বুধবার, ১৮ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং, ৩রা কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, রাত ৮:৩৪
শিরোনাম
  • ঘৃণাকে বিজয়ী হতে দেয়া যাবে না, ট্রাম্পকে ইঙ্গিত করে জর্জ ক্লুনি
  • আমার একটাই চিন্তা দেশের মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন করা: প্রধানমন্ত্রী
  • ‘কেন্দ্রীয় সরকারের আগ্রাসী নীতির কারণে কাশ্মীরকে হারাতে হবে’
  • সাড়ে চারমাস পর মুখোমুখি, খাদিজাকে উদ্দেশ্য করে যা বলল বদরুল
  • খালেদার ‘সাজা’ বিরোধী নেতাকর্মীদের মনোবল ভাঙ্গার কৌশল!
  • বিএনপির কর্মসূচি ‘যথাসময়ে’ জানানো হবে: রিজভী
  • দলের জন্য বোলিং করতেও রাজি মুশফিক
  • শিশু জিহাদের মৃত্যু: চার জনের ১০ বছর করে কারাদণ্ড
  • অবশেষে বাড়ি অবরুদ্ধ করে রাখা সেই দেয়াল ভেঙ্গে ফেলা হচ্ছে
  • সাক্ষ্য দিলেন খাদিজা, চাইলেন বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি
  • বদরুলের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে আদালতে খাদিজা
  • আজ বগুড়ায় যেসব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
  • রোহিঙ্গা স্থানান্তরের সরকারি পরিকল্পনার সঙ্গে দ্বিমত মানবাধিকার কমিশনের
  • মহেশখালীতে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধ’
  • হোয়াইট হাউসে কাজ করার দীর্ঘ অভিজ্ঞতার কথা জানালেন এই বাংলাদেশি সাংবাদিক
Thursday, October 12, 2017 9:35 pm
A- A A+ Print

৮৫ দিনেই ভেঙে গেল শ্রাবন্তীর সংসার

3

ভারতের বাংলা ছবির জনপ্রিয় নায়িকা শ্রাবন্তী দ্বিতীয়বার বিয়ের পিঁড়িতে বসেছিলেন ১০ জুলাই। মুম্বাইয়ের সুপার মডেল কৃষ্ণ ভিরাজের সঙ্গে বিয়ে হয় তাঁর। বছর খানেক প্রেম করার পর তাঁরা দুজন বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন। বিয়েতে হাজির হয়েছিলেন টালিগঞ্জের অনেক তারকা। কথা ছিল, তাঁদের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা হবে আগামী বছর। না, শেষ পর্যন্ত আর তা আয়োজন করা হলো না এই দম্পতির। ভেঙে গেছে ভিরাজ আর শ্রাবন্তীর সংসার। কবে, কোথায় আর কী কারণে ভেঙে গেল, এ ব্যাপারে কিছুই জানাননি শ্রাবন্তী। তাঁদের একটি ঘনিষ্ঠ সূত্র সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছে, ৮৫ দিনের মাথায় তাঁদের বিবাহবিচ্ছেদ-সংক্রান্ত আইনি প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে। তবে শ্রাবন্তী সংবাদমাধ্যমের কাছে স্বীকার করেছেন, কৃষ্ণ ভিরাজের সঙ্গে তাঁর ডিভোর্স হয়ে গেছে। বললেন, ‘আমরা দুজন মিলেই ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বনিবনা না হলে একসঙ্গে মিথ্যা সুখে থাকার কী লাভ। কৃষ্ণ ভিরাজের বিরুদ্ধে আমার কোনো অভিযোগ নেই। আমি চাই, সে যেন ভালো থাকে।’ এর আগে শ্রাবন্তী ভারতের বাংলা ছবির প্রযোজক রাজীব বিশ্বাসকে বিয়ে করেছিলেন। তাঁদের ১২ বছরের একটি ছেলে আছে। ছেলের নাম ঝিনুক। শ্রাবন্তী আরও বলেন, ‘আমি এখন আর ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে মাথা ঘামাচ্ছি না। নিজের কাজ আর ছেলের পড়াশোনা নিয়ে ব্যস্ত আছি। ঝিনুক এবার ক্লাস এইটে। ওর স্কুলে যেতে সুবিধে হবে বলে বেহালা থেকে বাইপাসের ধারে বহুতল ভবনে ফ্ল্যাট নিয়েছি। আমরা মা-ছেলে বেশ ভালো আছি।’ শ্রাবন্তী কি হতাশাগ্রস্ত? বললেন, ‘হতাশ হয়ে নিজের ক্ষতি করতে পারব না। কারণ, আমার ছেলে, বাবা-মা সব সময় আমায় আগলে রাখে। মাঝেমধ্যে ভাবি, এত ভালোবেসেও আমি ভালোবাসা পেলাম না। আমি খুব আবেগপ্রবণ। সংসার করতে ভালোবাসি। কিন্তু এখন মনে হয়, শুধু বর থাকলেই সংসার হবে, এমন নয়। বাবা-মা, ছেলেকে নিয়েও সংসার হয়। প্রতিটি মেয়েই চায় সংসার করতে। কিন্তু আমার কপালে যা লেখা ছিল তা-ই হয়েছে। ভবিষ্যৎ কী রকম হবে জানি না। তবে আমি আগের চেয়ে পরিণত হয়েছি।’

Comments

Comments!

 ৮৫ দিনেই ভেঙে গেল শ্রাবন্তীর সংসারAmarbangladeshonlineAmarbangladeshonline | Amarbangladeshonline

৮৫ দিনেই ভেঙে গেল শ্রাবন্তীর সংসার

Thursday, October 12, 2017 9:35 pm
3

ভারতের বাংলা ছবির জনপ্রিয় নায়িকা শ্রাবন্তী দ্বিতীয়বার বিয়ের পিঁড়িতে বসেছিলেন ১০ জুলাই। মুম্বাইয়ের সুপার মডেল কৃষ্ণ ভিরাজের সঙ্গে বিয়ে হয় তাঁর। বছর খানেক প্রেম করার পর তাঁরা দুজন বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন। বিয়েতে হাজির হয়েছিলেন টালিগঞ্জের অনেক তারকা। কথা ছিল, তাঁদের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা হবে আগামী বছর। না, শেষ পর্যন্ত আর তা আয়োজন করা হলো না এই দম্পতির।

ভেঙে গেছে ভিরাজ আর শ্রাবন্তীর সংসার। কবে, কোথায় আর কী কারণে ভেঙে গেল, এ ব্যাপারে কিছুই জানাননি শ্রাবন্তী। তাঁদের একটি ঘনিষ্ঠ সূত্র সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছে, ৮৫ দিনের মাথায় তাঁদের বিবাহবিচ্ছেদ-সংক্রান্ত আইনি প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে। তবে শ্রাবন্তী সংবাদমাধ্যমের কাছে স্বীকার করেছেন, কৃষ্ণ ভিরাজের সঙ্গে তাঁর ডিভোর্স হয়ে গেছে। বললেন, ‘আমরা দুজন মিলেই ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বনিবনা না হলে একসঙ্গে মিথ্যা সুখে থাকার কী লাভ। কৃষ্ণ ভিরাজের বিরুদ্ধে আমার কোনো অভিযোগ নেই। আমি চাই, সে যেন ভালো থাকে।’

এর আগে শ্রাবন্তী ভারতের বাংলা ছবির প্রযোজক রাজীব বিশ্বাসকে বিয়ে করেছিলেন। তাঁদের ১২ বছরের একটি ছেলে আছে। ছেলের নাম ঝিনুক।

শ্রাবন্তী আরও বলেন, ‘আমি এখন আর ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে মাথা ঘামাচ্ছি না। নিজের কাজ আর ছেলের পড়াশোনা নিয়ে ব্যস্ত আছি। ঝিনুক এবার ক্লাস এইটে। ওর স্কুলে যেতে সুবিধে হবে বলে বেহালা থেকে বাইপাসের ধারে বহুতল ভবনে ফ্ল্যাট নিয়েছি। আমরা মা-ছেলে বেশ ভালো আছি।’

শ্রাবন্তী কি হতাশাগ্রস্ত? বললেন, ‘হতাশ হয়ে নিজের ক্ষতি করতে পারব না। কারণ, আমার ছেলে, বাবা-মা সব সময় আমায় আগলে রাখে। মাঝেমধ্যে ভাবি, এত ভালোবেসেও আমি ভালোবাসা পেলাম না। আমি খুব আবেগপ্রবণ। সংসার করতে ভালোবাসি। কিন্তু এখন মনে হয়, শুধু বর থাকলেই সংসার হবে, এমন নয়। বাবা-মা, ছেলেকে নিয়েও সংসার হয়। প্রতিটি মেয়েই চায় সংসার করতে। কিন্তু আমার কপালে যা লেখা ছিল তা-ই হয়েছে। ভবিষ্যৎ কী রকম হবে জানি না। তবে আমি আগের চেয়ে পরিণত হয়েছি।’

Comments

comments

সম্পাদক : মোহাম্মদ আবদুল বাছির
প্রকাশক: মোহাম্মদ জহিরুল ইসলাম
ফোন : ‎০১৭১৩৪০৯০৯০
৩৪৫/১, দিলু রোড, নিউ ইস্কাটন, ঢাকা-১০০০
X
 
নিয়মিত খবর পড়তে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন
X