রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৬:০৯
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, December 11, 2016 2:32 am
A- A A+ Print

হৃদয়ভাঙা গল্প শোনালেন ব্রিটিশ এমপি

59cb502d7ca1e77616e4d628b12e26f7-thams

হৃদয়ভাঙা গল্প শোনালেন ব্রিটিশ এমপি মিচেল টমসন। ব্রিটিশ পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ হাউস অব কমনসে তিনি শোনালেন নিজের জীবনের দুর্বিষহ এক ঘটনার কথা। বর্ণনা দিলেন ১৪ বছর বয়সে কীভাবে ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন তিনি! হাউস অব কমনসে নারীর প্রতি সহিংসতা নির্মূলে জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষে বিতর্ক চলাকালে স্বতন্ত্র এমপি টমসন এই বর্ণনা দেন। তাঁর বক্তব্য শেষ হওয়ার পর স্পিকার জন বারকাওসহ স্কটিশ ন্যাশনাল পার্টির (এসএনপি) সাবেক সহকর্মীরা তাঁকে সান্ত্বনা দেন। ৫১ বছর বয়সী টমসন বলেন, ‘আমার বয়স যখন ১৪, তখন আমি ধর্ষণের শিকার হয়েছিলাম। ধর্ষক ছিলেন আমারই পরিচিত একজন।’ তিনি আরও বলেন, ‘শিশুদের একটি অনুষ্ঠান থেকে হেঁটে বাড়ি যাওয়ার সময় ওই ব্যক্তি আমাকে পৌঁছে দেওয়ার প্রস্তাব দেন। তখন সবেমাত্র সন্ধ্যা শুরু হয়েছে। আমরা ভিন্ন পথ দিয়ে যাচ্ছিলাম, কারণ এ ধরনের কিছু ঘটবে, সে ব্যাপারে আমার ধারণাই ছিল না। পথে যেতে যেতে একপর্যায়ে লোকটি আমাকে গাছপালা থাকা একটা জায়গায় কিছু একটা দেখাতে চাইলেন। তখন আমার মনে একধরনের সতর্কসংকেত বেজে ওঠে। তবে লোকটি আমার পরিচিত হওয়ায় আমি সেটাকে পাত্তা দিইনি। সত্যি কথা বলতে কি, আমার মনে হয় না ওই সময় ধর্ষণ বিষয়ে আমার কোনো ধারণা ছিল।’ টমসন বলেন, ‘ঘটনাটি দ্রুত ঘটে যায়। প্রথমে আমি অবাক হয়ে যাই। পরে আমি ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়ি। লোকটি আমার চেয়ে শক্তিশালী হওয়ায় আমি পালাতে পারছিলাম না। আমার অনুভূতি কাজ করছিল না। পরে আমি তীব্র শীতের মধ্যে কাঁদতে কাঁদতে বাড়ি ফিরি। আমি আমার বাবা-মা, বন্ধুবান্ধব ও পুলিশকে কিছু জানাইনি। ঘটনাটি কেবল আমার মধ্যেই ছিল।’ টমসন বলেন, পরে ওই ঘটনার জন্য তিনি ‘লজ্জা’ বোধ করেন এই ভেবে যে এ ধরনের ঘটনা তিনি ঘটার সুযোগ দিয়েছেন। তিনি আরও বলেন, ‘আমি নিজেকে অপবিত্র অনুভব করি এবং নিজেকেই ঘৃণা করতে থাকি। পরে আমি আমার বয়সী শিশুদের থেকে আলাদা হয়ে পড়ি।’ টমসন বলেন, ‘১৪ বছর বয়সে সম্ভবত আমার যৌনতা বিষয়টি বোধগম্য হওয়া শুরু হয়। আমার কাছে মনে হতো যৌনতা হলো এমন জিনিস, যা পুরুষেরা নারীদের সঙ্গে করে থাকে। হয়তোবা আমার জীবনে ঘটে যাওয়া ওই ঘটনার কারণেই আমার ওই বোধ তৈরি হয়।’

Comments

Comments!

 হৃদয়ভাঙা গল্প শোনালেন ব্রিটিশ এমপিAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

হৃদয়ভাঙা গল্প শোনালেন ব্রিটিশ এমপি

Sunday, December 11, 2016 2:32 am
59cb502d7ca1e77616e4d628b12e26f7-thams

হৃদয়ভাঙা গল্প শোনালেন ব্রিটিশ এমপি মিচেল টমসন। ব্রিটিশ পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ হাউস অব কমনসে তিনি শোনালেন নিজের জীবনের দুর্বিষহ এক ঘটনার কথা। বর্ণনা দিলেন ১৪ বছর বয়সে কীভাবে ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন তিনি!
হাউস অব কমনসে নারীর প্রতি সহিংসতা নির্মূলে জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষে বিতর্ক চলাকালে স্বতন্ত্র এমপি টমসন এই বর্ণনা দেন। তাঁর বক্তব্য শেষ হওয়ার পর স্পিকার জন বারকাওসহ স্কটিশ ন্যাশনাল পার্টির (এসএনপি) সাবেক সহকর্মীরা তাঁকে সান্ত্বনা দেন।
৫১ বছর বয়সী টমসন বলেন, ‘আমার বয়স যখন ১৪, তখন আমি ধর্ষণের শিকার হয়েছিলাম। ধর্ষক ছিলেন আমারই পরিচিত একজন।’ তিনি আরও বলেন, ‘শিশুদের একটি অনুষ্ঠান থেকে হেঁটে বাড়ি যাওয়ার সময় ওই ব্যক্তি আমাকে পৌঁছে দেওয়ার প্রস্তাব দেন। তখন সবেমাত্র সন্ধ্যা শুরু হয়েছে। আমরা ভিন্ন পথ দিয়ে যাচ্ছিলাম, কারণ এ ধরনের কিছু ঘটবে, সে ব্যাপারে আমার ধারণাই ছিল না। পথে যেতে যেতে একপর্যায়ে লোকটি আমাকে গাছপালা থাকা একটা জায়গায় কিছু একটা দেখাতে চাইলেন। তখন আমার মনে একধরনের সতর্কসংকেত বেজে ওঠে। তবে লোকটি আমার পরিচিত হওয়ায় আমি সেটাকে পাত্তা দিইনি। সত্যি কথা বলতে কি, আমার মনে হয় না ওই সময় ধর্ষণ বিষয়ে আমার কোনো ধারণা ছিল।’

টমসন বলেন, ‘ঘটনাটি দ্রুত ঘটে যায়। প্রথমে আমি অবাক হয়ে যাই। পরে আমি ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়ি। লোকটি আমার চেয়ে শক্তিশালী হওয়ায় আমি পালাতে পারছিলাম না। আমার অনুভূতি কাজ করছিল না। পরে আমি তীব্র শীতের মধ্যে কাঁদতে কাঁদতে বাড়ি ফিরি। আমি আমার বাবা-মা, বন্ধুবান্ধব ও পুলিশকে কিছু জানাইনি। ঘটনাটি কেবল আমার মধ্যেই ছিল।’

টমসন বলেন, পরে ওই ঘটনার জন্য তিনি ‘লজ্জা’ বোধ করেন এই ভেবে যে এ ধরনের ঘটনা তিনি ঘটার সুযোগ দিয়েছেন। তিনি আরও বলেন, ‘আমি নিজেকে অপবিত্র অনুভব করি এবং নিজেকেই ঘৃণা করতে থাকি। পরে আমি আমার বয়সী শিশুদের থেকে আলাদা হয়ে পড়ি।’ টমসন বলেন, ‘১৪ বছর বয়সে সম্ভবত আমার যৌনতা বিষয়টি বোধগম্য হওয়া শুরু হয়। আমার কাছে মনে হতো যৌনতা হলো এমন জিনিস, যা পুরুষেরা নারীদের সঙ্গে করে থাকে। হয়তোবা আমার জীবনে ঘটে যাওয়া ওই ঘটনার কারণেই আমার ওই বোধ তৈরি হয়।’

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X