে। তাদের ঘরবাড়ি ও দোকানপাটে হামলা চালানো হচ্ছে। আগুন দেওয়া হচ্ছে। দমন-পীড়নের মুখে হাজারো রোহিঙ্গা পালাচ্ছে। ইতিমধ্যে অনেক রোহিঙ্গা বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে। অনুপ্রবেশের লক্ষ্যে অনেকে সীমান্তে জড়ো হয়েছে। তবে রোহিঙ্গাদের ওপর দমন-পীড়ন চালানোর অভিযোগ অস্বীকার করছে মিয়ানমার সরকার। গত ৯ অক্টোবর মিয়ানমারের কয়েকটি সীমান্ত পোস্টে ‘বিচ্ছিন্নতাবাদীদের’ হামলায় পুলিশের নয়জন সদস্য নিহত হওয়ার পর রোহিঙ্গা-অধ্যুষিত জেলাগুলোতে দেশটির সেনা-পুলিশের সহিংস অভিযান শুরু হয়। রোহিঙ্গাদের ওপর ‘গণহত্যা’ চালানোর অভিযোগ এনেছে মালয়েশিয়া। এই ‘গণহত্যা’ বন্ধ করতে দেশটির নেত্রী সু চির প্রতি সম্প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক। তীব্র সমালোচনার মুখে সু চি দাবি করেছেন, রাখাইনের পরিস্থিতি ইতিমধ্যেই তাঁর সরকার নিয়ন্ত্রণে এনেছে। পরিস্থিতি এখন শান্ত হওয়ার পথে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে নেতিবাচক কথা না বলে শান্তি ও স্থিতিশীলতার লক্ষ্যে সহযোগিতার অনুরোধ জানান তিনি।

Comments

Comments!

 সু চি রাখাইন যান, পরিস্থিতি দেখুন: জাতিসংঘAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

সু চি রাখাইন যান, পরিস্থিতি দেখুন: জাতিসংঘ

Friday, December 9, 2016 12:27 pm
260d1c1ecdae979671b32a20388f56f4-6

মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চিকে রাখাইন রাজ্যে গিয়ে সংকটপূর্ণ পরিস্থিতি দেখার আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ। ওই রাজ্যে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর দেশটির সেনারা অমানবিক নির্যাতন চালাচ্ছে।

বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে জানানো হয়, মিয়ানমার-বিষয়ক জাতিসংঘের বিশেষ উপদেষ্টা বিজয় নামবিয়ার গতকাল বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে শান্তিতে নোবেলজয়ী সু চির প্রতি ওই আহ্বান জানান।

রাখাইনের পরিস্থিতিতে সু চির হস্তক্ষেপ চেয়ে বিজয় নামবিয়ার বলেন, স্থানীয় জনগণের নিরাপত্তায় প্রতিরক্ষামূলক ব্যবস্থা না নিয়ে অভিযানে যাওয়ায় স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে হতাশার সৃষ্টি হয়েছে।

বিজয় নামবিয়ার বলেন, ‘আমি সু চিকে রাখাইনের মংডু ও বুথিডং পরিদর্শনের অনুরোধ করছি। সেখানকার বেসামরিক লোকজনকে তাদের সুরক্ষার বিষয়ে আশ্বস্ত করতে বলেছি।’

রাখাইনে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে দেশটির সেনা ও পুলিশ সহিংস অভিযান চালাচ্ছে। রোহিঙ্গাবিরোধী এই অভিযান বন্ধে কার্যত কোনো পদক্ষেপ না নেওয়ায় আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সমালোচিত হচ্ছেন সু চি।

রাখাইনে রোহিঙ্গারা ব্যাপক হারে হত্যা, ধর্ষণ ও নির্যাতনের শিকার হচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে। তাদের ঘরবাড়ি ও দোকানপাটে হামলা চালানো হচ্ছে। আগুন দেওয়া হচ্ছে। দমন-পীড়নের মুখে হাজারো রোহিঙ্গা পালাচ্ছে। ইতিমধ্যে অনেক রোহিঙ্গা বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে। অনুপ্রবেশের লক্ষ্যে অনেকে সীমান্তে জড়ো হয়েছে। তবে রোহিঙ্গাদের ওপর দমন-পীড়ন চালানোর অভিযোগ অস্বীকার করছে মিয়ানমার সরকার।

গত ৯ অক্টোবর মিয়ানমারের কয়েকটি সীমান্ত পোস্টে ‘বিচ্ছিন্নতাবাদীদের’ হামলায় পুলিশের নয়জন সদস্য নিহত হওয়ার পর রোহিঙ্গা-অধ্যুষিত জেলাগুলোতে দেশটির সেনা-পুলিশের সহিংস অভিযান শুরু হয়।

রোহিঙ্গাদের ওপর ‘গণহত্যা’ চালানোর অভিযোগ এনেছে মালয়েশিয়া। এই ‘গণহত্যা’ বন্ধ করতে দেশটির নেত্রী সু চির প্রতি সম্প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক।

তীব্র সমালোচনার মুখে সু চি দাবি করেছেন, রাখাইনের পরিস্থিতি ইতিমধ্যেই তাঁর সরকার নিয়ন্ত্রণে এনেছে। পরিস্থিতি এখন শান্ত হওয়ার পথে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে নেতিবাচক কথা না বলে শান্তি ও স্থিতিশীলতার লক্ষ্যে সহযোগিতার অনুরোধ জানান তিনি।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X