বুধবার, ২২শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং, ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ১:২২
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, July 16, 2017 10:21 pm
A- A A+ Print

স্ত্রীকে অবিশ্বাস, বাড়িতে সিসি ক্যামেরা!

156b98c2db30b99ceee2e69b8e47dbb0-596b8369cd7f3

আরব আমিরাতে এক ব্যক্তির সন্দেহ, তাঁর স্ত্রীর অন্য পুরুষের সঙ্গে সম্পর্ক আছে। আর এ জন্য তিনি পুরো বাড়িতে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা (সিসি) বসিয়েছেন। এদিকে তাঁকে নিয়ে ‘অপমানজনক’ মন্তব্য করায় ওই নারী পারিবারিক আদালতে বিবাহবিচ্ছেদের মামলা করেছেন। আমিরাতের আল আইন এলাকায় ঘটেছে এমন ঘটনা। কাজের জন্য ওই ব্যক্তি মাসের পর মাস বাড়ির বাইরে থাকেন। কিন্তু যেহেতু সন্দেহ করছেন যে অন্য পুরুষদের সঙ্গে তার স্ত্রীর সম্পর্ক আছে, তাই তিনি বাড়িতে গোপন ক্যামেরা বসিয়েছেন। এ নিয়ে একদিন হঠাৎ স্ত্রীকে পেটান তিনি। পেটাতে পেটাতে একপর্যায়ে তিন সন্তানসহ স্ত্রীকে বাড়ি থেকে বের করে দেন। বিতাড়িত স্ত্রী দেশটির পারিবারিক আদালতে বিবাহবিচ্ছেদের মামলা করেছেন। আদালতকে ৩৩ বছর বয়সী ওই নারী জানান, অন্য পুরুষদের সঙ্গে পরকীয়ার অভিযোগ এনে তাঁকে কাজের লোক এবং সন্তানদের সামনে পেটান তাঁর স্বামী। পেটানোর পর বাড়ি থেকে বের করে দেন তাঁর স্বামী। একটি প্রতিষ্ঠানে বেশ ভালো পদে চাকরি করা ওই নারী জানান, বাড়িটি নির্মাণে তিনিও আর্থিকভাবে সহযোগিতা করেছেন। ওই নারী আদালতে বলেন, তিন সন্তানকে তিনি একাই লালনপালন করছেন। তাঁর স্বামী প্রায়ই বাড়ির বাইরে থাকেন। কাজের জন্য বাইরে থাকায় কখনো কখনো টানা কয়েক মাস তিনি (স্বামী) বাড়িতে আসেন না। কিন্তু স্বামী যখন তাঁকে অবিশ্বাস করা শুরু করলেন, তখন তিনি বিস্মিত হয়েছেন। এমনকি তিনি যখন বন্ধুদের সঙ্গে শপিং করতে কিংবা অন্য কোথাও যেতেন, তখনো গোয়েন্দাগিরি চালিয়েছেন স্বামী। উভয় পক্ষের কথা শোনার পরই আদালত বিবাহবিচ্ছেদের অনুমতি দিয়েছেন। এতে সন্তানদের দায়িত্ব তাঁদের মায়ের ওপর অর্পণ করা হয়েছে। এ ছাড়া আদালত নির্দেশ দিয়েছেন যে বাড়ি থেকে তাঁদের বের করে দেওয়া হয়েছিল, সেই বাড়িতেই তাঁরা বসবাস করবেন। একই সঙ্গে তিন সন্তানের ভরণপোষণ, স্কুলের বেতন-ভাতাও দেবেন তাদের বাবা। তথ্যসূত্র: খালিজটাইমস ডটকম।

Comments

Comments!

 স্ত্রীকে অবিশ্বাস, বাড়িতে সিসি ক্যামেরা!AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

স্ত্রীকে অবিশ্বাস, বাড়িতে সিসি ক্যামেরা!

Sunday, July 16, 2017 10:21 pm
156b98c2db30b99ceee2e69b8e47dbb0-596b8369cd7f3

আরব আমিরাতে এক ব্যক্তির সন্দেহ, তাঁর স্ত্রীর অন্য পুরুষের সঙ্গে সম্পর্ক আছে। আর এ জন্য তিনি পুরো বাড়িতে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা (সিসি) বসিয়েছেন। এদিকে তাঁকে নিয়ে ‘অপমানজনক’ মন্তব্য করায় ওই নারী পারিবারিক আদালতে বিবাহবিচ্ছেদের মামলা করেছেন। আমিরাতের আল আইন এলাকায় ঘটেছে এমন ঘটনা।

কাজের জন্য ওই ব্যক্তি মাসের পর মাস বাড়ির বাইরে থাকেন। কিন্তু যেহেতু সন্দেহ করছেন যে অন্য পুরুষদের সঙ্গে তার স্ত্রীর সম্পর্ক আছে, তাই তিনি বাড়িতে গোপন ক্যামেরা বসিয়েছেন। এ নিয়ে একদিন হঠাৎ স্ত্রীকে পেটান তিনি। পেটাতে পেটাতে একপর্যায়ে তিন সন্তানসহ স্ত্রীকে বাড়ি থেকে বের করে দেন। বিতাড়িত স্ত্রী দেশটির পারিবারিক আদালতে বিবাহবিচ্ছেদের মামলা করেছেন।

আদালতকে ৩৩ বছর বয়সী ওই নারী জানান, অন্য পুরুষদের সঙ্গে পরকীয়ার অভিযোগ এনে তাঁকে কাজের লোক এবং সন্তানদের সামনে পেটান তাঁর স্বামী। পেটানোর পর বাড়ি থেকে বের করে দেন তাঁর স্বামী। একটি প্রতিষ্ঠানে বেশ ভালো পদে চাকরি করা ওই নারী জানান, বাড়িটি নির্মাণে তিনিও আর্থিকভাবে সহযোগিতা করেছেন।

ওই নারী আদালতে বলেন, তিন সন্তানকে তিনি একাই লালনপালন করছেন। তাঁর স্বামী প্রায়ই বাড়ির বাইরে থাকেন। কাজের জন্য বাইরে থাকায় কখনো কখনো টানা কয়েক মাস তিনি (স্বামী) বাড়িতে আসেন না। কিন্তু স্বামী যখন তাঁকে অবিশ্বাস করা শুরু করলেন, তখন তিনি বিস্মিত হয়েছেন। এমনকি তিনি যখন বন্ধুদের সঙ্গে শপিং করতে কিংবা অন্য কোথাও যেতেন, তখনো গোয়েন্দাগিরি চালিয়েছেন স্বামী।

উভয় পক্ষের কথা শোনার পরই আদালত বিবাহবিচ্ছেদের অনুমতি দিয়েছেন। এতে সন্তানদের দায়িত্ব তাঁদের মায়ের ওপর অর্পণ করা হয়েছে। এ ছাড়া আদালত নির্দেশ দিয়েছেন যে বাড়ি থেকে তাঁদের বের করে দেওয়া হয়েছিল, সেই বাড়িতেই তাঁরা বসবাস করবেন। একই সঙ্গে তিন সন্তানের ভরণপোষণ, স্কুলের বেতন-ভাতাও দেবেন তাদের বাবা। তথ্যসূত্র: খালিজটাইমস ডটকম।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X