সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৮:১৬
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Thursday, September 22, 2016 4:29 pm
A- A A+ Print

সেনাবাহিনীর খবর প্রকাশে ভারতের কড়াকড়ি, উরিতে উদ্ধারকৃত অস্ত্রে পাক সামরিক বাহিনীর কোনো চিহ্ন নেই

153764_1

দিল্লি: ভারতীয় সেনাবাহিনীর খবর প্রকাশে গণমাধ্যমের ওপর কড়াকড়ি আরোপ করেছে দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। রবিবার কাশ্মীরের উরিতে ভারতীয় সেনাঘাঁটিতে হামলা নিয়ে গণমাধ্যমের এক প্রতিবেদনে অসঙ্গতি দেখা যাওয়ায় মন্ত্রণালয় গণমাধ্যমের সম্পাদকদেরকে সেনা সম্পর্কিত খবর প্রকাশের আগে পুনরায় যাচাই-বাছাইয়ের নির্দেশ দিয়েছে। ভারতীয় সেনাবাহিনীর মিডিয়া সেন্টারের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ভারতীয় সেনাবাহিনী সম্পর্কিত সব ধরনের সংবাদের নিরপেক্ষ সূত্র থেকে প্রকাশ করতে হবে। এ ছাড়া সংবাদত প্রকাশের আগে প্রতিরক্ষা সংবাদদাতাদের মাধ্যমে কমান্ড ও কোরের পূর্ণ অথবা মিডিয়া সেন্টার থেকে প্রাক যাচাই করা উচিত। রবিবার ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের একটি সেনাঘাঁটিতে চার সন্ত্রাসীর হামলায় ভারতীয় ১৮ সেনার প্রাণহানি ঘটে। হামলায় পাকিস্তান জড়িত বলে দাবি করছে ভারত। তবে ইসলামাবাদ এ অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে। সেনাঘাঁটিতে সন্ত্রাসী হামলার জেরে পারমাণবিক অস্ত্রধারী দুই দেশের মাঝে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। সেনাঘাঁটিতে হামলার প্রতিশোধ নিতে পাকিস্তানের ভেতরে হামলার হুমকি দিয়েছে ভারত। হুমকির পর সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় রয়েছে পাকিস্তান সেনাবাহিনী। দেশটির সেনাবাহিনীর জ্যেষ্ঠ এক কর্মকর্তা বলেছেন, গত কয়েকদিন ধরে সতর্ক অবস্থার স্তরে কোনো পরিবর্তন আনা হয়নি। এদিকে, বুধবার পাকিস্তানের উত্তরাঞ্চলে বিমান চলাচল বাতিল করা হয়েছে। এ ছাড়া ওই অঞ্চলে পাক বিমান বাহিনীর যুদ্ধ বিমান অনুশীলন করছে বলে গুজবও ছড়িয়ে পড়েছে। ভারতের সম্ভাব্য হামলা মোকাবেলায় পাক সামরিক বাহিনীর প্রস্তুতির গুজবে দেশটির শেয়ার মার্কেটে ধস নেমেছে। বুধবার ভারতের জাতীয় দৈনিক ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে ভারতীয় সেনাপ্রধানের বরাত দিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, উরি ঘাঁটি থেকে উদ্ধারকৃত অস্ত্র পাক সেনাবাহিনীর বলে সামরিক অভিযানের মহাপরিচালক লেফটেন্যান্ট জেনারেল রণবীর সিং মন্তব্য করেছেন। মূলত ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের এই প্রতিবেদনের জেরে ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় গণমাধ্যমে সেনাবাহিনীর সংবাদ প্রকাশে কড়াকড়ি আরোপ করেছে। ভারতীয় সেনাবাহিনী বলছে, উদ্ধারকৃত অস্ত্রে পাক সামরিক বাহিনীর কোনো চিহ্ন নেই। সূত্র : এক্সপ্রেস ট্রিবিউন।

Comments

Comments!

 সেনাবাহিনীর খবর প্রকাশে ভারতের কড়াকড়ি, উরিতে উদ্ধারকৃত অস্ত্রে পাক সামরিক বাহিনীর কোনো চিহ্ন নেইAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

সেনাবাহিনীর খবর প্রকাশে ভারতের কড়াকড়ি, উরিতে উদ্ধারকৃত অস্ত্রে পাক সামরিক বাহিনীর কোনো চিহ্ন নেই

Thursday, September 22, 2016 4:29 pm
153764_1

দিল্লি: ভারতীয় সেনাবাহিনীর খবর প্রকাশে গণমাধ্যমের ওপর কড়াকড়ি আরোপ করেছে দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

রবিবার কাশ্মীরের উরিতে ভারতীয় সেনাঘাঁটিতে হামলা নিয়ে গণমাধ্যমের এক প্রতিবেদনে অসঙ্গতি দেখা যাওয়ায় মন্ত্রণালয় গণমাধ্যমের সম্পাদকদেরকে সেনা সম্পর্কিত খবর প্রকাশের আগে পুনরায় যাচাই-বাছাইয়ের নির্দেশ দিয়েছে।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর মিডিয়া সেন্টারের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ভারতীয় সেনাবাহিনী সম্পর্কিত সব ধরনের সংবাদের নিরপেক্ষ সূত্র থেকে প্রকাশ করতে হবে। এ ছাড়া সংবাদত প্রকাশের আগে প্রতিরক্ষা সংবাদদাতাদের মাধ্যমে কমান্ড ও কোরের পূর্ণ অথবা মিডিয়া সেন্টার থেকে প্রাক যাচাই করা উচিত।

রবিবার ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের একটি সেনাঘাঁটিতে চার সন্ত্রাসীর হামলায় ভারতীয় ১৮ সেনার প্রাণহানি ঘটে। হামলায় পাকিস্তান জড়িত বলে দাবি করছে ভারত। তবে ইসলামাবাদ এ অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে। সেনাঘাঁটিতে সন্ত্রাসী হামলার জেরে পারমাণবিক অস্ত্রধারী দুই দেশের মাঝে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

সেনাঘাঁটিতে হামলার প্রতিশোধ নিতে পাকিস্তানের ভেতরে হামলার হুমকি দিয়েছে ভারত। হুমকির পর সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় রয়েছে পাকিস্তান সেনাবাহিনী। দেশটির সেনাবাহিনীর জ্যেষ্ঠ এক কর্মকর্তা বলেছেন, গত কয়েকদিন ধরে সতর্ক অবস্থার স্তরে কোনো পরিবর্তন আনা হয়নি।

এদিকে, বুধবার পাকিস্তানের উত্তরাঞ্চলে বিমান চলাচল বাতিল করা হয়েছে। এ ছাড়া ওই অঞ্চলে পাক বিমান বাহিনীর যুদ্ধ বিমান অনুশীলন করছে বলে গুজবও ছড়িয়ে পড়েছে। ভারতের সম্ভাব্য হামলা মোকাবেলায় পাক সামরিক বাহিনীর প্রস্তুতির গুজবে দেশটির শেয়ার মার্কেটে ধস নেমেছে।

বুধবার ভারতের জাতীয় দৈনিক ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে ভারতীয় সেনাপ্রধানের বরাত দিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, উরি ঘাঁটি থেকে উদ্ধারকৃত অস্ত্র পাক সেনাবাহিনীর বলে সামরিক অভিযানের মহাপরিচালক লেফটেন্যান্ট জেনারেল রণবীর সিং মন্তব্য করেছেন।

মূলত ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের এই প্রতিবেদনের জেরে ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় গণমাধ্যমে সেনাবাহিনীর সংবাদ প্রকাশে কড়াকড়ি আরোপ করেছে। ভারতীয় সেনাবাহিনী বলছে, উদ্ধারকৃত অস্ত্রে পাক সামরিক বাহিনীর কোনো চিহ্ন নেই।

সূত্র : এক্সপ্রেস ট্রিবিউন।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X