শনিবার, ১৮ই নভেম্বর, ২০১৭ ইং, ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, দুপুর ২:১৮
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Saturday, September 9, 2017 11:04 pm
A- A A+ Print

৩৮ টুকরা করা লাশের পরিচয় মিলেছে

8cafa17475af33318eff2d83c8be0dcb-59b403eedcef3

ঢাকার আশুলিয়ার জামগড়া এলাকার একটি বাসায় ড্রামের ভেতর থেকে উদ্ধার হওয়া ৩৮ টুকরা করা লাশের পরিচয় মিলেছে। হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে পুলিশ ঝিনাইদহ থেকে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে। লাশটি ছিল ঝিনাইদহ সদর উপজেলার নইহাটি গ্রামের তক্কেল মণ্ডলের মেয়ে তাসলিমা আক্তারের। আশুলিয়া থানার পুলিশ ওই নারীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, কয়েক বছর আগে একই উপজেলার বাগডাঙ্গা গ্রামের মজিবর রহমানের সঙ্গে তাসলিমার বিয়ে হয়। বিয়ের কয়েক মাস পর তাঁরা আশুলিয়ায় চলে আসেন। তাসলিমা একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করতেন। মজিবর কাজ করতেন একটি দরজির দোকানে। বিয়ের কিছুদিন পর তাঁদের মধ্যে কলহ দেখা দিলে তাঁরা পৃথক স্থানে বসবাস করতে থাকেন। আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (অপারেশন) জাহিদুল ইসলাম বলেন, মজিবর রহমান গত ৩০ আগস্ট জামগড়া এলাকায় প্রবাসী মাসুদ মিয়ার বাসার একটি কক্ষ ভাড়া নেন। এক দিন পর তিনি ওই বাসায় মালামাল রেখে তালা দিয়ে চলে যান। পরে ওই ঘর থেকে দুর্গন্ধ বের হলে প্রতিবেশীরা আশুলিয়া থানায় অভিযোগ দেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কক্ষের দরজা ভেঙে একটি প্লাস্টিকের ড্রামের ভেতর থেকে ৩৮ টুকরা অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে। আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল আউয়াল বলেন, ঘটনার পর থেকে পাওয়া বিভিন্ন তথ্যের ভিত্তিতে গত শুক্রবার রাতে ঝিনাইদহ থেকে মুকুল নামের এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। তাঁর কাছ থেকে তাসলিমার পরিচয়ের বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়। তিনি তাসলিমার স্বামী মজিবর রহমানের বন্ধু। নতুন বাসায় মালামাল আনার দিন মজিবরের সঙ্গে তিনিও ছিলেন। ওসি আবদুল আউয়াল বলেন, ঘটনার পর থেকে মজিবর রহমান পলাতক। এতে সন্দেহ করা হচ্ছে, দাম্পত্য কলহের জের ধরে মজিবর তাসলিমাকে খুন করে লাশ ড্রামে ভরে নতুন বাসায় রেখে গা ঢাকা দিয়েছেন।

Comments

Comments!

 ৩৮ টুকরা করা লাশের পরিচয় মিলেছেAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

৩৮ টুকরা করা লাশের পরিচয় মিলেছে

Saturday, September 9, 2017 11:04 pm
8cafa17475af33318eff2d83c8be0dcb-59b403eedcef3

ঢাকার আশুলিয়ার জামগড়া এলাকার একটি বাসায় ড্রামের ভেতর থেকে উদ্ধার হওয়া ৩৮ টুকরা করা লাশের পরিচয় মিলেছে। হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে পুলিশ ঝিনাইদহ থেকে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে। লাশটি ছিল ঝিনাইদহ সদর উপজেলার নইহাটি গ্রামের তক্কেল মণ্ডলের মেয়ে তাসলিমা আক্তারের।

আশুলিয়া থানার পুলিশ ওই নারীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, কয়েক বছর আগে একই উপজেলার বাগডাঙ্গা গ্রামের মজিবর রহমানের সঙ্গে তাসলিমার বিয়ে হয়। বিয়ের কয়েক মাস পর তাঁরা আশুলিয়ায় চলে আসেন। তাসলিমা একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করতেন। মজিবর কাজ করতেন একটি দরজির দোকানে। বিয়ের কিছুদিন পর তাঁদের মধ্যে কলহ দেখা দিলে তাঁরা পৃথক স্থানে বসবাস করতে থাকেন।
আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (অপারেশন) জাহিদুল ইসলাম বলেন, মজিবর রহমান গত ৩০ আগস্ট জামগড়া এলাকায় প্রবাসী মাসুদ মিয়ার বাসার একটি কক্ষ ভাড়া নেন। এক দিন পর তিনি ওই বাসায় মালামাল রেখে তালা দিয়ে চলে যান। পরে ওই ঘর থেকে দুর্গন্ধ বের হলে প্রতিবেশীরা আশুলিয়া থানায় অভিযোগ দেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কক্ষের দরজা ভেঙে একটি প্লাস্টিকের ড্রামের ভেতর থেকে ৩৮ টুকরা অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করে।
আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল আউয়াল বলেন, ঘটনার পর থেকে পাওয়া বিভিন্ন তথ্যের ভিত্তিতে গত শুক্রবার রাতে ঝিনাইদহ থেকে মুকুল নামের এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। তাঁর কাছ থেকে তাসলিমার পরিচয়ের বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়। তিনি তাসলিমার স্বামী মজিবর রহমানের বন্ধু। নতুন বাসায় মালামাল আনার দিন মজিবরের সঙ্গে তিনিও ছিলেন।
ওসি আবদুল আউয়াল বলেন, ঘটনার পর থেকে মজিবর রহমান পলাতক। এতে সন্দেহ করা হচ্ছে, দাম্পত্য কলহের জের ধরে মজিবর তাসলিমাকে খুন করে লাশ ড্রামে ভরে নতুন বাসায় রেখে গা ঢাকা দিয়েছেন।

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X