বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ২:৪৮
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Thursday, September 7, 2017 7:06 pm
A- A A+ Print

হিন্দুত্ববাদের কট্টর সমালোচক নারী সাংবাদিক খুনের ঘটনায় ভারতজুড়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া

12

দিল্লি: ভারতের হিন্দুত্ববাদের কট্টর সমালোচক জ্যেষ্ঠ নারী সাংবাদিক, লেখক ও সক্রিয় কর্মী গৌরী লংকেশ (৫৫) খুনের ঘটনায় ভারতের বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও মানবাধিকার সংগঠনগুলো তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে। এ ঘটনায় বুধবার ভারতজুড়ে ব্যাপক বিক্ষোভ হয়েছে। বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার উদ্বিগ্ন মানুষ ও বিভিন্ন পত্রিকার সাংবাদিকেরা গৌরী লংকেশ হত্যার ঘটনাকে ভিন্নমতাবলম্বীদের প্রতি চূড়ান্ত অসহিষ্ণুতারই বহিঃপ্রকাশ বলে উল্লেখ করেছেন। কংগ্রেস সভাপতি সোনিয়া গান্ধী গৌরী লংকেশকে একজন নির্ভীক ও স্বাধীন ব্যক্তি হিসেবে বর্ণনা করে বলেন, ‘দেশের যুক্তিবাদী, মুক্ত চিন্তাবিদ ও সাংবাদিকদের ধারাবহিক হত্যাকাণ্ডের ঘটনা এমন এক পরিবেশের জন্ম দিয়েছে; যা মতানৈক্য, আদর্শিক পার্থক্য এবং দৃষ্টিভঙ্গির বিচ্ছিন্নতা আমাদের জীবনকে ঝুঁকির মুখে ফেলতে পারে।’ তিনি আরো বলেন, ‘এটা হতে পারে এবং তা সহ্য করাও উচিত নয়। আমাদের গণতন্ত্রের জন্য এটা অত্যন্ত দুঃখজনক মুহূর্ত এবং এটা সত্য যে, আমাদের সমাজে অসহিষ্ণুতা ও ধর্মান্ধতা হিংস্ররূপে মাথাচাড়া দিয়ে ওঠেছে।’ কংগ্রেসের সহ-সভাপতি রাহুল গান্ধী জানান, অপরাধীদেরকে ধরা এবং শাস্তি দেওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় এবং কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী সিদ্ধরামাইয়া তাকে এ বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘আরএসএস এবং বিজেপি’র বিরুদ্ধে যারাই কথা বলছে, তাদেরকে আক্রমণ করা হচ্ছে, এমনকি হত্যাও করা হচ্ছে। বিজেপি কেবল একটি মতাদর্শ আরোপ করতে চাচ্ছে যা ভারতের নীতির বিরুদ্ধে।’ কর্ণাটক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সিদারামাইয়া এই হত্যাকাণ্ডকে ‘গণতন্ত্র হত্যা’ বলে উল্লেখ করেছেন। ইন্ডিয়ান উইমেন্স প্রেস কর্পস (আইডব্লিউপিসি) গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছে, একজন সাংবাদিককে ‘থামিয়ে দেওয়া’ ভারতের গণতন্ত্রের জন্য ভয়ানক বার্তা বহন করে। রাজ্যের রাজধানী বেঙ্গালুরুর রাজারাজেশ্বরী নগরে গত মঙ্গলবার রাত আটটার দিকে সাংবাদিক গৌরী লংকেশকে তাঁর নিজ বাড়ির বাইরে খুব কাছ থেকে গুলি করে হত্যা করে দুষ্কৃতকারীরা। বাইকে চড়ে হানা দেওয়া তিন আততায়ী মোট সাতটি গুলি ছোড়ে ওই সাংবাদিককে লক্ষ্য করে। বাড়ির ছাদে যাওয়ার সিঁড়ি থেকে পুলিশ রাতেই তাঁর মরদেহ উদ্ধার করে। ভবনের সিসিটিভি ফুটেজ দেখে পুলিশ একজনকে শনাক্ত করেছে। পুলিশের সূত্র জানিয়েছে, সন্দেহভাজন ওই ব্যক্তি হেলমেট পরিহিত ছিলেন। সূত্র আরো জানায়, ঘটনার তদন্তে তিনটি দল কাজ করছে। রাজ্যের বিভিন্ন শহর থেকে গতকাল সাংবাদিকেরা প্রতিবাদ শোভাযাত্রা নিয়ে বেঙ্গালুরুর প্রাণকেন্দ্রে এক সমাবেশে মিলিত হন। তারা গৌরী লংকেশের মতো একজন প্রথিতযশা সাংবাদিক হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, প্রচলিত ধ্যান-ধারণার বিরোধিতা করা এবং হিন্দুত্ববাদের সমালোচনা করার খেসারত দিতে হয়েছে গৌরীকে। বিটি ভেঙ্কটেশ নামের এক আইনজীবী বলেন, এর মানে হলো ভিন্নমতাবলম্বীদের সহ্য করা হবে না। একটি পত্রিকার সম্পাদক নলিনী সিং বলেন, গৌরীর হত্যাকাণ্ড সাংবাদিক সম্প্রদায়ের হৃদয়ে ক্ষত সৃষ্টি করেছে। গৌরী লংকেশ বাম ঘরানার লংকেশ পত্রিকার সম্পাদক ছিলেন। তার বাবা ৪০ বছর আগে সাপ্তাহিক এই ট্যাবলয়েট পত্রিকা চালু করেন। এই পত্রিকায় প্রায়ই তিনি নকশালপন্থীদের পুনর্বাসনের পক্ষে এবং বিভেদ সৃষ্টিকারী রাজনীতির বিরুদ্ধে লিখতেন। দক্ষিণপন্থী রাজনীতির বিরোধিতায় বারবার সরব হয়েছেন বলেই তাঁকে খুন করা হলো বলে গোটা ভারতের সাংবাদিক মহল মনে করছে। সূত্র: দ্য ইকোনমিক্স টাইমস
 

Comments

Comments!

 হিন্দুত্ববাদের কট্টর সমালোচক নারী সাংবাদিক খুনের ঘটনায় ভারতজুড়ে তীব্র প্রতিক্রিয়াAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

হিন্দুত্ববাদের কট্টর সমালোচক নারী সাংবাদিক খুনের ঘটনায় ভারতজুড়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া

Thursday, September 7, 2017 7:06 pm
12

দিল্লি: ভারতের হিন্দুত্ববাদের কট্টর সমালোচক জ্যেষ্ঠ নারী সাংবাদিক, লেখক ও সক্রিয় কর্মী গৌরী লংকেশ (৫৫) খুনের ঘটনায় ভারতের বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও মানবাধিকার সংগঠনগুলো তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে।

এ ঘটনায় বুধবার ভারতজুড়ে ব্যাপক বিক্ষোভ হয়েছে। বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার উদ্বিগ্ন মানুষ ও বিভিন্ন পত্রিকার সাংবাদিকেরা গৌরী লংকেশ হত্যার ঘটনাকে ভিন্নমতাবলম্বীদের প্রতি চূড়ান্ত অসহিষ্ণুতারই বহিঃপ্রকাশ বলে উল্লেখ করেছেন।

কংগ্রেস সভাপতি সোনিয়া গান্ধী গৌরী লংকেশকে একজন নির্ভীক ও স্বাধীন ব্যক্তি হিসেবে বর্ণনা করে বলেন, ‘দেশের যুক্তিবাদী, মুক্ত চিন্তাবিদ ও সাংবাদিকদের ধারাবহিক হত্যাকাণ্ডের ঘটনা এমন এক পরিবেশের জন্ম দিয়েছে; যা মতানৈক্য, আদর্শিক পার্থক্য এবং দৃষ্টিভঙ্গির বিচ্ছিন্নতা আমাদের জীবনকে ঝুঁকির মুখে ফেলতে পারে।’

তিনি আরো বলেন, ‘এটা হতে পারে এবং তা সহ্য করাও উচিত নয়। আমাদের গণতন্ত্রের জন্য এটা অত্যন্ত দুঃখজনক মুহূর্ত এবং এটা সত্য যে, আমাদের সমাজে অসহিষ্ণুতা ও ধর্মান্ধতা হিংস্ররূপে মাথাচাড়া দিয়ে ওঠেছে।’

কংগ্রেসের সহ-সভাপতি রাহুল গান্ধী জানান, অপরাধীদেরকে ধরা এবং শাস্তি দেওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় এবং কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী সিদ্ধরামাইয়া তাকে এ বিষয়ে নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘আরএসএস এবং বিজেপি’র বিরুদ্ধে যারাই কথা বলছে, তাদেরকে আক্রমণ করা হচ্ছে, এমনকি হত্যাও করা হচ্ছে। বিজেপি কেবল একটি মতাদর্শ আরোপ করতে চাচ্ছে যা ভারতের নীতির বিরুদ্ধে।’

কর্ণাটক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সিদারামাইয়া এই হত্যাকাণ্ডকে ‘গণতন্ত্র হত্যা’ বলে উল্লেখ করেছেন। ইন্ডিয়ান উইমেন্স প্রেস কর্পস (আইডব্লিউপিসি) গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছে, একজন সাংবাদিককে ‘থামিয়ে দেওয়া’ ভারতের গণতন্ত্রের জন্য ভয়ানক বার্তা বহন করে।

রাজ্যের রাজধানী বেঙ্গালুরুর রাজারাজেশ্বরী নগরে গত মঙ্গলবার রাত আটটার দিকে সাংবাদিক গৌরী লংকেশকে তাঁর নিজ বাড়ির বাইরে খুব কাছ থেকে গুলি করে হত্যা করে দুষ্কৃতকারীরা। বাইকে চড়ে হানা দেওয়া তিন আততায়ী মোট সাতটি গুলি ছোড়ে ওই সাংবাদিককে লক্ষ্য করে। বাড়ির ছাদে যাওয়ার সিঁড়ি থেকে পুলিশ রাতেই তাঁর মরদেহ উদ্ধার করে। ভবনের সিসিটিভি ফুটেজ দেখে পুলিশ একজনকে শনাক্ত করেছে।

পুলিশের সূত্র জানিয়েছে, সন্দেহভাজন ওই ব্যক্তি হেলমেট পরিহিত ছিলেন। সূত্র আরো জানায়, ঘটনার তদন্তে তিনটি দল কাজ করছে।

রাজ্যের বিভিন্ন শহর থেকে গতকাল সাংবাদিকেরা প্রতিবাদ শোভাযাত্রা নিয়ে বেঙ্গালুরুর প্রাণকেন্দ্রে এক সমাবেশে মিলিত হন।

তারা গৌরী লংকেশের মতো একজন প্রথিতযশা সাংবাদিক হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, প্রচলিত ধ্যান-ধারণার বিরোধিতা করা এবং হিন্দুত্ববাদের সমালোচনা করার খেসারত দিতে হয়েছে গৌরীকে।

বিটি ভেঙ্কটেশ নামের এক আইনজীবী বলেন, এর মানে হলো ভিন্নমতাবলম্বীদের সহ্য করা হবে না। একটি পত্রিকার সম্পাদক নলিনী সিং বলেন, গৌরীর হত্যাকাণ্ড সাংবাদিক সম্প্রদায়ের হৃদয়ে ক্ষত সৃষ্টি করেছে।

গৌরী লংকেশ বাম ঘরানার লংকেশ পত্রিকার সম্পাদক ছিলেন। তার বাবা ৪০ বছর আগে সাপ্তাহিক এই ট্যাবলয়েট পত্রিকা চালু করেন। এই পত্রিকায় প্রায়ই তিনি নকশালপন্থীদের পুনর্বাসনের পক্ষে এবং বিভেদ সৃষ্টিকারী রাজনীতির বিরুদ্ধে লিখতেন। দক্ষিণপন্থী রাজনীতির বিরোধিতায় বারবার সরব হয়েছেন বলেই তাঁকে খুন করা হলো বলে গোটা ভারতের সাংবাদিক মহল মনে করছে।

সূত্র: দ্য ইকোনমিক্স টাইমস

 

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X