সোমবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং, ১৪ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, সকাল ৭:৩৬
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Sunday, July 31, 2016 6:27 pm
A- A A+ Print

১৫ জঙ্গির লাশ হিমঘরে

jongi1469965883

গুলশান ও কল্যাণপুরে নিহত ১৫ জঙ্গির লাশ হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হয়েছে। তাদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেলেও স্বজনরা লাশ নিতে আসছেন না। সব লাশের ময়নাতদন্ত শেষ হয়েছে। কেউ লাশ না নিলে এগুলো বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন করা হবে বলে পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। রোববার মহানগর পুলিশের উপ-পুলিশ (ডিসি) কমিশনার মাসুদুর রহমান রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘জঙ্গিদের দেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তবে লাশ নিতে হলে স্বজনদের ডিএনএ পরীক্ষা করা হবে। এ ছাড়া আইনি আরো কিছু বিষয় আছে। যা সম্পন্ন করে লাশ দেওয়া হবে। রোববার পর্যন্ত কেউ লাশ নিতে এসেছে বলে আমার জানা নেই।’ 13_4 কল্যাণপুরে নিহত জঙ্গিরা হলো- বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার সাজ্জাদ রউফ ওরফে অর্ক ওরফে মরক্কো (২৪), নোয়াখালীর সুধারামের জোবায়ের হোসেন (২০), সাতক্ষীরার তালার মতিয়ার রহমান (২৪), ধানমন্ডির তাজ-উল-হক রাশিক (২৫), গুলশানের আকিফুজ্জামান (২৪), পটুয়াখালীর কলাপাড়ার আবু হাকিম নাইম (৩৩), দিনাজপুরের নবাবগঞ্জের আবদুল্লাহ (২৩) রংপুরের পীরগাছার রায়াহান কবির (২২)। এসব জঙ্গির লাশ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গের হিমঘরে আছে বলে মর্গের দায়িত্বে থাকা ডোম সেকান্দার জানিয়েছেন। তিনি আরো জানান, এখানে লাশ রাখার যে ফ্রিজটি আছে তা ছোট। জঙ্গিদের লাশের জন্য অন্য লাশ নিয়ে বিপাকে পড়তে হচ্ছে। এ ছাড়া ১ জুলাই গুলশানে নিহত ছয় জঙ্গির লাশ সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। এরা হলো রোহান ইবনে ইমতিয়াজ, নিবরাস ইসলাম, মীর সাবেহ মোবাশ্বের, সায়রুল ইসলাম পায়েল, শফিকুল ইসলাম উজ্জ্বল ও শাওন। এদের প্রত্যেকেরই পুরো পরিচয় পাওয়া গেছে। অনেকের বাবা-মা ইতিমধ্যে জানিয়েছেন তারা ছেলের লাশ নেবেন না। গুলশান থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সিরাজুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘কেউ লাশ না নিলে এগুলো আঞ্জুমান মুফিদুলের মাধ্যমে বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন করা হবে।’ সবগুলো লাশের ময়নাতদন্ত করেছেন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. সোহেল মাহমুদ। তিনি রাইজিংবিডিকে বলেন, তদন্ত কর্মকর্তাদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী লাশগুলোর ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। প্রত্যেকেই গুলিতে নিহত হয়। সংগ্রহ করা হয়েছে জঙ্গিদের রক্ত, চুলসহ নানা নমুনা। এসব নমুনা ইতিমধ্যেই তদন্ত সংশ্লিষ্টদের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।

Comments

Comments!

 ১৫ জঙ্গির লাশ হিমঘরেAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

১৫ জঙ্গির লাশ হিমঘরে

Sunday, July 31, 2016 6:27 pm
jongi1469965883

গুলশান ও কল্যাণপুরে নিহত ১৫ জঙ্গির লাশ হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হয়েছে। তাদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেলেও স্বজনরা লাশ নিতে আসছেন না।
সব লাশের ময়নাতদন্ত শেষ হয়েছে। কেউ লাশ না নিলে এগুলো বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন করা হবে বলে পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

রোববার মহানগর পুলিশের উপ-পুলিশ (ডিসি) কমিশনার মাসুদুর রহমান রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘জঙ্গিদের দেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তবে লাশ নিতে হলে স্বজনদের ডিএনএ পরীক্ষা করা হবে। এ ছাড়া আইনি আরো কিছু বিষয় আছে। যা সম্পন্ন করে লাশ দেওয়া হবে। রোববার পর্যন্ত কেউ লাশ নিতে এসেছে বলে আমার জানা নেই।’ 13_4

কল্যাণপুরে নিহত জঙ্গিরা হলো- বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার সাজ্জাদ রউফ ওরফে অর্ক ওরফে মরক্কো (২৪), নোয়াখালীর সুধারামের জোবায়ের হোসেন (২০), সাতক্ষীরার তালার মতিয়ার রহমান (২৪), ধানমন্ডির তাজ-উল-হক রাশিক (২৫), গুলশানের আকিফুজ্জামান (২৪), পটুয়াখালীর কলাপাড়ার আবু হাকিম নাইম (৩৩), দিনাজপুরের নবাবগঞ্জের আবদুল্লাহ (২৩) রংপুরের পীরগাছার রায়াহান কবির (২২)। এসব জঙ্গির লাশ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গের হিমঘরে আছে বলে মর্গের দায়িত্বে থাকা ডোম সেকান্দার জানিয়েছেন।
তিনি আরো জানান, এখানে লাশ রাখার যে ফ্রিজটি আছে তা ছোট। জঙ্গিদের লাশের জন্য অন্য লাশ নিয়ে বিপাকে পড়তে হচ্ছে।

এ ছাড়া ১ জুলাই গুলশানে নিহত ছয় জঙ্গির লাশ সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। এরা হলো রোহান ইবনে ইমতিয়াজ, নিবরাস ইসলাম, মীর সাবেহ মোবাশ্বের, সায়রুল ইসলাম পায়েল, শফিকুল ইসলাম উজ্জ্বল ও শাওন। এদের প্রত্যেকেরই পুরো পরিচয় পাওয়া গেছে। অনেকের বাবা-মা ইতিমধ্যে জানিয়েছেন তারা ছেলের লাশ নেবেন না। গুলশান থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সিরাজুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘কেউ লাশ না নিলে এগুলো আঞ্জুমান মুফিদুলের মাধ্যমে বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন করা হবে।’

সবগুলো লাশের ময়নাতদন্ত করেছেন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. সোহেল মাহমুদ। তিনি রাইজিংবিডিকে বলেন, তদন্ত কর্মকর্তাদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী লাশগুলোর ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। প্রত্যেকেই গুলিতে নিহত হয়। সংগ্রহ করা হয়েছে জঙ্গিদের রক্ত, চুলসহ নানা নমুনা। এসব নমুনা ইতিমধ্যেই তদন্ত সংশ্লিষ্টদের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X