শনিবার, ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সন্ধ্যা ৬:০৫
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Monday, May 8, 2017 8:12 pm
A- A A+ Print

হাশিম আমলাকেও ‘ছাড়ল না’ আইপিএল

090

লেগ স্টাম্পের অনেক বাইরে সরে এলেন। উদ্দেশ্য অফসাইডে স্কুপ করা। বোলার জেমস ফকনার হাশিম আমলার উদ্দেশ্য ধরে ফেললেন। বলের লাইন বদলে দিলেন। লেগ স্টাম্পের আরও বাইরে। আমলাও বদলালেন পরিকল্পনা। লেগেই স্কুপ করলেন। সবকিছুই ঘটে গেল কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে। আমলার এই শটটা যেন হয়ে থাকল প্রতীক। এবারের আইপিএলে এমন উদ্ভাবনী শট অনেকবারই খেলেছেন দক্ষিণ আফ্রিকান ব্যাটসম্যান। আমলা, ব্যাকরণ মেনে ব্যাট করতেই ভালোবাসেন যিনি, তাঁকেও ‌‘মুক্তি’ দিল না আইপিএল। এমনই শটের ফুলঝুড়ি ছুটিয়ে কাল ৬০ বলে ১০৪ রানের এক ইনিংস খেললেন গুজরাট লায়নসের বিপক্ষে। কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের হয়ে এই মৌসুমে যেটি তাঁর দ্বিতীয় সেঞ্চুরি। নিজের টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে এক যুগে সেঞ্চুরি পাননি কখনোই। এবার ১৭ দিনের ব্যবধানে করে ফেললেন দুটি সেঞ্চুরি। ২০ এপ্রিল মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের বিপক্ষেও ৬০ বলে ১০৪ রান করেছিলেন আমলা। কালও তা-ই। ২০ এপ্রিলের ইনিংসে ফিফটি ছুঁয়েছিলেন ৩৪ বলে, সেঞ্চুরি ৫৮ বলে। কাল ফিফটি করেছেন ৩৫ বলে, সেঞ্চুরি ৫৯ বলে! দুই জায়গাতেই একটি করে বল বেশি লেগেছে। আইপিএলের শুরু থেকে নিজেকে সরিয়ে রেখেছিলেন গ্ল্যামার ক্রিকেটের এই দুনিয়া থেকে। নিজে প্রকাশ্যে আইপিএলের অনেক নেতিবাচক দিক সম্পর্কে বলেছিলেন। ফ্রাঞ্চাইজিগুলোও আমলার ব্যাপারে খুব বেশি আগ্রহ দেখায়নি। দক্ষিণ আফ্রিকা টি-টোয়েন্টি দলেই সুযোগ মিলেছিল ঢের পরে। কারণ একটাই, তাঁর ব্যাকরণসিদ্ধ ব্যাটিংকে মনে করা হতো টি-টোয়েন্টির অনুপযোগী। গত বছর প্রথম শন মার্শের বদলি হিসেবে পাঞ্জাবে খেলে আইপিএলের স্বাদ পান। সেবার ৬ ম্যাচ খেলে করেছিলেন ১৫৭ রান। এবার ১০ ম্যাচে দুটি করে সেঞ্চুরি ও ফিফটিতে ৬০ গড়ে করেছেন ৪২০ রান। ধুন্ধুমার ক্রিকেটটা নিজেও বেশ উপভোগ করছেন বোঝা যাচ্ছে। মাঝেমধ্যে নিজের নামের সঙ্গে মানানসই নয় এমন শটও খেলতে দেখা যাচ্ছে। তবে আমলা এখনো মনে করেন, যেকোনো ধরনের ক্রিকেটে বেসিক শট খেলাই রান তোলার আসল সূত্র। আইপিএলের বাইরের রংবাহারি অংশটার ছোঁয়াচ বাঁচিয়ে চলা আমলা এও বলছেন, এ ধরনের ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্ট যে ক্রিকেটের দৃশ্যপট বদলে দিচ্ছে, এই বাস্তবতা মেনে নেওয়ার সময় এসেছে। আইপিএল, বিগ ব্যাশকে এড়িয়ে চলার সুযোগ আর নেই। যেটা প্রভাবিত করছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকেও।

Comments

Comments!

 হাশিম আমলাকেও ‘ছাড়ল না’ আইপিএলAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

হাশিম আমলাকেও ‘ছাড়ল না’ আইপিএল

Monday, May 8, 2017 8:12 pm
090

লেগ স্টাম্পের অনেক বাইরে সরে এলেন। উদ্দেশ্য অফসাইডে স্কুপ করা। বোলার জেমস ফকনার হাশিম আমলার উদ্দেশ্য ধরে ফেললেন। বলের লাইন বদলে দিলেন। লেগ স্টাম্পের আরও বাইরে। আমলাও বদলালেন পরিকল্পনা। লেগেই স্কুপ করলেন। সবকিছুই ঘটে গেল কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে। আমলার এই শটটা যেন হয়ে থাকল প্রতীক। এবারের আইপিএলে এমন উদ্ভাবনী শট অনেকবারই খেলেছেন দক্ষিণ আফ্রিকান ব্যাটসম্যান। আমলা, ব্যাকরণ মেনে ব্যাট করতেই ভালোবাসেন যিনি, তাঁকেও ‌‘মুক্তি’ দিল না আইপিএল।

এমনই শটের ফুলঝুড়ি ছুটিয়ে কাল ৬০ বলে ১০৪ রানের এক ইনিংস খেললেন গুজরাট লায়নসের বিপক্ষে। কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের হয়ে এই মৌসুমে যেটি তাঁর দ্বিতীয় সেঞ্চুরি। নিজের টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে এক যুগে সেঞ্চুরি পাননি কখনোই। এবার ১৭ দিনের ব্যবধানে করে ফেললেন দুটি সেঞ্চুরি। ২০ এপ্রিল মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের বিপক্ষেও ৬০ বলে ১০৪ রান করেছিলেন আমলা। কালও তা-ই। ২০ এপ্রিলের ইনিংসে ফিফটি ছুঁয়েছিলেন ৩৪ বলে, সেঞ্চুরি ৫৮ বলে। কাল ফিফটি করেছেন ৩৫ বলে, সেঞ্চুরি ৫৯ বলে! দুই জায়গাতেই একটি করে বল বেশি লেগেছে।
আইপিএলের শুরু থেকে নিজেকে সরিয়ে রেখেছিলেন গ্ল্যামার ক্রিকেটের এই দুনিয়া থেকে। নিজে প্রকাশ্যে আইপিএলের অনেক নেতিবাচক দিক সম্পর্কে বলেছিলেন। ফ্রাঞ্চাইজিগুলোও আমলার ব্যাপারে খুব বেশি আগ্রহ দেখায়নি। দক্ষিণ আফ্রিকা টি-টোয়েন্টি দলেই সুযোগ মিলেছিল ঢের পরে। কারণ একটাই, তাঁর ব্যাকরণসিদ্ধ ব্যাটিংকে মনে করা হতো টি-টোয়েন্টির অনুপযোগী।
গত বছর প্রথম শন মার্শের বদলি হিসেবে পাঞ্জাবে খেলে আইপিএলের স্বাদ পান। সেবার ৬ ম্যাচ খেলে করেছিলেন ১৫৭ রান। এবার ১০ ম্যাচে দুটি করে সেঞ্চুরি ও ফিফটিতে ৬০ গড়ে করেছেন ৪২০ রান। ধুন্ধুমার ক্রিকেটটা নিজেও বেশ উপভোগ করছেন বোঝা যাচ্ছে। মাঝেমধ্যে নিজের নামের সঙ্গে মানানসই নয় এমন শটও খেলতে দেখা যাচ্ছে।
তবে আমলা এখনো মনে করেন, যেকোনো ধরনের ক্রিকেটে বেসিক শট খেলাই রান তোলার আসল সূত্র। আইপিএলের বাইরের রংবাহারি অংশটার ছোঁয়াচ বাঁচিয়ে চলা আমলা এও বলছেন, এ ধরনের ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্ট যে ক্রিকেটের দৃশ্যপট বদলে দিচ্ছে, এই বাস্তবতা মেনে নেওয়ার সময় এসেছে। আইপিএল, বিগ ব্যাশকে এড়িয়ে চলার সুযোগ আর নেই। যেটা প্রভাবিত করছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকেও।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X