রবিবার, ১৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ৬ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ২:৫২
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Friday, November 4, 2016 6:33 am
A- A A+ Print

১০ টাকার চাল নিয়ে হরিলুট চলছে, খালেদা জিয়ার টুইট

photo-1478188828

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া অভিযোগ করেছেন, হতদরিদ্রদের জন্য দেওয়া ১০ টাকা কেজির চাল আওয়ামী লীগের স্বচ্ছল নেতারা লুটপাট করে নিচ্ছেন। বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টার দিকে এক টুইট বার্তায় খালেদা জিয়া এ কথা বলেন। তিনি অভিযোগ করেন, ১০ টাকা কেজি চাল দেওয়ার নিয়ম করে চলছে হরিলুট। টুইটারে লেখা হয়, ‘হতদরিদ্রদের নামে বরাদ্দ করা ১০ টাকা কেজি দরের চাল সারা দেশে আওয়ামী লীগের স্বচ্ছল লোকেরা লুটেপুটে খাওয়ার সংবাদে আমরা লজ্জিত ও স্তম্ভিত।’ বিএনপি সরকারের সময় হতদরিদ্রের জন্য সাহায্যের পাশাপাশি ওপেন মার্কেট সেল (ওএমএস) কার্যক্রমের উদাহরণ তুলে ধরে খালেদা জিয়া টুইট বার্তায় বলেন, ‘হতদরিদ্রদের নামে বরাদ্দ করা ১০ টাকা কেজি দরের চাল সারা দেশে আওয়ামী লীগের স্বচ্ছল লোকেরা লুটেপুটে খাওয়ার সংবাদে আমরা লজ্জিত ও স্তম্ভিত। আমরা সরকার পরিচালনার সময়ে মোটা চালের দর ২০০৭ সাল পর্যন্ত কেজি প্রতি ১৪/১৫ টাকায় সীমিত রেখেছি। কখনো একটু দাম বাড়লে বা অনটনের সময়ে আমরা হতদরিদ্রদের জন্য বিনামূল্যে খয়রাতি সাহায্যের পাশাপাশি কম দামে চাল খোলাবাজারে বিক্রি বা ওএমএস চালু করেছি। তাতে গরিবরা পাঁচ কেজি পর্যন্ত চাল কমদামে কিনতে পারত। এখন শুধু কার্ডধারীদের জন্য ১০ টাকা কেজিতে চাল দেওয়ার নিয়মকরে সেই কার্ড শাসক দলের স্বচ্ছল লোকদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। এতে চলেছে হরিলুট। গরিবরা বঞ্চিত হচ্ছে। গরিবের মুখের গ্রাস এভাবে কেড়ে নিয়ে লুটে খাওয়ার সুবিধা বিনাভোটের সরকার করে দিয়েছে। আমরা নিন্দা জানাই।’ চলতি বছরই খালেদা জিয়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার ব্যবহার শুরু করেন।

Comments

Comments!

 ১০ টাকার চাল নিয়ে হরিলুট চলছে, খালেদা জিয়ার টুইটAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

১০ টাকার চাল নিয়ে হরিলুট চলছে, খালেদা জিয়ার টুইট

Friday, November 4, 2016 6:33 am
photo-1478188828

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া অভিযোগ করেছেন, হতদরিদ্রদের জন্য দেওয়া ১০ টাকা কেজির চাল আওয়ামী লীগের স্বচ্ছল নেতারা লুটপাট করে নিচ্ছেন।

বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টার দিকে এক টুইট বার্তায় খালেদা জিয়া এ কথা বলেন। তিনি অভিযোগ করেন, ১০ টাকা কেজি চাল দেওয়ার নিয়ম করে চলছে হরিলুট।

টুইটারে লেখা হয়, ‘হতদরিদ্রদের নামে বরাদ্দ করা ১০ টাকা কেজি দরের চাল সারা দেশে আওয়ামী লীগের স্বচ্ছল লোকেরা লুটেপুটে খাওয়ার সংবাদে আমরা লজ্জিত ও স্তম্ভিত।’

বিএনপি সরকারের সময় হতদরিদ্রের জন্য সাহায্যের পাশাপাশি ওপেন মার্কেট সেল (ওএমএস) কার্যক্রমের উদাহরণ তুলে ধরে খালেদা জিয়া টুইট বার্তায় বলেন, ‘হতদরিদ্রদের নামে বরাদ্দ করা ১০ টাকা কেজি দরের চাল সারা দেশে আওয়ামী লীগের স্বচ্ছল লোকেরা লুটেপুটে খাওয়ার সংবাদে আমরা লজ্জিত ও স্তম্ভিত। আমরা সরকার পরিচালনার সময়ে মোটা চালের দর ২০০৭ সাল পর্যন্ত কেজি প্রতি ১৪/১৫ টাকায় সীমিত রেখেছি। কখনো একটু দাম বাড়লে বা অনটনের সময়ে আমরা হতদরিদ্রদের জন্য বিনামূল্যে খয়রাতি সাহায্যের পাশাপাশি কম দামে চাল খোলাবাজারে বিক্রি বা ওএমএস চালু করেছি। তাতে গরিবরা পাঁচ কেজি পর্যন্ত চাল কমদামে কিনতে পারত। এখন শুধু কার্ডধারীদের জন্য ১০ টাকা কেজিতে চাল দেওয়ার নিয়মকরে সেই কার্ড শাসক দলের স্বচ্ছল লোকদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। এতে চলেছে হরিলুট। গরিবরা বঞ্চিত হচ্ছে। গরিবের মুখের গ্রাস এভাবে কেড়ে নিয়ে লুটে খাওয়ার সুবিধা বিনাভোটের সরকার করে দিয়েছে। আমরা নিন্দা জানাই।’

চলতি বছরই খালেদা জিয়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার ব্যবহার শুরু করেন।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X