বৃহস্পতিবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সন্ধ্যা ৬:১৭
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, December 3, 2016 4:06 pm
A- A A+ Print

১৪ হাজার কোটি কালো রুপির মালিক নিখোঁজ

21

কোথায় গেলেন মহেশ সাহ? তার কাছে প্রায় ১৪ হাজার কোটি কালো রুপি আছে- এ ঘোষণা দিয়ে উধাও হয়ে গেলেন তিনি। আয় ঘোষণা প্রকল্পের (ইনকাম ডিক্লারেশন স্কিম) অধীনে অক্টোবর মাসে কর কর্মকর্তাদের কাছে ১৩ হাজার ৮৬০ কোটি রুপি অপ্রদর্শিত আয় দেখান মহেশ সাহা। এই স্কিমে কর দিয়ে কালো রুপি সাদা করার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। গুজরাটের আহমেদাবাদে বসবাসকারী বিলিয়নিয়ার মহেশ সাহকে (৪৫) নিয়ে ভারতে তোড়পাড় সৃষ্টি হয়েছে। ৩০ নভেম্বরের মধ্যে ঘোষিত আয়ের ২৫ শতাংশ জমা দিতে বলা হয় তাকে। কিন্তু তাকে এখন পাওয়া যাচ্ছে না। আয়কর কর্মকর্তারা মহেশ সাহর বাড়ি, অফিস এবং তার চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট তেহমুল সেথনার বাসায় তল্লাশি চালিয়েছে তার খোঁজে। আয় ঘোষণায় সেথনা তাকে সহযোগিতা করেন। সেথনা জানিয়েছেন, কেউ জানেন না মহেশ সাহ কোথায় আছেন। তার বিনিয়োগের অবস্থা সম্পর্কেও কেউ জানেন না। মহেশ শাহ পরিবার বলছে, তিনি আত্মগোপন করেননি। তবে ১৫ দিন ধরে তাকে পাওয়া পাওয়া যাচ্ছে না। তার ছেলে মনিতেশ সাহ বলেছেন, তিনি কোথায় আছেন, আমরা জানি না। তিনি এলেই আপনাদের সব প্রশ্নের উত্তর দিতে পারবেন। আয়কর কর্মকর্তারা বলেছেন, আয় ঘোষণার সময় মহেশ সাহর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছিল। কিন্তু গত এক সপ্তাহ তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেননি তারা। মহেশ সাহর আয় সম্পর্কে কর্মকর্তারা বিস্তারিত জানতে না পারলেও তারা জানিয়েছেন, মহারাষ্ট্র, গুজরাট ও দক্ষিণ ভারতে রিয়েল স্টেট ব্যবসায় তার বিনিয়োগ রয়েছে। এখন করকর্মকর্তারা খতিয়ে দেখছেন, কালো টাকার মালিক চক্রের সঙ্গে মহেশ সাহর যোগাযোগ আছে কি না। তথ্যসূত্র : এনটিভি ও টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইন।

Comments

Comments!

 ১৪ হাজার কোটি কালো রুপির মালিক নিখোঁজAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

১৪ হাজার কোটি কালো রুপির মালিক নিখোঁজ

Saturday, December 3, 2016 4:06 pm
21

কোথায় গেলেন মহেশ সাহ? তার কাছে প্রায় ১৪ হাজার কোটি কালো রুপি আছে- এ ঘোষণা দিয়ে উধাও হয়ে গেলেন তিনি।

আয় ঘোষণা প্রকল্পের (ইনকাম ডিক্লারেশন স্কিম) অধীনে অক্টোবর মাসে কর কর্মকর্তাদের কাছে ১৩ হাজার ৮৬০ কোটি রুপি অপ্রদর্শিত আয় দেখান মহেশ সাহা। এই স্কিমে কর দিয়ে কালো রুপি সাদা করার সুযোগ দেওয়া হয়েছে।

গুজরাটের আহমেদাবাদে বসবাসকারী বিলিয়নিয়ার মহেশ সাহকে (৪৫) নিয়ে ভারতে তোড়পাড় সৃষ্টি হয়েছে। ৩০ নভেম্বরের মধ্যে ঘোষিত আয়ের ২৫ শতাংশ জমা দিতে বলা হয় তাকে। কিন্তু তাকে এখন পাওয়া যাচ্ছে না।

আয়কর কর্মকর্তারা মহেশ সাহর বাড়ি, অফিস এবং তার চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট তেহমুল সেথনার বাসায় তল্লাশি চালিয়েছে তার খোঁজে। আয় ঘোষণায় সেথনা তাকে সহযোগিতা করেন। সেথনা জানিয়েছেন, কেউ জানেন না মহেশ সাহ কোথায় আছেন। তার বিনিয়োগের অবস্থা সম্পর্কেও কেউ জানেন না।

মহেশ শাহ পরিবার বলছে, তিনি আত্মগোপন করেননি। তবে ১৫ দিন ধরে তাকে পাওয়া পাওয়া যাচ্ছে না। তার ছেলে মনিতেশ সাহ বলেছেন, তিনি কোথায় আছেন, আমরা জানি না। তিনি এলেই আপনাদের সব প্রশ্নের উত্তর দিতে পারবেন।

আয়কর কর্মকর্তারা বলেছেন, আয় ঘোষণার সময় মহেশ সাহর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছিল। কিন্তু গত এক সপ্তাহ তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেননি তারা।

মহেশ সাহর আয় সম্পর্কে কর্মকর্তারা বিস্তারিত জানতে না পারলেও তারা জানিয়েছেন, মহারাষ্ট্র, গুজরাট ও দক্ষিণ ভারতে রিয়েল স্টেট ব্যবসায় তার বিনিয়োগ রয়েছে।

এখন করকর্মকর্তারা খতিয়ে দেখছেন, কালো টাকার মালিক চক্রের সঙ্গে মহেশ সাহর যোগাযোগ আছে কি না।

তথ্যসূত্র : এনটিভি ও টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইন।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X