সোমবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৭ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৯:৫২
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Tuesday, September 6, 2016 9:07 am
A- A A+ Print

হাজার কোটি টাকার ঋণখেলাপি, হাতে ৫০ লাখ টাকার ঘড়ি!

241101_1

বিভিন্ন ব্যাংকে তার খেলাপি ঋণের মোট পরিমাণ হাজার কোটি টাকা। দুর্নীতির দায়ে তাকে গ্রেফতার করেছিল দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদুক)। কিন্তু আটকে রাখা যায়নি। গ্রেফতারের ৩ মাসের মাথায় উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে বেরিয়ে এসেছিলেন। যদিও সেই জামিন আপিল বিভাগে বাতিল হয়ে যায়। তবে ব্যক্তিটি কিন্তু ঠিকই বহাল তবিয়তে রয়েছেন। হাত ৫০ লাখ টাকা মূল্যের ঘড়ি পড়ে ঘুরে বেড়ান। তার স্বজনরা এ নিয়ে গর্বিত। সবাইকে বলে বেড়ান ঘড়িটি ২২ ক্যারট স্বর্ণ দিয়ে তৈরি। যিনি সেটা পড়েন তিনিও এ নিয়ে গর্বিত। কেউ দেখতে চাইলে বেশ উৎসাহ ভরে ঘড়ি পরা হাত বাড়িয়ে দেন। জামিন বাতিল হলেও খুলনায় বর্তমানে দিব্যি রয়েছেন তিনি। হাজার কোটি টাকার ঋণখেলাপি এই ব্যক্তিটির নাম টিপু সুলতান। যিনি স্থানীয়দের কাছে ‘খুলনা দৌলতপুরের জামাই’ বলেও পরিচিত। তার নামের পূর্বে ‘আলহাজ’ উপাধিও রয়েছে। নানা কারণে ব্যাংক পাড়ায় এবং খুলনার পাট রপ্তানীকারকদের কাছে বহুল আলোচিত-সমালোচিত এই টিপু সুলতান নামক ব্যক্তিটি। তার একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির নাম ঢাকা ট্রেডিং হাউস। টিপু সুলতানের আদি বাড়ি বগুড়া । বর্তমানে তিনি  খুলনায় বসবাস করেন। জনতা ব্যাংকের ২৭২ কোটি টাকা আত্মসাৎ করায় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) তাকে চলতি বছর ৩১ মার্চ গ্রেফতার করেছিল। উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে তিন মাস পর বেরও হয়েছিলেন । কিন্তু হাইকোর্টের দেওয়া জামিন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের ৫ সদস্যের বেঞ্চ গত ২৮ আগস্ট বাতিল করে দেন। এই বেঞ্চে ছিলেন প্রধান বিচারপ্রতি এস কে সিনহা । জানা যায়, বেশী দামে পাট কিনে কম দামে পাট রপ্তানী করে খুলনার প্রকৃত পাট রপ্তানীকারকদের দৃষ্টি আকর্ষন করেছিলেন টিপু সুলতান। এর কারণ অনুসন্ধান করতে গিয়ে বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা গেছে, পাট রপ্তানীতে স্বর্ণপদক পাবার আশায় বাকিতে পাট কিনে কম দামে রপ্তানী করেছেন তিনি । এখানেই শেষ নয়। একদিকে ব্যাপারীদের টাকা বাকি, অন্যদিকে গুদাম ভর্তি পাট; সেই পাট দেখিয়ে রুপালী ব্যাংকের দৌলতপুর কর্পোরেট শাখা থেকে প্লেজ ঋণগ্রহণ করা তার স্বভাবে পরিণত হয়েছিল বলে অভিযোগ রয়েছে। ঢাকা ট্রেডিং হাউস যখন যাত্রা শুরু করেছিল তখন টিপু সুলতানের ব্যবসায় কয়েকজন পাটনার ছিলেন। কিন্তু তার এই টাকা আত্মসাৎ-এর মনোভাব দেখে তারা সরে পড়েন।  

Comments

Comments!

 হাজার কোটি টাকার ঋণখেলাপি, হাতে ৫০ লাখ টাকার ঘড়ি!AmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

হাজার কোটি টাকার ঋণখেলাপি, হাতে ৫০ লাখ টাকার ঘড়ি!

Tuesday, September 6, 2016 9:07 am
241101_1

বিভিন্ন ব্যাংকে তার খেলাপি ঋণের মোট পরিমাণ হাজার কোটি টাকা। দুর্নীতির দায়ে তাকে গ্রেফতার করেছিল দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদুক)। কিন্তু আটকে রাখা যায়নি। গ্রেফতারের ৩ মাসের মাথায় উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে বেরিয়ে এসেছিলেন। যদিও সেই জামিন আপিল বিভাগে বাতিল হয়ে যায়। তবে ব্যক্তিটি কিন্তু ঠিকই বহাল তবিয়তে রয়েছেন। হাত ৫০ লাখ টাকা মূল্যের ঘড়ি পড়ে ঘুরে বেড়ান। তার স্বজনরা এ নিয়ে গর্বিত। সবাইকে বলে বেড়ান ঘড়িটি ২২ ক্যারট স্বর্ণ দিয়ে তৈরি। যিনি সেটা পড়েন তিনিও এ নিয়ে গর্বিত। কেউ দেখতে চাইলে বেশ উৎসাহ ভরে ঘড়ি পরা হাত বাড়িয়ে দেন। জামিন বাতিল হলেও খুলনায় বর্তমানে দিব্যি রয়েছেন তিনি।

হাজার কোটি টাকার ঋণখেলাপি এই ব্যক্তিটির নাম টিপু সুলতান। যিনি স্থানীয়দের কাছে ‘খুলনা দৌলতপুরের জামাই’ বলেও পরিচিত। তার নামের পূর্বে ‘আলহাজ’ উপাধিও রয়েছে। নানা কারণে ব্যাংক পাড়ায় এবং খুলনার পাট রপ্তানীকারকদের কাছে বহুল আলোচিত-সমালোচিত এই টিপু সুলতান নামক ব্যক্তিটি। তার একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির নাম ঢাকা ট্রেডিং হাউস।

টিপু সুলতানের আদি বাড়ি বগুড়া । বর্তমানে তিনি  খুলনায় বসবাস করেন। জনতা ব্যাংকের ২৭২ কোটি টাকা আত্মসাৎ করায় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) তাকে চলতি বছর ৩১ মার্চ গ্রেফতার করেছিল। উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে তিন মাস পর বেরও হয়েছিলেন । কিন্তু হাইকোর্টের দেওয়া জামিন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের ৫ সদস্যের বেঞ্চ গত ২৮ আগস্ট বাতিল করে দেন। এই বেঞ্চে ছিলেন প্রধান বিচারপ্রতি এস কে সিনহা ।

জানা যায়, বেশী দামে পাট কিনে কম দামে পাট রপ্তানী করে খুলনার প্রকৃত পাট রপ্তানীকারকদের দৃষ্টি আকর্ষন করেছিলেন টিপু সুলতান। এর কারণ অনুসন্ধান করতে গিয়ে বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা গেছে, পাট রপ্তানীতে স্বর্ণপদক পাবার আশায় বাকিতে পাট কিনে কম দামে রপ্তানী করেছেন তিনি ।

এখানেই শেষ নয়। একদিকে ব্যাপারীদের টাকা বাকি, অন্যদিকে গুদাম ভর্তি পাট; সেই পাট দেখিয়ে রুপালী ব্যাংকের দৌলতপুর কর্পোরেট শাখা থেকে প্লেজ ঋণগ্রহণ করা তার স্বভাবে পরিণত হয়েছিল বলে অভিযোগ রয়েছে।

ঢাকা ট্রেডিং হাউস যখন যাত্রা শুরু করেছিল তখন টিপু সুলতানের ব্যবসায় কয়েকজন পাটনার ছিলেন। কিন্তু তার এই টাকা আত্মসাৎ-এর মনোভাব দেখে তারা সরে পড়েন।

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X