শুক্রবার, ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, বিকাল ৪:২৭
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, November 13, 2016 10:58 am
A- A A+ Print

হিলারির জন্য ৩০ লাখ মার্কিনির আবেদন

8787

ডেমোক্রেট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনকে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত করার এক আবেদনে সই করেছেন দেশটির ৩০ লাখেরও বেশি নাগরিক। আবেদনে ইলেক্টোরাল কলেজের সদস্যদেরকে আগামী মাসের বৈঠকে এ নির্বাচন সম্পন্ন করার আর্জি জানানো হয়েছে। খবর ডেইলি মেইলের। আবেদনকারীরা বলেছেন, পপুলার (জনগণের) ভোটে প্রায় ৩ লাখ ভোটের ব্যবধানে রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে পরাজিত করেছেন হিলারি ক্লিনটন। কাজেই তাকে প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করতে হবে। যুক্তরাষ্ট্রের জটিল প্রেসিডেন্ট নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় পপুলার ভোট কম পেয়েও ইলেক্টোরাল কলেজ ভোটে অনেক সময় প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়ে থাকেন। এবার ট্রাম্পও কম ভোট পেয়ে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন। চেঞ্জ ডট অর্গ নামের একটি সংগঠনের করা এ আবেদনে বলা হয়েছে, ট্রাম্প প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালনের যোগ্য নন। তিনি এ পর্যন্ত বহু মার্কিন নাগরিককে বলির পাঁঠা বানিয়েছেন, দম্ভ দেখিয়েছেন, যৌন নিপীড়ন চালিয়েছেন এবং সর্বোপরি প্রশাসন চালানোর অনভিজ্ঞতা তাকে প্রেসিডেন্ট পদে একজন বিপজ্জনক ব্যক্তিতে পরিণত করবে। আবেদনে আরও বলা হয়েছে, ‘হিলারি ক্লিনটন পপুলার ভোটে জয়ী হয়েছেন এবং তাকেই প্রেসিডেন্ট করতে হবে।’ যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনী ব্যবস্থায় প্রতি চার বছর পরপর ইলেক্টোরাল কলেজের সদস্যরা দেশটির প্রেসিডেন্ট ও ভাইস প্রেসিডেন্টকে নির্বাচিত করেন। আগামী ১৯ ডিসেম্বর এ কলেজের ৫৩৮ সদস্য প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। সাধারণত জনগণের ভোটে নির্বাচিত প্রেসিডেন্টকেই তারা অনুমোদন দেন। কিন্তু কারিগরিভাবে প্রথা ভেঙে জননির্বাচিত প্রেসিডেন্টকে বাদ দিয়ে অন্য কোনো প্রার্থীকে বেছে নেয়ার অধিকার তাদের রয়েছে। অনেকে বলছেন, এ কারণে হিলারির প্রেসিডেন্ট হওয়ার একটা সম্ভাবনা এখনও আছে। অনেক সময় ইলেক্টররা বিপক্ষ দলের প্রার্থীকে ভোট দিয়েছেন। তবে দেশটির তাতে কখনও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফল পাল্টে যায়নি।

Comments

Comments!

 হিলারির জন্য ৩০ লাখ মার্কিনির আবেদনAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

হিলারির জন্য ৩০ লাখ মার্কিনির আবেদন

Sunday, November 13, 2016 10:58 am
8787

ডেমোক্রেট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনকে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত করার এক আবেদনে সই করেছেন দেশটির ৩০ লাখেরও বেশি নাগরিক। আবেদনে ইলেক্টোরাল কলেজের সদস্যদেরকে আগামী মাসের বৈঠকে এ নির্বাচন সম্পন্ন করার আর্জি জানানো হয়েছে। খবর ডেইলি মেইলের।

আবেদনকারীরা বলেছেন, পপুলার (জনগণের) ভোটে প্রায় ৩ লাখ ভোটের ব্যবধানে রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে পরাজিত করেছেন হিলারি ক্লিনটন। কাজেই তাকে প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করতে হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের জটিল প্রেসিডেন্ট নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় পপুলার ভোট কম পেয়েও ইলেক্টোরাল কলেজ ভোটে অনেক সময় প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়ে থাকেন। এবার ট্রাম্পও কম ভোট পেয়ে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন।

চেঞ্জ ডট অর্গ নামের একটি সংগঠনের করা এ আবেদনে বলা হয়েছে, ট্রাম্প প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালনের যোগ্য নন। তিনি এ পর্যন্ত বহু মার্কিন নাগরিককে বলির পাঁঠা বানিয়েছেন, দম্ভ দেখিয়েছেন, যৌন নিপীড়ন চালিয়েছেন এবং সর্বোপরি প্রশাসন চালানোর অনভিজ্ঞতা তাকে প্রেসিডেন্ট পদে একজন বিপজ্জনক ব্যক্তিতে পরিণত করবে।

আবেদনে আরও বলা হয়েছে, ‘হিলারি ক্লিনটন পপুলার ভোটে জয়ী হয়েছেন এবং তাকেই প্রেসিডেন্ট করতে হবে।’

যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনী ব্যবস্থায় প্রতি চার বছর পরপর ইলেক্টোরাল কলেজের সদস্যরা দেশটির প্রেসিডেন্ট ও ভাইস প্রেসিডেন্টকে নির্বাচিত করেন। আগামী ১৯ ডিসেম্বর এ কলেজের ৫৩৮ সদস্য প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

সাধারণত জনগণের ভোটে নির্বাচিত প্রেসিডেন্টকেই তারা অনুমোদন দেন। কিন্তু কারিগরিভাবে প্রথা ভেঙে জননির্বাচিত প্রেসিডেন্টকে বাদ দিয়ে অন্য কোনো প্রার্থীকে বেছে নেয়ার অধিকার তাদের রয়েছে।

অনেকে বলছেন, এ কারণে হিলারির প্রেসিডেন্ট হওয়ার একটা সম্ভাবনা এখনও আছে। অনেক সময় ইলেক্টররা বিপক্ষ দলের প্রার্থীকে ভোট দিয়েছেন। তবে দেশটির তাতে কখনও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফল পাল্টে যায়নি।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X