সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৪ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৩:৩৬
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Thursday, July 28, 2016 9:27 am
A- A A+ Print

হিলারির ই-মেইল হ্যাক করতে রাশিয়াকে ট্রাম্পের আহ্বান

148305_1

   
ঢাকা: যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালে সরকারি কাজে ব্যক্তিগত ই-মেইল ব্যবহারের অভিযোগ ওঠার পর হিলারি ক্লিনটন ত্রিশ হাজার ই-মেইল তদন্ত কর্মকর্তাদের কাছে হস্তান্তর করেননি। এদিকে মিসেস ক্লিনটনের ই-মেইল অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে সেগুলো প্রকাশ করতে রাশিয়ার প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। যুক্তরাষ্ট্রের রিপাবলিকান দলের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রতিপক্ষ প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের ই-মেইল হ্যাক করতে রাশিয়াকে উৎসাহ যোগাচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছে ডেমোক্র্যাটরা।
কয়েকদিন আগে ডেমোক্র্যাট দলীয় আরেক প্রার্থী বার্নি স্যান্ডার্সের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়া সংক্রান্ত কিছু ই-মেইল ফাঁস হবার পর প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা মন্তব্য করেছিলেন, এর পেছনে রাশিয়ার হাত থাকতে পারে। এরপরই এই বিতর্কের সূত্রপাত। ট্রাম্প বলছেন, ‘রাশিয়া, যদি তুমি এ বক্তব্য শুনে থাকো, আমি আশা করি হারিয়ে যাওয়া সেই ত্রিশ হাজার ই-মেইল তুমি খুঁজে বের করতে পারবে। আমার ধারণা এজন্য আমার দেশের গণমাধ্যম একদিন তোমাদের ধন্যবাদ দেবে’। ইতিমধ্যেই নিজের বক্তব্যের জন্য আলোচিত সমালোচিত ট্রাম্প, নিজের স্বভাবসুলভ হালকা মেজাজেই ঐ বক্তব্য রেখেছিলেন। কিন্তু এখন সেটিই হয়ে দাঁড়িয়েছে দেশটির প্রেসিডেন্ট পদের জন্য লড়াইরত দুই প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বীর প্রধান বিতর্ক। যদিও ঐ বক্তৃতার পরই নিজের টুইটারে তিনি লিখেছিলেন যদি কেউ হারানো মেইলগুলো খুঁজে পায়, তাহলে সেগুলো এফবিআই এর কাছে তুলে দেয়া উচিত হবে। কিন্তু তাতে শেষ রক্ষা হয়নি। এখন অভিযোগ দাঁড়িয়েছে, ডেমোক্রেটিক ন্যাশনাল কমিটির ইমেইল হ্যাকিংএর জন্য রাশিয়া দায়ী এবং তা করতেও উৎসাহ যুগিয়েছেন ট্রাম্প। যদিও রাশিয়া এবং ট্রাম্প উভয়েই এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। মি. ট্রাম্প বলছেন, ‘এটি ছিল একটি দূর কল্পনা। এটা এতো হাস্যকর। কিন্তু রাশিয়ার আমাদের দেশের জন্য কোনো সম্মান নেই। তারা এটা করতে পারে, কিংবা হয়তো চীন করেছে বা নিজের বিছানায় শুয়ে অন্য কেউ। কিন্তু এটা দেখিয়ে দিচ্ছে আমাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা কত দুর্বল’। এখন রাশিয়া এই ই-মেইল হ্যাকের সঙ্গে জড়িত ছিল এমন সম্ভাবনা বুধবার রাতে নাকচ করে দেন মি. ট্রাম্প। তবে, ডেমোক্রেটিকরা বলছে, যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথমবারের মত একজন প্রেসিডেন্ট প্রার্থী বিদেশি শক্তিকে নিজের প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে নজরদারি করতে আহ্বান জানিয়েছে। এদিকে, ডেমোক্রেটিক দলের কনভেনশন এখনো শেষ হয়নি।

Comments

Comments!

 হিলারির ই-মেইল হ্যাক করতে রাশিয়াকে ট্রাম্পের আহ্বানAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

হিলারির ই-মেইল হ্যাক করতে রাশিয়াকে ট্রাম্পের আহ্বান

Thursday, July 28, 2016 9:27 am
148305_1

 

 

ঢাকা: যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালে সরকারি কাজে ব্যক্তিগত ই-মেইল ব্যবহারের অভিযোগ ওঠার পর হিলারি ক্লিনটন ত্রিশ হাজার ই-মেইল তদন্ত কর্মকর্তাদের কাছে হস্তান্তর করেননি।

এদিকে মিসেস ক্লিনটনের ই-মেইল অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে সেগুলো প্রকাশ করতে রাশিয়ার প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন রিপাবলিকান প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প।

যুক্তরাষ্ট্রের রিপাবলিকান দলের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রতিপক্ষ প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের ই-মেইল হ্যাক করতে রাশিয়াকে উৎসাহ যোগাচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছে ডেমোক্র্যাটরা।

কয়েকদিন আগে ডেমোক্র্যাট দলীয় আরেক প্রার্থী বার্নি স্যান্ডার্সের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়া সংক্রান্ত কিছু ই-মেইল ফাঁস হবার পর প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা মন্তব্য করেছিলেন, এর পেছনে রাশিয়ার হাত থাকতে পারে। এরপরই এই বিতর্কের সূত্রপাত।

ট্রাম্প বলছেন, ‘রাশিয়া, যদি তুমি এ বক্তব্য শুনে থাকো, আমি আশা করি হারিয়ে যাওয়া সেই ত্রিশ হাজার ই-মেইল তুমি খুঁজে বের করতে পারবে। আমার ধারণা এজন্য আমার দেশের গণমাধ্যম একদিন তোমাদের ধন্যবাদ দেবে’।

ইতিমধ্যেই নিজের বক্তব্যের জন্য আলোচিত সমালোচিত ট্রাম্প, নিজের স্বভাবসুলভ হালকা মেজাজেই ঐ বক্তব্য রেখেছিলেন।

কিন্তু এখন সেটিই হয়ে দাঁড়িয়েছে দেশটির প্রেসিডেন্ট পদের জন্য লড়াইরত দুই প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বীর প্রধান বিতর্ক।

যদিও ঐ বক্তৃতার পরই নিজের টুইটারে তিনি লিখেছিলেন যদি কেউ হারানো মেইলগুলো খুঁজে পায়, তাহলে সেগুলো এফবিআই এর কাছে তুলে দেয়া উচিত হবে।

কিন্তু তাতে শেষ রক্ষা হয়নি। এখন অভিযোগ দাঁড়িয়েছে, ডেমোক্রেটিক ন্যাশনাল কমিটির ইমেইল হ্যাকিংএর জন্য রাশিয়া দায়ী এবং তা করতেও উৎসাহ যুগিয়েছেন ট্রাম্প।

যদিও রাশিয়া এবং ট্রাম্প উভয়েই এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

মি. ট্রাম্প বলছেন, ‘এটি ছিল একটি দূর কল্পনা। এটা এতো হাস্যকর। কিন্তু রাশিয়ার আমাদের দেশের জন্য কোনো সম্মান নেই। তারা এটা করতে পারে, কিংবা হয়তো চীন করেছে বা নিজের বিছানায় শুয়ে অন্য কেউ। কিন্তু এটা দেখিয়ে দিচ্ছে আমাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা কত দুর্বল’।

এখন রাশিয়া এই ই-মেইল হ্যাকের সঙ্গে জড়িত ছিল এমন সম্ভাবনা বুধবার রাতে নাকচ করে দেন মি. ট্রাম্প।

তবে, ডেমোক্রেটিকরা বলছে, যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথমবারের মত একজন প্রেসিডেন্ট প্রার্থী বিদেশি শক্তিকে নিজের প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে নজরদারি করতে আহ্বান জানিয়েছে।

এদিকে, ডেমোক্রেটিক দলের কনভেনশন এখনো শেষ হয়নি।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X